Inqilab Logo

শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৮ মাঘ ১৪২৮, ১৮ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

ঝিনাইদহে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজনকে কুপিয়ে হত্যা

নির্বাচনি সহিংসতা

প্রকাশের সময় : ৯ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা : ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ছয়াইল গ্রামে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে আকামীর হোসেন (৫৮) নামে এক ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। নিহত আকামীর ছয়াইল গ্রামের বেলায়েত হোসেন মীরের ছেলে। সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে আমজাদ মীর, ইয়াকুব হোসেন মীর, জিয়ারুল ইসলাম ও রেজাউল ইসলামের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বাকীদেরকেও ঝিনাইদহ শহরের বিভিন্ন ক্লিনিক ও প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। ইউপি নির্বাচনে দলীয় প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সদর উপজেলার পদ্মাকর ইউনিয়নের ছয়াইল গ্রামে সকাল পোনে ৭টার দিকে আওয়ামী লীগের শাহাবুদ্দীন ও ইমাজউদ্দীন গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। শাহাবুদ্দীন হচ্ছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা বিকাশ গ্রুপ ও ইমাজউদ্দীন ইউপি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পাওয়া নিজামুল গনি লিটুর সমর্থক। ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাসান হাফিজুর রহমান জানান, আসন্ন ইউপি পরিষদ নির্বোচনে দলীয় প্রতিক নৌকা পায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী নিজামুল গনি লিটু। এ নিয়ে পদ্মাকর ইউনিয়নে দলীয় প্রার্থী লিটু ও বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান বিকাশ সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। তিনি আরো জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের রেশ ধরে শুক্রবার সকালে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর সমর্থকদের সাথে বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীর সর্মথকদের এ সংঘর্ষ শুরু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ৩ রাউন্ড সটগানে গুলি চালায় বলে ওসি জানান। তিনি দাবী করেন সংঘর্ষে একজন নিহত ও ৫/৬ জন আহত হয়েছেন। পুলিশ এ ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করেছে। এদিকে গ্রাম্য মেম্বর তোরাপ আলী জানিয়েছেন সকালে ছয়াইল গ্রামের তোতা গ্রুপের রেজাউল ইসলামকে মারধর করে প্রতিপক্ষ সাহাবুদ্দিন গ্রুপের লোকজন। এরপর গ্রামের পুর্বপাড়ায় সংর্ঘষ ছড়িয়ে পড়ে। এসময়  সাহাবুদ্দিন গ্রুপের সমর্থক আকামীর (৫৮) নামে এক ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই নিহত হন। তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। সংঘর্ষে আহত হন উভয় পক্ষের অন্তত ২০ জন। এদের মধ্যে জিয়ারুল ইসলামে নামে একজনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়েছে বলে হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ শাহনেওয়াজ কাসেম জানিয়েছেন। এদিকে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান বিকাশ কুমার দাবি করেছেন নির্বাচন নয়, গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার করা নিয়ে ঘটনাটি ঘটেছে। ইউপি নির্বাচনের সাথে এর কোন সর্ম্পক নেই।
আ’লীগ নেতা নিহত
নড়াইল জেলা সংবাদদাতা জানান, নড়াইলের কালিয়া উপজেলার জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন পূর্ব সহিংসতায় ১নম্বর ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি শহীদ শেখ (৪০) নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছে আরো ১৫ জন। শুক্রবার বিকেলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
নিহত শহীদ আলী জয়নগর গ্রামের কালা মিয়া শেখের ছেলে এবং জয়নগর ইউপির আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলাউদ্দিন চৌধুরী পক্ষের সমর্থক।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গতকাল শুক্রবার সকাল আটটার দিকে চরজয়নগর গ্রামের চর এলাকায় আ’লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আলাউদ্দিন চৌধুরী এবং আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান কাজী আইউবের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় ১নং ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি শহীদ শেখ, আইউব আলী জমাদ্দার (৪৮), জাকির জমাদ্দার (৪০), সোহেল জমাদ্দার (২০), আরজ আলী জমাদ্দার (৫০), নিহত শহীদ আলীর ভাই মনিরুলসহ (৩৫) উভয় পক্ষের অন্তত ১৬ জন আহত হন। আহতদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, গোপালগঞ্জসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শহীদ শেখ খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে  চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে মারা যান।
নড়াইলের পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম জানান, আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে শহীদ শেখ নামে একজন নিহত হয়েছে। তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।
মঠবাড়িয়ায় দোকান ভাঙচুর
মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা  জানান, মঠবাড়িয়ায় প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনের জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন বৃহস্পতিবার সন্ধায় তুষখালী লঞ্চঘাট সংলগ্ন আনোয়ার তালুকদারের দোকান ঘর ভাঙচুর ও মালামাল লুটপাট করে নিয়ে গেছে। আনোয়ারের স্ত্রী রহিমা বেগম বৃহস্পতিবার রাতে থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ সোহেল (৩০) নামে একজনকে আটক করেছে। সোহেল একই গ্রামের টুকু তালুকদারের ছেলে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ঝিনাইদহে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজনকে কুপিয়ে হত্যা
আরও পড়ুন