Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ মাঘ ১৪২৭, ০৯ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

কেআইএ’র বিরুদ্ধে বড় ধরনের অভিযান শুরু করেছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী বা তাতমাদাও কাচিন রাজ্যে কাচিন ইনডিপেনডেন্ট আর্মি (কেআইএ)-র সদর দফতর ও অন্যান্য ঘাঁটিগুলোর বিরুদ্ধে বড় ধরনের অভিযান শুরু করেছে। বুধবার এই অভিযান শুরু হয়। স্থল ও বিমান পথে হামলা করা হচ্ছে বলে স্থানীয় সূত্রগুলো জানিয়েছে। চলতি সপ্তাহের গোড়ার দিকে তাতমাদাও-এর একটি ঘাঁটির ওপর হামলা চালায় কেআইএ। জবাবে পাল্টা হামলা চালানো হচ্ছে।
কেআইএ মুখপাত্র কর্নেল নাও বু ইরাবতীকে জানান যে লাইজায় কেআইএ’র সদর দফতরের আশপাশের এলাকায় তাতমাদাও কামানের গোলা বর্ষণ করছে।
মুখপাত্র বলেন, স্থানীয় সময় ২টার দিকে তারা আমাদের লাইজা সদরদফতর লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ শুরু করে। তারা আমাদের আরো কিছু ঘাঁটি আক্রমণ করেছে। তারা কেআইএ ব্রিগেড ২ এবং কেআইএ ব্যাটালিয়ন ১১-এর ওপর জঙ্গিবিমান থেকে হামলা করছে। ব্রিগেড ২ এবং ব্যাটালিয়ন ১১-এর অবস্থান হুকাওয়াং উপত্যকায়।
কেআইএ স¤প্রতি এই এলাকা থেকে গেরিলা ধাঁচের সামরিক অভিযান শুরুর ঘোষণা দিয়েছে। এর মধ্যে তাতমাদাও-এর বিরুদ্ধে ভূমি মাইন বসানোর ঘোষণাও রয়েছে। ওই এলাকায় তৎপরত অবৈধ খনি শ্রমিকদের ১০ এপ্রিলের মধ্যে এলাকা ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
নর্দান এলায়েন্সের পক্ষ থেকে বলা হয় যে তাতমাদাও-এর হামলায় এক কলাবাগান শ্রমিক নিহত হয়েছে। কিছু বেসামরিক ব্যক্তি আহত হওয়ার কথা স্বীকার করেন কর্নেল বু। কেআইএ, টিএনএলএ, এএ এবং এমএনডিএএ-এর জোট হলো নর্দান এলায়েন্স। ২০১১ সালে কেআইএ এবং কেন্দ্রীয় সরকারের মধ্যে ১৭ বছরের যুদ্ধবিরতি চুক্তি ভেঙ্গে যাওয়ার পর থেকে ওই এলাকার এক লাখেরও বেশি মানুষ এখনো গৃহহীন হয়ে আছে। সূত্র : সাউথ এশিয়ান মনিটর।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন