Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮, ০৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ৫ রমজান ১৪৩৯ হিজরী

মঠবাড়িয়ায় পুলিশের বিশেষ অভিযানে গ্রেফতার ২৮

ছবি তুলতে গিয়ে সাংবাদিক লাঞ্ছিত/ মুক্তিযোদ্ধাকে পুলিশের হাতকড়া পারানোয় ক্ষোভ

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

পিরোজপুর পুলিশ সুপারের নির্দেশে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ গত বৃহষ্পতিবার রাতে উপজেলার ৫ টি ইউনিয়নে বিশেষ অভিযান চালিয়ে হত্যা ও মাদকসহ বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত ২৮ জন আসামী গ্রেফতার করেছেন।গ্রেফতারকৃতদের শুক্রবার দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়।
থানা সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি মঠবাড়িয়ায় কয়েকটি হত্যা, ডাকাতি ও মাদক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামীদের প্রেফতার ও আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে এ বিশেষ অভিযান চালানো হয়। এ সময় উপজেলার বুড়িরচর গ্রামের চাঞ্চল্যকর ওয়ার্ড বিএনপি নেতা হাবিব তালুকদার হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত পলাতক আসামী ফজলু মাতুব্বর, বাঁশবুনিয়া গ্রামের পিকআপ চালক আরিফ হত্যার সন্দেহভাজন আসামী ইউনুছ খানসহ বিভিন্ন মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত ২৮ জন আসামী গ্রেফতার করে পুলিশ। মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. গোলাম ছরোয়ার জানান,জেলা পুলিশ সুপার মো. সালাম কবিরের নির্দেশে উপজেলার সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এ অভিযান চালানো হয়। আইন শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।
এদিকে পুলিশের বিশেষ অভিযানে গ্রেফতার হওয়া ২৮ আসামীদের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা মো. নজরুল ইসলাম গোলদার (৭০) কে গ্রেফতার করা হয়। গতকাল শুক্রবার দুপুরে ওই মুক্তিযোদ্ধাকে হাতকড়া পরিয়ে আদালতে নেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডসহ সুশিল সমাজের প্রতিনিধিরা। এ সময় থানা গেটে অভিযানেগ্রেফতার হওয়া মুক্তিযোদ্ধাসহ ২৮ আসামীর ছবি তুলেতে গেলে পুলিশ সদস্য সোহরাব হোসেনের হাতে লাঞ্চিত হন স্থানীয় দুই সাংবাদিক। লাঞ্চিত সাংবাদিকরা হলেন, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ পত্রিকার মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি মো. শাহাদাৎ হোসেন ও দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ পত্রিকার মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি জুলফিকার আমীন সোহেল। এ ঘটনায় তাৎক্ষনিক স্থানীয় সাংবাদিকরা নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দায়ী পুলিশের বিচার দাবী করেন।
মঠবাড়িয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ হাসান মোস্তফা স্বপন জানান, সাংবাদিক লাঞ্চিত ঘটনাটি দুঃখ জনক। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 


দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।