Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে নিখোঁজ শিশুর লাশ উদ্ধার

গোদাগাড়ী (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৭ এপ্রিল, ২০১৮, ১:৪৪ পিএম | আপডেট : ২:৪৪ পিএম, ২৭ এপ্রিল, ২০১৮

নিখোঁজের প্রায় এক দিন পর নিজ বাড়ীর সামনে লাশ মিলল তামিম হোসেন নামের সাড়ে তিন বছরের এক শিশুর। সে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের বাইপাস গ্রামের রাসেলের ছেলে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে সে নিখোঁজ ছিল। পরে আজ শুক্রবার গভীর রাতে কে বা কারা তার লাশ বাড়ির সামনে ফেলে যায়। পরে খবর পেয়ে সকালে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এ ঘটনায় ওই গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। নিহতের বাবা পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি। তামিমের বড় বোন নুশরাত জাহান রিয়া প্লে-গ্রুপের ছাত্রী। রাসেল হোসেন জানান, কারো সঙ্গে তার কোনো বিরোধ নেই। তবে জমিজমা নিয়ে মাঝে-মধ্যে প্রতিবেশী অনেকের সঙ্গেই তার ছোটখাটো ঝামেলা হতো। এখন কে বা কারা তার অবুঝ শিশুটি কারো কোন ক্ষতি করতে শেখেনি অন্যায় করতে শিখে নি কিন্তু শিশুটি কে হত্যা করলো তা তাৎক্ষণিকভাবে বুঝে উঠতে পারছি না। আত্মীয়-স্বজন ও পাড়া-প্রতিবেশী সবখানে খোঁজ করা হয়েছে। এমনকি এলাকায় মাইকিং করা হয়, কিন্তু তাকে পাওয়া যায়নি। শুক্রবার গভীর রাতে তামিমের নিথর দেহ বাড়ির সামনে ফেলে রেখে চলে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে তামিমের দাদার কথা অনুযায়ী দাদী ও ফুফু বাইরে এসে খড়ের মধ্যে জাল দিয়ে ঢাকা গাছের ছাল দিয়ে পা বাধা ও প্লাস্টিকের বস্তা দিয়ে গলা পেঁচানো ও মাথা ফাটা অবস্থায় তার লাশ পাওয়া যায়। এ সময় পরিবারের সদস্যরা কান্নায় ভেঙে পড়লে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসেন। এক মাত্র ছেলেকে হারিয়ে ওই পরিবারে এখন তাই শোকের মাতম চলছে। রাজশাহীর গোদাগাড়ী থানার পুলিশ ওসি তদন্ত আলতাফ হোসেন বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিছুক্ষণের মধ্যেই রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। কি ভাবে এই হত্যাকাণ্ড ঘটলো তা এখনও জানা যায়নি তবে তদন্ত করলে বেরিয়ে আসবে।
এছাড়া ঘটনটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ব্যাপারে থানায় মামলা হবে বলেও জানান তিনি ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শিশুর লাশ


আরও
আরও পড়ুন