Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭, ১১ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

জনগনের আস্থা হারিয়ে সরকার দিশেহারা হয়ে পড়েছে- এরশাদ

রংপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ এপ্রিল, ২০১৮, ৬:২৮ পিএম | আপডেট : ৯:০৪ পিএম, ১৫ এপ্রিল, ২০১৮

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, বর্তমানে সরকারের অবস্থা খুব নাজুক। জনগনের আস্থা হারিয়ে সরকার এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন ইস্যুতে ক্ষমতাসীন আওয়ামী সরকারের সুনাম ক্ষুন্ন হয়েছে। জনগণ থেকে অনেকটা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এই মুহূর্তে জাতীয় পাটি এখন জনগনের একমাত্র আস্থার দল। এই মুহূর্তে নির্বাচন করার মত জনপ্রিয় দল। নিরেপক্ষ ও সুষ্ঠ নির্বাচন হলে জনগন ভোট দিয়ে জাতীয় পার্টিকেই দেশ পরিচালনার দায়িত্বভার অর্পণ করবে বলে আমার বিশ্বাস।
তিনি গতকাল রোববার দুপুরে রংপুর পাবলিক লাইব্রেরী মাঠে রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
জাপা নেতা আব্দুর রাজ্জাকের সঞ্চালনায় প্রেসিডিয়াম সদস্য, রংপুর জেলা সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক এবং স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মসিউর রহমান রাঙ্গা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী গোলাম মোহাম্মদ কাদের, মহাসচিব এবি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি, সালাউদ্দিন মুক্তি এমপি, শওকত চৌধুরী এমপি, সংসদ সদস্য শাহানারা বেগম, নির্বাহী সদস্য মেয়র (অব) খালেদ আখতার, রংপুর মহানগর জাতীয় পাটির সভাপতি ও রসিক মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা ও সাধারণ সম্পাদক এস.এম ইয়াসিরসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
জাপা চেয়ারম্যান বলেন, জাতীয় পার্টি এখন বিরোধী দল। আমরা কারো সাথেই নাই। একাই আছি। আগামী সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নিলে জাতীয় পার্টি এককভাবে নির্বাচন করবে এবং ৩’শ আসনেই একক প্রার্থী দেব। আসন্ন নির্বাচন আমাদের বাচা-মরার নির্বাচন। প্রত্যেক প্রার্থীকে বিজয়ী হতে হবে।
কোটা প্রসঙ্গে এরশাদ বলেন, সরকারী চাকরিতে যে কোটা দেয়া হয়েছে তা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। কোটা ব্যবস্থা নিয়ে ছাত্রদের মনে দীর্ঘ দিনের ক্ষোভ ছিল। আন্দোলনের মধ্যে দিয়ে তার বহি:প্রকাশ ঘটেছে। প্রধানমন্ত্রী বিষয়টি উপলব্ধি করে কোটা পদ্ধতি বাতিল করেছেন। তিনি সাহস নিয়ে সঠিক কাজটি করেছেন। তবে একেবারেই মুক্তিযোদ্ধা কোটা বাতিল করা ঠিক হবে না। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য কিছু কোটা পদ্ধতি থাকা উচিত।
দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমরা রংপুরের ৫টি আসন হারিয়েছি। এই আসনগুলো আগামী নির্বাচনে ফিরিয়ে আনতে চাই। এজন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। কোন গ্রপিং-লবিং চলবে না। জনগণের সেবা করতে হবে। তাদের দুঃসময়ে পাশে দাঁড়াতে হবে।
সম্মেলনে জাতীয় পাটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন সমবায় প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মসিউর রহমান রাঙ্গাকে রংপুর জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও ফখরুজ্জামান জাহাঙ্গীরকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৫১ সদস্য একটি কমিটি ঘোষণা দেয়া হয় এবং আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি তৈরী করে কেন্দ্রীয়ভাবে অনুমোদন দেয়ার কথা জানান। সম্মেলনে রংপুর মহানগরসহ আট উপজেলার নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: এরশাদ

১০ অক্টোবর, ২০১৯
৩১ আগস্ট, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন