Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২০ আগস্ট ২০১৮, ০৫ ভাদ্র ১৪২৫, ০৮ যিলহজ ১৪৩৯ হিজরী‌

মেয়েদের বের করে দেয়ার কথা গুজব -ঢাবি ভিসি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কবি সুফিয়া কামাল হল থেকে মধ্যরাতে ছাত্রীদের বের করে দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আক্তারুজ্জামান। তিনি বলেন, এটা একটা গুজব। তাদের অভিভাবকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে বিভ্রান্তি ছড়ানোর পাঁয়তারা চলছে। হল থেকে কাউকেই বের করে দেওয়া হয়নি। কেন শিক্ষার্থীদের হল ছাড়তে হয়েছে-জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা কারণ জানার চেষ্টা করছি। তা জানতে পারলে জানাবো। গত বৃহস্পতিবার রাতে সুফিয়া কামাল হল থেকে তিন ছাত্রী গণিত বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শারমীন শুভ, থিয়েটার অ্যান্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী কামরুন্নাহার লিজা ও গণিত বিভাগের পারভীনকে বের করে দেওয়ার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার এ কথা বলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আক্তারুজ্জামান। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সুফিয়া কামাল হলের প্রভোস্ট ড. সাবিতা রেজওয়ানা রহমান দাবি করেন, শিক্ষার্থীদের অভিভাবকেরা স্বেচ্ছায় তাদের মেয়েদের হল থেকে নিয়ে গেছেন। তিনি বলেন, এশা একজন শিক্ষার্থীর রগ কেটে দিয়েছিল বলে যে গুজব ১০ এপ্রিল ছড়ানো হয়েছিল, মোবাইল চেক করে ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত করেছি। যারা ওই ঘটনায় জড়িত ছিল, তাদের অভিভাবকদের হলে ডেকেছি। তাদের ওই ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ভিডিওগুলো দেখানো হয়েছে। তখন অভিভাবকরা নিজেরাও লজ্জা পেয়েছেন এবং তারা স্বেচ্ছায় তাদের মেয়েদের নিয়ে গেছেন।
ঢাবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, মেয়েদের হল থেকে বের করে দেওয়ার ঘটনা সত্য নয়। অভিভাবকেরা এসে মেয়েদের নিয়ে গেছেন। এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে পারব না। কেন মেয়েদের হল ছাড়তে হয়েছে, জানতে চাইলে প্রক্টর বলেন, ‘এ বিষয়ে হল কর্তৃপক্ষ জানে। আমরা কারণ জানার চেষ্টা করছি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ