Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

সিরিয়া সীমান্তে ইসরায়েলের দখলকৃত ভূখণ্ডে ইরানের রকেট হামলা

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ মে, ২০১৮, ১২:৩৩ পিএম

ইসরায়েলের সেনাবাহিনী দাবি করেছে, দেশটির দখলকৃত সিরীয় ভূখণ্ড গোলান হেইটসে রকেট হামলা চালিয়েছে ইরান। ইসরায়েলের দাবি অনুযায়ী, ইরানের সেনাবাহিনী রেভ্যুলিউশনারি গার্ড বৃহস্পতিবার ভোরে অন্তত ২০টি রকেট ছুড়েছে। এসব রকেটের কয়েকটি ভূপাতিত করেছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। তবে এতে কোনও হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

এই সপ্তাহের শুরুতে ইসরায়েল জানিয়েছিল, অঞ্চলটিতে ইরানের সেনাবাহিনীর সন্দেহজনক কর্মকাণ্ডের কথা। এরপর দেশটি সিরিয়া-ইসরায়েল সীমান্তে নিজেদের সামরিক উপস্থিতি জোরদার করে এবং বেসামরিক নাগরিকদের আশ্রয়ে পাঠিয়ে দেয়।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর বিবৃতিতে বলা হয়েছে, হামলার ঘটনাটিকে গুরুত্ব দিয়ে বড় ধরনের পরিস্থিতির প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র জনাথন কনরিকাস জানান, ইসরায়েল ইরানি হামলার পর পাল্টা হামলা চালিয়েছে। তবে বিস্তারিত জানাননি।

এদিকে, সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম পরে জানিয়েছে, ইসরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করেছে সিরিয়ার আকাশ প্রতিরক্ষা বাহিনী।

এর আগে মঙ্গলবার সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কর কাছে ইরানের একটি সামরিক ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান। সিরিয়া দাবি করেছে, কিসওয়াহ এলাকায় দুটি ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করা হয়েছে। ইসরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় দুই বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন।

তবে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, সিরিয়ায় ইরানের অস্ত্রঘাঁটিতে ইসরায়েলের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় অন্তত ১৪জন সরকারপন্থী যোদ্ধা নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ইরানের সেনাবাহিনীর ৮ জন এবং বেশ কয়েকজন বিদেশি নাগরিক নিহত হয়েছেন।

এই খবরের বিষয়ে ইসরায়েল কোনও মন্তব্য জানায়নি। তবে দেশটির সরকার জানিয়েছে, সিরিয়ায় ইরানের সামরিক উপস্থিতি খর্ব করা হবে।

সিরিয়ার অন্যতম মিত্র ইরান দেশটিতে কয়েকশ সেনা মোতয়েন করেছে প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের সমর্থনে। এছাড়া ইরানের অর্থায়ন ও সামরিক প্রশিক্ষণপুষ্ট লেবাননের সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ সিরিয়ায় কয়েক হাজার যোদ্ধা মোতায়েন করেছে। এছাড়া ইরাক, আফগানিস্তান ও ইয়েমেন থেকেও ইরান সমর্থিত যোদ্ধারা সিরিয়ায় আসাদ সরকারের হয়ে লড়ছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর