Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

পবিত্র রমজান ও মাদকবিরোধী অভিযান: পর্যটক ও ক্রেতাশূন্য কক্সবাজার

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০১৮, ১২:০০ এএম

পবিত্র রমজান এবং মাদক বিরোধী অভিযানে পর্যটন শহর কক্সবাজার এখন পর্যটক শূন্য। এতে করে জমছেনা কক্সবাজারের ঈদবাজার। ইয়াবার বদৌলতে এক সপ্তাহ আগেও যারা মাছ-গোস্ত, তরি-তরকারী ও নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রীর দোকান থেকে চড়া মূল্যে মালামাল ক্রয় করতো মাদক বিরোধী অভিযানে তারা এখন পলাতক। রমজানের কারণে পর্যটকরাও এখন কক্সবাজারে নেই। বলতে গেলে কক্সবাজারে চলছে এখন ব্যসায়ীদের দুর্দিন।
কক্সবাজার সৈকতের ব্যস্ততম এলাকা কলাতলীর সাবমেরিন কেবল পয়েন্টে গতকাল সন্ধ্যায় পর্যটক শূন্য যে দৃশ্য দেখা গেছে তা যেন বিশ্বাস করতেই কষ্ট হয়। এই কয়েক সপ্তাহ আগেও যে এখানে হাজারো পর্যটকের ভিড় ছিল। ঈদ মৌসুমে আবারো এখানে ঢল নামবে লাখো পর্যটকের। কালকের দৃশ্য ছিল সত্যিই অবিশ্বাস্য। দেখা গেছে, সৈকতের ছাতা চেয়ার গুলো খালি পড়ে আছে। অলস সময় কাটাচ্ছে সেখানে সেবা কর্মীরা।
একই দৃশ্য দেখা গেছে, শহরের ব্যস্ততম এলাকা এবং মার্কেট গুলোতে পসরা সাজিয়ে বসে আছে ব্যবসায়ীরা। ক্রেতা নেই তাই তাদের ব্যস্ততাও নেই। আলাপকালে কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, গেল বছর গুলোর মত এবার ঈদবাজার জমে উঠবে বলে তারা বিশ্বাস করতে পারছেন না। কিন্তু ঈদ মৌসুমে বেচা কেনার জন্য তারা ইতোমধ্যে বিপুল অর্থ বিনিয়োগ করে দোকানে মাল তুলেছেন। অনেকে ধার কর্জ করে এবং ব্যাংক সুবিধা নিয়েও মাল তুলেছেন। অনেকে বলেছেন, সময় তো এখনো আছে, শেষ মুহুর্তে জমতে পারে বাজার। এ আশায় তারা বসে আছেন।
কেউ কেউ বলেছেন, মাদক বিরোধী অভিযানে তাদের এমন কিছু ক্রেতা এখন দেখা যাচ্ছেনা। বড় বাজের কয়েকজন ক্রেতা বলেন, এখন ভালই হয়েছে। ইয়াবার বদৌলতে এক শ্রেণীর ক্রেতার কারণে সাধারণ মানুষ বাজারে এতদিন যেতেই পারেনি। মাছ-গোস্ত, তরি-তরকারীসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের বাজার ছিল ওসব মাদক-ইয়াবা ব্যবসায়ীদের দখলে। তাদের কারণে বাজারে গিয়ে সাধারণ ক্রেতাদের অসহায়ের মত সময় কাটাতে হত। ওদিকে হোটেল মোটেল পর্যটন ব্যবসায়ীরা ঈদ মৌসুমে পর্যটকদের ভিড় সামলা দেয়ার প্রস্তুতি নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। আসন্ন ঈদ মৌসুমে কক্সবাজারে ব্যাপক পর্যটক আগমনের আশা করছেন তারা।



 

Show all comments
  • রোমান ২৭ মে, ২০১৮, ২:৪৬ এএম says : 0
    বৃহত স্বার্থের জন্য ছোট কিছু অসুবিধা মেনে নিতে হবে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ