Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ মে ২০১৮, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ৬ রমজান ১৪৩৯ হিজরী

ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে মির্জা ফখরুল

রাজধানীতে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে মুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। তবে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনের মাধ্যমে কারাগার থেকে বেগম জিয়াকে মুক্ত করা হবে ইনশাআল্লাহ।
বিএনপি মহাসচিব বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) গুরুতর অসুস্থ। তাকে সুচিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না। খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং ইউনাইটেড হাসপাতালে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করে দেওয়ার দাবি জানান ফখরুল। দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে গতকাল (রোববার) রাজধানীর বাড্ডায় বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল শেষে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে দুপুর ১২টায় বিক্ষোভ মিছিলটি রাজধানীর বাড্ডায় হোসেন মার্কেটের সামনে থেকে শুরু হয়ে মধ্য বাড্ডা গিয়ে শেষ হয়। এতে দলের বিপুল সংখ্যক নেতা কর্মী অংশ নেয়। এসময় মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি মুন্সি বজলুল বাসিত আঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান, যুবদল সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহম্মেদ, যুবদল ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এস.এম জাহাঙ্গীর, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিল্টন, স্বেচ্ছাসেবক দল ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবীন, মহিলা দল ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি পেয়ারা মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক আমেনা বেগম, ছাত্রদল ঢাকা মহানগর উত্তরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সৈকত, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন রুবেল, ছাত্রদল ঢাকা মহানগর পশ্চিমের সভাপতি কামরুজ্জামান জুয়েল প্রমুখ। এ সময় নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়ার ভয় নাই রাজপথ ছাড়ি নাই। খালেদা জিয়া বন্দি কেন খুনী হাসিনা জবাব দে, আমার নেত্রী আমার মা বন্দি থাকতে দিবো না বলে শ্লোগান দিতে থাকে।

 

Show all comments
  • Mohammed Kowaj Ali khan ২৩ এপ্রিল, ২০১৮, ৩:০২ এএম says : 0
    ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে মূক্ত করা হইবে। ইনশাআল্লাহ। বলেন।
    Total Reply(0) Reply
  • গনতন্ত্র ২৩ এপ্রিল, ২০১৮, ৫:৫৯ এএম says : 0
    জনগন বলছেন, “ মিলে – ২০১৮ “ মধু পোকার দুই/চারটা কামড় না খেলে, মধু কি এত সহজে মিলে ? কাঁটার আঘাত যদি না পেলে, গোলাপ কি সহসায় হাতে মিলে ? জেলের ভাত যদি নাই খেলে, ফুলের মালা কেমনে আসবে গলে ? আন্দোলনে লাঠি-পিটা না খেলে, গদি কি এত সহজে মিলে ? আতাত করার ফন্দিতে গিয়েছে দলবলে, ঐক্যজোট না করলে ভাসবে বুক কিনতু চোখের জলে ?
    Total Reply(0) Reply
  • গনতন্ত্র ২৩ এপ্রিল, ২০১৮, ১১:০৫ এএম says : 0
    জনগন বলছেন, “ চলো, চলো – ২০১৮ “ চলো চলো সবাই চলো আন্দোলনে মিলে মিশে হাতে রেখে হাত, ধৈর্যের / সহ্যের বাঁধ গিয়েছে ভেংগে জুলুম- অন্যায়কারীদরকে করতে হবে উৎখাত ৷ প্রতিহিংসার স্বীকার গনতন্ত্রের মাতা বীনা চিকিৎসায় একাকী নির্জন কারাগারে, দশদিন যাবৎ কাউকে দিচ্ছেনা করতে দেখা কি জানি খারাপ ষড়যন্ত্র হচ্ছে ভিতরে ? তারেক জিয়ার নাম নিতে নিতে মুখে উঠছে ফেনা মুখটা চোখে ভাসলে আরতো ঘুম আসেনা, নির্বাচন নিয়ে একের পর এক করছে বাহানা আতাত করে সংসদ গড়তে বন্ধুর কাছে রওয়ানা ৷
    Total Reply(0) Reply
  • গনতন্ত্র ২৩ এপ্রিল, ২০১৮, ৩:৪৯ পিএম says : 0
    জনগন বলছেন, “ ছালাম – ২০১৮ “ কোটি কোটি ছালাম তোমায় মাতা গনতন্ত্র উদ্দারে গিয়েছো কারাগার, মানবতা লংঘনের খেতাব পেয়েছে স্বৈরাচারে পন্চম স্হান অধিকার ৷ ব্যাংকগুলি আজ হয়েছে দেওলিয়া শেয়ার বাজারের কাম শেষ, কথায় কথায় মিথ্যেচার আর গীবত তলাবিহীন ঝুড়ি বানাইছে দেশ ৷ দিনে দিনে অত্যাচারের মাত্রা যাচ্ছে বেড়ে মাঝ রাতে ছাত্রীদেরকে দিলো হল ছাড়া করে, বাকশালকেও হার মানিয়ে ....... ......র কাতারে জনগনকে বানিয়ে জিম্মি যারে খুশি ধরে / ছাড়ে ৷
    Total Reply(0) Reply
  • গনতন্ত্র ২৩ এপ্রিল, ২০১৮, ৪:০২ পিএম says : 0
    জনগন বলছেন, “ চলো, চলো – ২০১৮ “ চলো চলো সবাই চলো আন্দোলনে হাতে রেখে হাত মিলে মিশে, ধৈর্যের / সহ্যের বাঁধ গিয়েছে ভেংগে মাতাকে মুক্ত না করা পর্যন্ত হঠিবোনা পিছে ৷ প্রতিহিংসার স্বীকার গনতন্ত্রের মাতা বীনা চিকিৎসায় একাকী নির্জন কারাগারে, দশদিন যাবৎ কাউকে দিচ্ছেনা করতে দেখা কি জানি খারাপ ষড়যন্ত্র হচ্ছে ভিতরে ? তারেক জিয়ার নাম নিতে নিতে মুখে উঠছে ফেনা মুখটা চোখে ভাসলে আরতো ঘুম আসেনা, নির্বাচন নিয়ে একের পর এক করছে বাহানা এবারও সংসদ গড়তে বন্ধুর কাছে রওয়ানা ৷
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ