Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০১৯, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৪ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

মাহমুদুর রহমান-শওকত মাহমুদের মুক্তিতে প্রধান বিচারপতিকে স্মারকলিপি

প্রকাশের সময় : ৫ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি শওকত মাহমুদের মুক্তিতে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার হস্তক্ষেপ চেয়ে স্মারকলিপি দিয়েছেন কয়েকটি সংগঠনের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। গতকাল সোমবার সুপ্রিম কোর্টে প্রধান বিচারপতির একান্ত সচিব মোহাম্মদ আনিসুর রহমানের কাছে এ বিষয়ে স্মারকলিপি হস্তান্তর করেন তারা। প্রধান বিচারপতি বরাবর দেয়া স্মারকলিপিতে সই করেন সাংবাদিক নেতা ও সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহŸায়ক রুহুল আমিন গাজী, বিএফইউজের মহাসচিব এম আবদুল্লাহ, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কবি আবদুল হাই শিকদার, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, আমার দেশের নির্বাহী সম্পাদক ও জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমদ, ফটোজার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এ কে এম মহসিন ও সাধারণ সম্পাদক মীর আহমেদ মীরু। পরে সাংবাদিক নেতারা সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনে ল’ রিপোর্টার্স ফোরাম কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি অবহিত করেন। এসময় সাংবাদিক নেতারা ও বিএফইউজের সাবেক মহাসচিব এম এ আজিজ ও জাতীয় প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক কাদের গনি চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। স্মারকলিপিতে বলা হয়, মাহমুদুর রহমান ও শওকত মাহমুদ দীর্ঘদিন ধরে কারাবন্দি আছেন। সব মামলায় উচ্চ আদালতে জামিন পাওয়ার পরও তাঁদের পুরাতন মামলায় শ্যোন অ্যারেস্ট দেখিয়ে কারাগারে রাখা হয়েছে। এসব মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। মাহমুদুর রহমান ও শওকত মাহমুদ যাতে সব ধরনের আইনি জটিলতা এবং সরকারের অবৈধ তৎপরতা থেকে মুক্ত হয়ে জেল থেকে বের হতে পারেন, সে জন্য প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ কামনা করেন সাংবাদিক নেতারা। এতে আরো বলা হয়েছে, মাহমুদুর রহমান রহমান দীর্ঘ চার বছর জেলে থাকায় তার শারীরিক অবস্থা খুবই শোচনীয় তার ওজন ১২ কেজি কমে গেছে। মেরুদÐ চোয়াল, ফ্েেরাজেন সোল্ডার সমস্যাসহ বিভিন্ন জটিরতায় তিনি ভুগছেন। অপরদিকে শওকত মাহমুদ গুরুতর অসুস্থ্য একজন সাংবাদিক। তার হার্টে বাইপাস সার্জারি এবং তিনিটি রিং লাগানো হয়েছে। তিনি ডায়াবেটিস, কিডনি, ফুসফুস ও মেরুদÐ সমস্যায় আক্রান্ত। সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দরা বলেন, তারা প্রধান বিচারপতির কাছে সব ধরনের আইনী জটিলতা এবং সরকারের অবৈধ তৎপরতা থেকে মুক্ত হয়ে কারামুক্তি লাভ করতে পারেন, সে জন্য প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ