Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫, ৮ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

সাইনাস অপারেশন অবসাদ দূর করে

| প্রকাশের সময় : ২০ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

ওরাল পেমফিগাস ভালগারিস একটি বিরল অটোইমমিউন রোগ যার কারণে মিউকাস মেমব্রেনে ব্যথাযুক্ত বিøস্টার এবং আলসার সৃষ্টি হয়ে থাকে। সাধারণত ৫০ বছর বয়সের উপরে ব্যক্তিদের মাঝে পরিলক্ষিত হয়ে থাকে। যদি আপনার অটোইমমিউন রোগ থাকে, সেক্ষেত্রে আপনার রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা ভুল করে আপনার স্বাস্থ্যবান কোষকে আক্রমণ করে থাকে।
পেমফিগাস শব্দটি এসেছে গ্রিক শব্দ পেমফিক্স থেকে যা বলতে বুঝায় বাবল বা বিøস্টার। পেমফিগাস ভালগারিস একটি অটোইমমিউন রোগ যার কারণে চর্মে এবং মিউকাস মেমব্রেন এ বিøস্টার ও ক্ষতের সৃষ্টি হয়। যদিও কম দেখা যায় কিন্তু পেমফিগাস ভালগারিস একটি মারাত্মক ধরনের চর্ম রোগ। পেমফিগাস ভালগারিস ত্বকের উপর ব্যথাযুক্ত বিøস্টার সৃষ্টি করে থাকে। ত্বক ছাড়াও মুখের অভ্যন্তরে, নাক, গলাতে বিøস্টার হতে পারে। পেমফিগাস ভালগারিস রোগটি পুরুষদের চেয়ে মহিলাদের বেশী হয়ে থাকে। মুখে যখন পেমপিগাস ভালগারিস হয়ে থাকে তা রোগীর জন্য অত্যন্ত বেদনাদায়ক হয়ে থাকে। রোগীর খাদ্যদ্রব্য গ্রহণে ভীষণ অসুবিধা হয়ে থাকে।
পেমফিগাস ভালগারিসের জটিলতা : কোনো কোনো সময় পেমফিগাস ভালগারিসের বিøস্টারগুলোর সংক্রমণ হয়ে থাকে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে সংক্রমণ খুব দ্রæত রক্তে বিস্তৃতি লাভ করে যা সেপসিস নামে পরিচিত। সংক্রমণ রক্তে ছড়িয়ে পড়লে তা সারা শরীর আক্রান্ত করতে পারে যা জীবনের প্রতি হুমকিস্বরূপ হতে পারে। পেমফিগাস ভালগারিস একটি অটোইমমিউন অবস্থা অর্থ্যাৎ এ অবস্থায় শরীরের স্বাভাবিক রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা কার্যকর প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারে না । এ রোগ স্বাস্থ্যবান কোষকে আক্রমণ করতে শুরু করে। এ কারণে মুখে পেমফিগাস ভালগারিস হলে এক স্থান থেকে অন্য স্থান আক্রান্ত হয়ে থাকে। ফলে রোগী চরম অস্বস্তিকর অবস্থার মধ্যে দিন অতিবাহিত করে।
চিকিৎসা ঃ
পেমফিগাস ভালগারিসের চিকিৎসা করা হয় কর্টিকোস্টেরয়েড এবং অ্যাজাথিওপ্রিন দ্বারা। মুখে খাওয়ার স্টেরয়েড বিশেষ করে প্রেডনিসোলন বেশি ডোজে প্রদান করা হয়। স্টেরয়েড এর ডোজের মাত্রা কমানো বা বাড়ানো লাগতে পারে মুখের অবস্থার প্রেক্ষাপটে। ইন্ট্রাভেনাস ইমমিউনোগেøাবিউলিন থেরাপির মাধ্যমেও পেমফিগাস ভালগারিস রোগীর চিকিৎসা প্রদান করা হয়। কার্বন ডাই অক্সাইড লেজারের মাধ্যমেও পেমফিগাস রোগীর মাঝে মাঝে চিকিৎসা করা হয়। পেমফিগাস ভালগারিস এর চিকিৎসা চলাকালীন সময় একজন ডাক্তারের নিবিড় তত্ত¡াবধানে থাকতে হয়। তবে একটি কথা মনে রাখতে হবে যে, মুখের অভ্যন্তরে বিøস্টার বা আলসার দেখা দিলেই পেমফিগাস ভালগারিস হিসেবে চিহ্নিত করা ঠিক নয়। অনেক কারণে মুখে বিøস্টার ও আলসার দেখা দিতে পারে। সেক্ষেত্রে মুখের আলসারের যথাযথ কারণ চিহ্নিত করে তবেই চিকিৎসা প্রদান করতে হবে। মুখস্থ কোনো চিকিৎসা গ্রহণ করবেন না।

ডাঃ মোঃ ফারুক হোসেন
মুখ ও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ
মোবাইল: ০১৮১৭-৫২১৮৯৭

dr.faruqu@gmail.com



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ