Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী

আত্মিক উৎকর্ষতার সুযোগ রয়েছে মাহে রমজানে মুনিরিয়া যুব তাবলীগ কমিটি

প্রেস বিজ্ঞপ্তি | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০১৮, ১২:০০ এএম

চট্টগ্রাম মহানগরীর বায়েজিদে কাগতিয়া দরবার শরীফ কমপ্লেক্স ময়দানে গতকাল ইফতার মাহফিলে বক্তারা বলেন, আত্মিক উৎকর্ষতার সুযোগ রয়েছে মাহে রমজানে। মাসব্যাপী সিয়াম সাধনায় রোজাদার আত্মসংযম ও আত্মশুদ্ধি অর্জনের প্রশিক্ষণ লাভ করে, সৎকর্ম ও চিন্তা-চেতনায় উৎসাহিত হয়। রমজানে অর্জিত এ প্রশিক্ষণকে বছরের বাকী এগারো মাসেও এগিয়ে নিতে এক ফলপ্রসু আধ্যাত্মিক উপায় রয়েছে কাগতিয়া দরবারে। মাহে রমজানে মুসলমানদের উচিত, জানা সকল পাপকাজ থেকে দূরে থেকে সৎকাজের অভ্যাস গড়ে তোলা এবং অতীতের সকল কৃতকর্মের জন্য একান্ত অনুতপ্ত হয়ে আল্লাহর দরবারে ক্ষমা চাওয়া। রমজান মাস পেয়েও যে তার গুনাহ মাফ করাতে পারলো না, তার মতো হতভাগ্য আর কেউ হতে পারে না। কাগতিয়া দরবারের প্রতিষ্ঠাতা স্মরণে এবং মহিয়সী রমণী রুহানী আম্মাজান (রহঃ)’র ওফাত বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এ ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগর সমন্বয় পরিষদ। বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবুল মনছুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে অতিথি ছিলেন এলবিয়ন গ্রæপের প্রধান উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোঃ নেজাম উদ্দিন, সাংগঠনিক সচিব অধ্যাপক মুহাম্মদ তসলিম উদ্দীন, এলবিয়ন গ্রæপের চেয়ারম্যান মো. রাইসুল উদ্দিন সৈকত, ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মুনতাহার উদ্দিন সাকিব। বক্তব্য রাখেন কাগতিয়া এশাতুল উলুম কামিল এম. এ. মাদরাসার মুহাদ্দিস আল্লামা মুহাম্মদ আশেকুর রহমান, মাওলানা মুহাম্মদ ফোরকান প্রমুখ।
মাহফিলে শহরের অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তি, আলেম, সাংবাদিক, শিক্ষাবিদ ও ব্যবসায়ি ছাড়াও সর্বস্তরের হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসলমান উপস্থিত ছিলেন। ইফতারের পূর্বে বিশ্ব মুসলিম উম্মাহ্র সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন

আল্লামা শাহ আহমদ শফীর সংক্ষিপ্ত জীবন : তিনি ছিলেন বাংলায় ১৩টি এবং উর্দুতে নয়টি বইয়ের রচয়িতা

img_img-1600487509

বাংলাদেশের ইসলামি শীর্ষ ব্যক্তিত্বদের অন্যতম ছিলেন আল্লামা শাহ আহমদ শফী; যিনি হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও আমির ছিলেন।  তিনি ছিলেন বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ও আল জামেয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মইনুল ইসলাম মাদ্রাসারও (হাটহাজারী মাদ্রাসা নামে পরিচিত) মহাপরিচালক।  তিনি ছিলেন বাংলায় ১৩টি এবং উদুর্তে নয়টি বইয়ের রচয়িতা । তিনি কয়েকটি ভাষায় কথা বলতে জানতেন। তার লেখা গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে; বাংলা ভাষায়- হক ও বাতিলের চিরন্তন দ্বন্দ্ব, ইসলামী অর্থ ব্যবস্থা, ইসলাম ও রাজনীতি, সত্যের দিকে করুন আহ্বান, সুন্নাত ও বিদ-আতের সঠিক পরিচয় এবং উর্দু ভাষায়- ফয়জুল জারি (বুখারির ব্যাখ্যা), আল-বায়ানুল ফাসিল বাইয়ানুল হক ওয়াল বাতিল, ইসলাম ও ছিয়াছাত এবং ইজহারে হাকিকাত প্রভৃতি। শাহ আহমদ শফীর জন্ম চট্টগ্রামের

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ