Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ মে ২০১৮, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ৬ রমজান ১৪৩৯ হিজরী

প্রতারণার শিকার হজযাত্রী সঙ্কট নিরসন হচ্ছে না

প্রতারক আকবর হজ গ্রুপের অফিস খুলছে : পাসপোর্ট নিতে ঘুষ দাবি!

শামসুল ইসলাম | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

আকবর হজ গ্রুপ বাংলাদেশ এর প্রতারণার শিকার শত শত হজযাত্রী’র সংকট নিরসন হচ্ছে না। সিআইডি পুলিশের হস্তক্ষেপে সম্প্রতি বিজয়নগরস্থ আকবর হজ গ্রুপের অফিস খুলে দেয়া হয়েছে। পুলিশ পলাতক লুৎফর রহমান ফারুকীকে দেশে আসার শর্ত দিয়ে অফিস খুলে নিবন্ধিত ৯শ’ ৭০ জন হজযাত্রীকে হজে পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু এবং প্রতারণার শিকার বাকি হজযাত্রীদের সংকট নিরসনের নিদের্শ দিয়েছে। কিন্ত প্রতারণার শিকার হজযাত্রীদের পাসপোর্ট ফেরত চাইতে গেলে প্রতারক লুৎফর রহমান ফারুকী’র ভাতিজা জাহাঙ্গীর আলম ও হারুন গ্রুপ লিডারদের প্রতি পাসপোর্টের জন্য আড়াইশ’ টাকা ঘুষ দাবী করছে। এতে অধিকাংশ গ্রুপ লিডার হজযাত্রীদের পাসপোর্ট ফেরত না পাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন। আকবর হজ গ্রুপের হজযাত্রী সংগ্রহকারী ক্ষতিগ্রস্ত গ্রুপ লিডার সাতক্ষীরার মাওলানা শফিকুল ইসলাম ও গ্রুপ আব্দুর রকিব এ তথ্য জানিয়েছেন। পলাতক লুৎফর রহমান ফারুকী গতকালও দেশে ফিরেনি। সাতক্ষীরার গ্রুপ লিডার মাওলানা আবু হাসানের ২শ’৩৭ জন হজযাত্রীর ১ কোটি ২০ লাখ টাকা নিয়ে উধাও হয়েছে লুৎফর রহমান ফারুকী। তার একজন হজযাত্রী’র নিবন্ধনও করেনি লুৎফর রহমান ফারুকী। প্রতারণার শিকার গ্রুপ লিডার মাওলানা আবু হাসান স্টোক করে বর্তমানে সাতক্ষীরার ফারজানা ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
সম্প্রতি আকবর হজ গ্রুপের চেয়ারম্যান ও গাজীপুর এয়ার ট্রাভেলস (৭৮২)-এর স্বত্বাধিকারী লুৎফর রহমান ফারুকী ও তার সহযোগিরা প্রায় দুই হাজার প্রাক-নিবন্ধিত হজযাত্রী’র নিবন্ধন না করে প্রায় ৫০ কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়েছে। গ্রুপ লিডার জয়নাল আবেদীনের ১১৪ জন হজযাত্রীর ১ কোটি ৩৩ লাখ টাকা নিয়ে উধাও হয়েছে প্রতারক লুৎফর রহমান ফারুকী। এ ব্যাপারে পল্টন থানায় প্রতারক লুৎফর রহমান ফারুকীসহ ১৪ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং ৩। পলাতক লুৎফর রহমান ফারুকী সউদী আরবে অবস্থান করছে বলে জানা গেছে। ফারুকী’র গ্রেফতারকৃত স্ত্রী তামান্না রহমান তার লোকজনকে দিয়ে গ্রুপ লিডারদের নানা ভয়ভীতি দেখাচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠছে। প্রতারক চক্রের কাছ থেকে হজযাত্রীদের আত্নসাৎকৃত কোটি কোটি টাকা উদ্ধার করে তাদের এবার দ্রুত সরকারীভাবে হজে পাঠানোর জন্য জোর দাবী জানানো হয়েছিল। গত ৩ এপ্রিল এ ব্যাপারে সৃষ্ট সংকট নিরসনের দাবীতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারক লিপি পেশ করা হয়েছে। সিরাজগঞ্জের গ্রুপ লিডার হাজী জয়নাল আবেদনী, রংপুরের গ্রুপ লিডার আসলাম হোসেন খান, খুলনার গ্রুপ লিডার মাওলানা মহসীন উদ্দিন , মাওলানা আব্দুল আজিজ, ময়মনসিংহের নান্দাইলের গ্রুপ লিডার সাইফুল , আব্দুল মালেক ও মুফতী ফোরকান প্রতারণার শিকার হজযাত্রীদের সংকট নিরসন না হওয়ায় স্ব স্ব এলাকায় যেতে না পেরে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। আকবর হজ গ্রুপের প্রতারণার শিকার হজযাত্রীদের সংকট নিরসনের অগ্রগতি সর্ম্পকে জানার জন্য রাতে সিআইডি’র তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই খন্দকার আবু নাঈম ইনকিলাবকে বলেন, আকবর হজ গ্রুপের পলাতক চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান ফারুকীকে গ্রেফতারের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। তার স্ত্রী তামান্না রহমান কাশিমপুর কারাগারে রয়েছে। প্রতারণার শিকার হজযাত্রীদের পাসপোর্ট আনতে আকবর হজ গ্রুপের জাহাঙ্গীর আলম আড়াইশ’ টাকা করে ঘুষ দাবী করছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সিআইডি কোনো ঘুষ খায় না। আমরা সকল হজযাত্রীর পাসপোর্ট আকবর হজ গ্রুপের অফিসে দিয়ে দিয়েছি। এক টাকাও ঘুষ লাগবে না যার দরকার সে তার পাসপোর্ট নিয়ে যেতে পারবে। পাসপোর্ট নিতে ঘুষ চাইলে অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও এস আই খন্দকার আবু নাঈম উল্লেখ করেন। ৯শ’ ৭০ জন নিবন্ধিত হজযাত্রীকে নির্বিঘ্ন হজে প্রেরণের কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহনে সহায়তা করার লক্ষ্যে টঙ্গীর মুফতি ইয়াকুবকে আহবায়ক করে গ্রুপ লিডারদের একটি কমিটি করা হয়েছে বলেও জানা গেছে। ঐ কমিটি’র কেউ কেউ পলাতাক লুৎফর রহমান ফারুকী’র লোকজনের সাথে আতাঁত করছে বলেও অভিযোগ উঠছে।

 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ