Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

প্রধানমন্ত্রী কেরানীগঞ্জে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার উদ্বোধন করবেন আজ

প্রকাশের সময় : ১০ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১১:৪৩ পিএম, ৯ এপ্রিল, ২০১৬

বিশেষ সংবাদদাতা : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বোববার সকাল ১০ টায় কেরানীগঞ্জে নবনির্মিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার উদ্বোধন করবেন। কারাগারটি এশিয়ার সর্বাধুনিক ও বৃহত্তম মডেল কারাগার। নতুন এ কারাগারটির নাম দেয়া হয়েছে ‘ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার, কেরানীগঞ্জ’। প্রায় ৪ হাজার ৫৯০ জন বন্দীকে রাখার জন্য এ কারাগারটি নির্মাণ করা হয়েছে। দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার তেঘরিয়া ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুরে কারাগারটি স্থানান্তরিত হচ্ছে।
কারা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, প্রায় সোয়া ২শ’ বছরের ঐতিহ্য ভেঙ্গে ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোড থেকে কেরানীগঞ্জে স্থানান্তরিত করা হচ্ছে কেন্দ্রীয় কারাগারটি। একই সাথে বদলে যাচ্ছে কারা স্থাপনার লাল রং বা লাল দালানের কথাটি। যে কারণে বর্তমানের আধুনিক এ কারাগারটির দেয়ালের রং সাদা করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে নব নির্মিত এ কারাগারটিতে শুধু পুরুষ বন্দীদের রাখা হবে। পুরুষ কারাগারটির পাশে নতুন একটি মহিলা কারাগার নির্মাণাধীন রয়েছে। মহিলা কারাগারটির নির্মাণ শেষ হলে নারী বন্দীরা থাকতে পারবেন।
বর্তমানে পুরনো ঢাকার নাজিমউদ্দীন রোডে স্থাপিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে নতুন কারাগারটির দূরত্ব প্রায় ১২ কিলোমিটার। ১৭৮৮ সালে স্থাপিত পুরান ঢাকার এ কারাগারটি বাংলাদেশের ইতিহাসের অন্যতম এক সাক্ষী। উদ্বোধনের পরই কারা কর্তৃপক্ষ ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে থাকা প্রায় ৮ হাজার বন্দীকে স্থানান্তরের কাজ শুরু করবে।
১৯৮০ সালে বর্তমানের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারটি স্থানান্তরের প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করার দীর্ঘ ৩৫ বছর পর এটি কেরানীগঞ্জে স্থানান্তরিত হচ্ছে। বিশ্বের আধুনিক সকল কারাগারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখেই কারাগারটি নির্মাণ করা হয়।
কারা সংশি¬ষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মোট ১৯৪ দশমিক ৪১ একর জমির ওপর এ কারাগারটি অবস্থিত। এ এলাকায় মোট ৩টি কারাগার নির্মাণ করা হবে। এর মধ্যে পুরুষ কারাগার ২টি আর মহিলা কারাগার ১টি। মহিলা কারাগারটিতে ২শ’ বন্দীকে রাখা যাবে। প্রতিটি পুরুষ কারাগার ৩১ একর জমিতে তৈরি করা হচ্ছে। আর মহিলা কারাগারটি তৈরি হবে ১১ একর জমির ওপর। ২০০৬ সালের একনেকে এ কারাগারটি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।নতুন এ কারাগারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নেয়া হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। কারাগারের চারপাশে ১৮ ফুট উচ্চতার বিশেষ প্যারামিটার দেয়াল তৈরি করা হয়েছে। এর উপরে রেক্টিফাইড ক্যাবল দিয়ে কমপক্ষে ৬ ফুট উঁচু করে ঘিরে রাখা হয়েছে।
জি-৭ আউটরিচ মিটিংয়ে শেখ হাসিনাকে জাপানের আমন্ত্রণ
জি-৭ দেশগুলোর আউটরিচ মিটিংয়ে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আনুষ্ঠানিকভাবে আমন্ত্রণ জানিয়েছে জাপান। আগামী মাসে জাপানে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, আউটরিচ মিটিংয়ে যোগ দেওয়ার জন্য জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে আনুষ্ঠানিকভাবে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।
প্রেস সচিব জানান, বাংলাদেশ, লাও পিডিআর (লাওস), ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়া পাপুয়া নিউগিনি, শ্রীলঙ্কা ও চাদ জি-৭ আউটরিচ মিটিংয়ে যোগ দেবে।
জাপানের জিজি প্রেস সূত্রে জানা যায়, জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনের অংশ হিসেবে অনুষ্ঠিতব্য এই আউটরিচ মিটিংয়ে বাংলাদেশসহ ৭টি উন্নয়নশীল দেশের নেতারা উন্নয়ন সম্পর্কিত বিষয়ে আলোচনা করবেন। উন্নয়নশীল এই ৭ দেশের নেতারা জি-৭ ভুক্ত দেশগুলোর রাষ্ট্রনেতা ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গেও আলোচনা করবে। ২৬ ও ২৭ মে জি-৭ দেশগুলোর এই শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।সম্মেলনে কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্র বৈশ্বিক শ্লথ অর্থনীতি, সন্ত্রাসবাদ, মানবিক সংকট ও চলমান সংঘাত নিয়ে আলোচনা করবে।এছাড়া জাতিসংঘ মহাসচিব এবং বিশ্ব ব্যাংক, এডিবি ও আইএমএফ’র প্রেসিডেন্টরাও বৈঠকে যোগ দেবেন।



 

Show all comments
  • জেসমিন ১০ এপ্রিল, ২০১৬, ১১:৪১ এএম says : 0
    অনেক দেশে জেল বন্ধ করে দেয়া হয় কয়েদির অভাবে। আর আমাদের দেশে আরো বৃদ্ধি করা হচ্ছে।
    Total Reply(0) Reply
  • osman ১০ এপ্রিল, ২০১৬, ২:১৪ পিএম says : 0
    valo
    Total Reply(0) Reply
  • Farhana ১০ এপ্রিল, ২০১৬, ২:১৪ পিএম says : 0
    abar koydira aktu santi pabe
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন