Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৬ রবিউস সানী ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

কস্তায় ওয়েঙ্গারের স্বপ্নভঙ্গ

| প্রকাশের সময় : ৫ মে, ২০১৮, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : আর্সেনালে ২২ বছরের দীর্ঘ ক্যারিয়ার। এসময় কেবল ইউরোপিয়ান শিরোপা বাদে সম্ভব্য সব শিরোপা জিতেছেন আর্সেন ওয়েঙ্গার। সুযোগ ছিল বিদায় লগনে সেই স্বপ্ন পুরণ করার। কিন্তু তা হতে দিলেন না ডিয়েগো কস্তা। স্প্যানিশ স্ট্রাইকারের গোলেই ইউরোপা লিগের সেমিফাইনালে ওয়েঙ্গারের আর্সেনালকে ১-০ গোলে হারিয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। দুই লেগ মিলে ২-১ ব্যবধানে জিতে উয়েফা ইউরোপা লিগের ফাইনালে উঠেছে ডিয়াগো সিমিওনের দল। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ অলিম্পিয়াকো মার্সেই।
সপ্তাহ দুই আগেই জানিয়েছেন এটাই আর্সেনালে তার শেষ মৌসুম। ইউরোপিয়ান আসরে ওয়েঙ্গারের ২৫০তম ম্যাচটিও তাই আর্সেনালের হয়ে শেষ ম্যাচ হয়ে থাকল। আর্সেনাল আর আর্সেন মিলে মিশে একাকার হয়ে যাওয়া নামে কেবল একটাই শূন্যতাÑ ইউরোপিয়ান শিরোপা। সুযোগ ছিল বিদায়বেলা সেই শূন্যতা পূরণ করে যাওয়ার। কিন্তু হলোনা। ভাগ্যও এদিন ওয়েঙ্গারের সহায় ছিল না। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে তার স্বপ্ন ধুলিস্যাৎ করে দেন কস্তা। অঁতোয়ান গ্রীজম্যানের যোগান থেকে পাওয়া বল নিয়ে প্রতিপক্ষের রক্ষনভাগের একজন খেলোয়াড়কে কাটিয়ে গোল রক্ষক ডেভিড অসপিনার মাথার উপর দিয়ে জালে পাঠিয়ে দেন স্প্যানিশ তারকা। দ্বিতীয়ার্ধে অনেকগুলো সহজ সুযোগ পেয়েও আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি তার দল।
এমিরেটস স্টেডিয়ামে প্রথমার্ধের ম্যাচটি ১-১ ড্র হয়েছিল। দুই লেগ মিলে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করে অ্যাটলেটিকো। শেষ পাঁচ মৌসুমে এ নিয়ে তৃতীয়বারের মত ইউরোপিয়ান আসরের ফাইনালে উঠলো লা লিগার দলটি। অপরদিকে এই হারের কারণে টানা দ্বিতীয় বারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লিগের চুড়ান্ত পর্ব অংশগ্রহনের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হল আর্সেনাল। একই সঙ্গে ঘরোয়া বা আন্তর্জাতিক মিলিয়ে একেবারেই ট্রফি শুন্য মৌসুম শেষ করে বিদায় নিতে হচ্ছে গানারদের হয়ে অনেক সফলতার নায়ক ওয়েঙ্গারকে। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন,‘আজ রাতে আমি খুবই ভারাক্রান্ত। গোটা খেলাটি বিশ্লেষন করলে দেখবেন এটি নিষ্ঠুর আচরণ করেছে। কিছু কিছু সময় আনন্দ দিলেও শেষ রাতে আমাকে কষ্টের সাগরে ভাসিয়েছে।’
অ্যাটলেটিকোর কোচ সিমিওনের কন্ঠে কস্তা বন্দনা,‘ আজ রাতের মত দলের গোড়াপত্তনের জন্য কস্তা আমাদের মাঝে এসেছে। সে সামনে থেকেই দলকে নেতৃত্ব দিয়েছে। আমাদের দলে আসলেই একজন আগ্রাসী স্ট্রাইকারের প্রয়োজন ছিল। আর সেই ব্যক্তিটি হচ্ছে সে (কস্তা)।’
একে তো দল ফাইনালে উঠতে পারেনি, তারপর আবার ফ্রান্সের জন্য দুঃসংবাদ হয়ে এসেছে লরেন্ত কসিয়েলনির অ্যাকিলিস ইনজুরি। ঠিক কত দিনের জন্য ৩২ বছর বয়সী ফরাসি ডিফেন্ডার মাঠের বাইরে তা অবশ্য জানা যায়নি তবে এমন চোট কাটিয়ে উঠতে সাধারণত ছয় মাস মত সময় লাগে। ওয়েঙ্গারও চোটটা ‘খুব ভালো অবস্থায় নেই’ বলে মন্তব্য করেন।
আগামী ১৬ মে লিওতে অনুষ্ঠিত হবে ইউরোপা লিগের ফাইনাল। ইউরোপা লিগের দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালের ফিরতি লেগে স্বাগতিক অস্ট্রিয়ান ক্লাব সালজবুর্গের কাছে হেরেও দুই লেগ মিলে এগিয়ে থেকে ফাইনাল নিশ্চিত করে ফ্রান্সের ক্লাব অলিম্পিয়াকো মার্সেই।
পরশু একই রাতে সালজবার্গে অনুষ্ঠিত ফিরতি লেগের সেমি-ফাইনালে স্বাগতিক দলের কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হয় মার্সেই। কিন্তু প্রথম লেগে ২-০ ব্যবধানে জয়ী হওয়ায় দুই লেগ মিলিয়ে সালজবার্গকে ৩-২ গোলে হারিয়ে ফাইনাল খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ফরাসি ক্লাবটি। এর মাধ্যমে ২০০৪ সালের পর প্রথম কোন ফরাসি ক্লাব হিসেবে ইউরোপা লিগের ফাইনালে অংশ গ্রহনের যোগ্যতা অর্জন করল মার্সেই।
নির্ধারিত সময়ে আমাদো হায়দারা ও বুনা সারের আত্মঘাতি গোলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে ছিল স্বাগতিক সালজবুর্গ। প্রথম লেগের ম্যাচে মার্সেইর ০-২ গোলে জয়ী থাকায় ম্যাচটি ড্র হিসেবেই পরিগণিত হয়। ফলে ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে।এসময় পুর্তগীজ ডিফেন্ডার রোনালদো দিমিত্রি পিয়েতসের কর্ণার কিক থেকে ভেসে আসা বলে গোল করেই নতুন ইতিহাসে পৌছে দেয় মার্সেইকে। ম্যাচের ১১৬ তম মিনিটে দিমিত্রি পাইটের যোগান থেকে গোল করে মার্সেইকে স্মরনীয় জয় এনে দেন রোনালদো (২-১)। এর খানিক পর দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন ম্যাচের প্রথম গোলদাতা হাইদারা।
অ্যাটলেটিকো-মার্সেই ফাইনাল
অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ১ : ০ আর্সেনাল
(দুই লেগ মিলে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে ফাইনালে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ)
সালজবুর্গ ২ : ১ মার্সেই
(দুই লেগ মিলে ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে ফাইনালে মার্সেই)



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।