Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হলেন রুবা

| প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০১৮, ১২:০০ এএম

বিনোদন রিপোর্ট: ‘জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা ২০১৮’ তে হামদ ও নাত’এ দেশের আটটি বিভাগ থেকে অংশগ্রহণকারী সকল প্রতিযোগীর মধ্যে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন মেহজাবিন রুবা। রুবার এই সাফল্যে তার বাবা, মা দারুণ খুশি। আগামীতে রুবাকে সবাই দেশের বড় একজন সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে দেখতে চায়। ‘জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা ২০১৮’তে গত সোমবার বিকেলে রাজধানীর দোয়েল চত্বরে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে রুবার হাতে চ্যাম্পিয়নের পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। চ্যাম্পিয়ন হবার পর অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে মেহজাবিন রুবা বলেন, ‘ছোট্ট বেলা থেকেই আমার বাবা-মায়ের স্বপ্ন আমি যেন একজন সঙ্গীতশিল্পী হতে পারি। বিশেষ করে আমার মা এবং আমার খালামনি রূপম সবসময়ই চাইতেন আমি যেন সঙ্গীত চর্চায় সম্পৃক্ত থাকি। আগামী দিনের স্বপ্ন পূরণের একটি ধাপ অতিক্রম করেছি হামদ ও নাত’এ চ্যাম্পিয়ন হতে পেরে। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেন আমি এদেশের একজন সঙ্গীতশিল্পী হয়ে সঙ্গীতাঙ্গনে অবদান রাখতে পারি।’ রুবা বর্তমানে জাজিরা মোহর আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেনীতে পড়ছেন। জাজিরা শিল্পকলা একাডেমির মিজান এবং সেখানে ঢাকা থেকে যাওয়া শিক্ষক অপূর্ব কুমারের কাছে উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতে তালিম নিচ্ছেন নিয়মিত। এর আগে রুবা জেলা পর্যায়ে মৌসুমী প্রতিযোগিতায় নজরুল সঙ্গীতে এবং শিশু কিশোর প্রতিযোগিতায় উচ্চাঙ্গ সঙ্গীতে প্রথম স্থান অধিকার করেন। সেরাকন্ঠ ২০১৭’তে রুবা সেকেÐ রাউÐ পর্যন্ত অংশগ্রহণ করতে পেরেছিলেন। সে সময় তিনি সাবিনা ইয়াসমিনের গাওয়া ‘শত জনমের স্বপ্ন তুমি আমার জীবনে এলে’ গানটি গেয়ে বিচারকদের মুগ্ধ করেছিলেন। রুবা পিএসসি এবং জেএসসি’তে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছেন। ছাত্রী হিসেবে মেধাবী হলেও স্বপ্ন তার নিজেকে একজন সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর