Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

স্বাস্থ্যসেবায় ‘ডাক্তার ভাই’

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০১৮, ১২:০০ এএম

মানুষের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌছে দিতে চালু হয়েছে মোবাইল অ্যাপস ভিত্তিক চিকিৎসা ‘ডাক্তার ভাই’। ডিজিটাল এ পদ্ধতিতে ব্যক্তি তার স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সকল তথ্য সংরক্ষণ করতে পারবেন। হটলাইনে কল করে পাওয়া যাবে ছয় হাজারেরও বেশি চিকিৎসকের অ্যাপয়ন্টমেন্ট (সাক্ষাত) সুবিধা। সম্প্রতি রাজধানীর গুলশানের ডেভোটেক টেকনোলজি পার্ক মিলনায়তনে আয়োজিত এক সভায় সংশ্লিষ্টরা হাতের মুঠোয় প্রাপ্ত চিকিৎসা পদ্ধতিটির পরিচিতি অনুষ্ঠানে এমন তথ্য জানান।
এ সময় বলা হয় তথ্যপ্রযুক্তির যথাযথ ব্যববহারের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবাকে সহজতর করতেই এটি চালু করা হয়েছে। এ পদ্ধতিতে স্বাস্থ্য তথ্য সংরক্ষণের মাধ্যমে সেবা গ্রহীতা ও দাতাদের মধ্যে সহজেই সঠিক উপায়ে সংযোগ স্থাপন করতে পারবে। শারীরিক অবস্থার সর্বশেষ তথ্য জেনে গুণগত চিকিৎসা সেবা নিতে পারবে। পাশাপাশি ট্যাক হেলথ রেকর্ড, চিকিৎসককে জিজ্ঞাসা, সাক্ষাতকার, ওষুধ নির্দেশনাসহ চিকিৎসা খরচাপাতি সম্পর্কেও জানা যাবে।
মোবাইলের এ অ্যাপসটি ব্যবহার করে পূর্বে পরীক্ষা-নিরীক্ষার তথ্য যেমন- উচ্চতা-ওজন, ব্লাড প্রেসার, রক্তে শর্করার পরিমাণ, কিডনী রেনাল ফাংশন, লিভার ফাংশন, থাইরয়েড ফাংশন, সেরোলজি ইলেকট্রোলাইটস, সিবিসি, ইউরিন প্রোফাইল ও টিউমার মার্কারস সহ আরো অনেক তথ্য সম্পর্কে জানতে পারবে।
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বর্তমানে স্বাস্থ্য ব্যায়ের ক্ষেত্রে ৬৮ ভাগই পরীক্ষা-নিরীক্ষা বাবদ চলে যায়। অথচ আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে ব্যক্তির নিজস্ব স্বাস্থ্য ব্যায় ৩০ শতাংশ কমানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। যদিও বর্তমানে সেটি ৬৩ থেকে বেড়ে ৬৮ তে দাড়িয়েছে। তাই এটির উদ্দেশ্য হল দেশের সব মানুষকে ডিজিটাল হেলথ কেয়ার রেকর্ড সিস্টেম ব্যবহারের মাধ্যমে সার্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে কাজ করা।
ডিজিটাল উপায়ে ‘ডাক্তার ভাই’ ইপিএইচআর এর মাধ্যমে ব্যাক্তি তার হেলথ রেকর্ড এন্ট্রি দেয়ার পর অ্যাপটি শরীরের বর্তমান পরিস্থিতি জানিয়ে দেবে সে কতটুকু সুস্থ্য বা কতটা স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। যা চিকিৎসকের সঙ্গে শেয়ার করা ছাড়াও সংশ্লিষ্ট ৫ হাজার প্যানেল চিকিৎসক, ৫৪টি জেলায় ২৯০টি হাসপাতাল, ডায়াগনোস্টিক সেন্টার ও ফার্মেসী সুবিধা পাবে। পাশাপাশি লাইফস্টাইল আউটলেটের বিলিং কাউন্টের হেলথ সার্ভিস কার্ড প্রদর্শন করে ৫ থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়ে সেবা নিতে পারবে।
হেলথ কেয়ার ইনফরমেশন সিস্টেম লিমিটেড এর উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানটিতে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এ্যাকাউন্টিং এ্যান্ড ইনফরমেশন বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর ডা. হারুনুর রশিদ, বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরামের সভাপতি তৌফিক মারুফ, গ্রামীণ ফোনের সাবেক ডেপুটি সিইও এবং ডেভোটেক টেকনোলজির চেয়ারম্যান রায়হান শামসী সহ প্রমূখ্য।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ