Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৪ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

মিয়ানমারের বিশেষ উপদেষ্টা হলেন সু চি

প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : মিয়ানমারে নতুন দায়িত্ব পেলেন অং সান সু চি। তাকে দেয়া হয়েছে স্পেশাল অ্যাডভাইজার বা বিশেষ উপদেষ্টার পদ। তাকে এমন দায়িত্ব দিয়ে একটি বিলে স্বাক্ষর করেছেন প্রেসিডেন্ট হতিন কাইওয়া। এর মধ্যদিয়ে সরকারের সব শাখায় সু চি’র প্রভাব বিস্তারের পথ সুগম হলো। এমনিতেই মিয়ানমারে গণতান্ত্রিক সরকারে তার প্রেসিডেন্ট হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সাংবিধানিক নিয়মের অধীনে তিনি তা হতে পারেননি। কারণ, তার স্বামী ও সন্তান বিদেশি নাগরিক হওয়ায় এক্ষেত্রে বাধা রয়েছে। তাই তাকে যেকোনো উপায়ে সরকারের ভিতরে একটি বড় পদ দেয়ার পরিকল্পনা করেছেন প্রেসিডেন্ট। তাকে এরইমধ্যে দেয়া হয়েছে মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব। তার ওপর তিনি বিশেষ উপদেষ্টার দায়িত্ব পেলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে সু চি গত বুধবার সাক্ষাৎ করেছেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে। তার দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি গণতান্ত্রিক উপায়ে নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতাসীন হওয়ার পর তিনি প্রথম আন্তর্জাতিক কূটনীতির ক্ষেত্র হিসেবে বেছে নিয়েছেন চীনকে।
গত বুধবার মিয়ানমারের পার্লামেন্টের দুই কক্ষেই সু চি’কে বিশেষ উপদেষ্টার দায়িত্ব দেয়ার বিলের ওপর শুনানি হয়। সেনাবাহিনী মনোনীত সদস্যরা এ বিলের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানান। কিন্তু এক পর্যায়ে এই বিলে স্বাক্ষর করেন সু চি’র দীর্ঘ দিনের রাজনৈতিক সহচর, ঘনিষ্ঠজন, প্রেসিডেন্ট হতিন। রয়টার্স, বিবিসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মিয়ানমারের বিশেষ উপদেষ্টা হলেন সু চি
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ