Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ০৯ সফর ১৪৪২ হিজরী

শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় নকলে সহায়তার দায়ে আটক অধ্যক্ষকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে

পাবনা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০১৮, ৫:৩৪ পিএম

সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অসুদাপায় অবলম্বনে সহায়তা করার দায়ে সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের অধ্যক্ষ ড. প্রফেসর রেজাউল ইসলামকে শনিবার রাত আনুমানিক ১০টার দিকে থানা থেকে ভ্রাম্যমান আদালত ছেড়ে দিয়েছেন। এ ছাড়া ঐ কলেজর একজন শিক্ষক এবং অন্য কলেজের ৩জন শিক্ষককে বিভিন্ন মেয়াদের সাজা ও জরিমানা করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। অধ্যক্ষসহ ১৭ শিক্ষক-পরীক্ষার্থীকে পুলিশের সহায়তায় শনিবার পরীক্ষা চলাকালে আটক করা হয়। পাবনা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার অনুজা মন্ডল তাদের আটক করেন।
এদের মধ্যে সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজ কেন্দ্র থেকে অধ্যক্ষ ও শিক্ষক সহ ৮ জন, পাবনা জেলা স্কুল কেন্দ্র থেকে ২ জন, শহীদ ফজলুল হক উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে ২ জন, পাবনা ইসলামিয়া কলেজ কেন্দ্র থেকে ৩ জন ও পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট কেন্দ্র থেকে ২ জনকে আটক করা হয়।
পুলিশ জানায়, আজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষা ছিল। পাবনার বিভিন্ন কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা চলাকালে নকল করতে সহায়তা করার অভিযোগে পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজের অধ্যক্ষ ড. রেজাউল ইসলাম, তিন শিক্ষক ও চার পরীক্ষার্থীকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে আটক করে পুলিশ। সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আটক হওয়ায় এটা টক অব দ্যা টাউনে পরিনত হয়। অধ্যক্ষ রেজাউল ইসলামের পক্ষে বিপক্ষে অনেক অভিযোগ শোনা যায়। কারো মতে তিনি দুর্নীতিবাজ, কারো মতে তিনি সাধু। তবে বিপক্ষ মতামত বেশী শোনা গেছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: নকল


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ