Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

পদাবলী

| প্রকাশের সময় : ৪ মে, ২০১৮, ১২:০০ এএম

কবিতা
তহীদ মনি
ভোরের দিকে ছুট চলার জন্যে যত আয়োজন

সম্ভাবনাটুকু শুধুই কড়া নাড়ে দুয়ারে আর পথের দেয়ালে
জানালার কাচ ধরে চেয়ে চেয়ে দেখি প্রার্থনার সংলাপ মিথ্যে হচ্ছে
তবু বার বার ভ্রম হয় জানি- জানি ঘোচেনা স্বপ্নের সাথে আমার দূরত্ব।
এটা হয় - হয়ে থাকে আজীবন কারো কারো জীবনে।

তাই সময়গুলো ফিকে হতে হতে ভুলে গেছে গতির সমীকরণ
মনে হয় ফিরে গেছে গলি পথে আমার ঠিকানায় পাঠানো পৌরাণিক হৃদয়।

সোনালি সূর্যমাখা ভোরের পালক খসেপড়ে বইয়ের ভাজঁ থেকে খসে পড়া
চিঠির মতো। আমি হয়তো ..আলোর গন্ধ গায়ে মাখবো বলে ছুটেছি
সারারাত অন্ধকার ভেঙ্গে ভেঙ্গে অনন্তকাল ধরে দীর্ঘশ্বাসের প্রান্তরে।

জানি, স্বর্ণগন্ধাময় স্বপ্নেরা উড়ে যায় বার বার বুনোপাখির মতো
আত্মার ছায়ায় প্রতিনিয়ত কুন্ডলী পাকায় অশনী সন্ধ্যার কালো ছায়া
তবুও চন্দনের ঘ্রাণে বসন্তকালীন কবিতা লিখতে লিখতে প্রাণের জাল বুনি।

শাহিন আখতার
অতীত আগলাই

রোজ অতীতকে ঠুকরে ঠুকরে রক্তাক্ত করি
একটি অর্বাচীন কাঠ-ঠোকরাপাখির মতো
চঞ্চুর আঘাতে
চুঁইয়ে পড়ে স্মৃতিরা,
চুমুকে চুমুকে স্বাদ নিই তার,
উল­সিত হয় ভাবনার আকাশ।
অলিগলিতে সমৃদ্ধ জীবন,
সুরক্ষিত ভবিষ্যতে অনন্য অবকাশ,
তৃর্ষ্ণাত হৃদয়ও একসময় অতীত হয়ে যায়।
সেই অতীতকে আঁকড়ে ধরি
কৃপণের মতো আগলে রাখি।
অদেখা আগামীকে ভয়
আর অতীতে আশ্রয়।


পঞ্চানন মল্লিক
তোমার ব্যক্তিগত জিপসি বাগানে

তোমার ব্যক্তিগত জিপসি বাগানে
আটপৌঢ়ে পালক পরা কোন দাঁড়কাক ছিলোনা,
শহরের ব্যস্ততম সড়কের মত পথিক বৃক্ষের ভিড়ে
কোথাও পাতারা কেবল পড়ে আছে আদি সংসারের লোভে।
আমার বেলকনিতে অবশ্য এককাপ ‘র’চা আর আমি
শালিক দম্পতিও চলে গেছে সংসার টেকেনি বলে,নি:সন্তান একদিন।
এপার্টমেন্ট থেকে স্টেট তাকালেই দৃশ্যমান তোমার বাগানটি
আমি সেখানে কোথাও কখনো নির্মল আলো দেখিনি,
সব মৌসুমই পরিচর্চাহীন।
হঠাৎ একদিন পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেখলাম মালি চাই।

সুমন আহমেদ
জীবনের শেষ গন্তব্য

জানিনা কতটা পথ পার হলে খুঁজে পাবো জীবনের শেষ গন্তব্য;
যেখানে আছে অনন্তকাল বেঁচে থাকার প্রশান্তির আয়ুকাল-
সুখের স্বার্গের অসীম দরিয়া; যেখানে থাকবেনা পৃথিবী নামের
পিছুটান; হয়ে অন্যের অশান্তির মহা কারণ।
বিদায় পৃথিবী- আর হবেনা দেখা...! চলেছি আমি অচেনা
এক পথে- যেখানে আছে আমার জীবনের শেষ গন্তব্য।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।