Inqilab Logo

রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

চট্টগ্রাম বন্দরে ইন্দোনেশিয়ায় তৈরী লাল সবুজের কোচ

প্রকাশের সময় : ১০ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা : ইন্দোনেশিয়া থেকে প্রথম দফায় মিটার গেজের ১৫টি কোচ চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছেছে। গতকাল শনিবার দুপুরে কোচগুলো জাহাজ থেকে খালাস করার কাজ শুরু হয়। বন্দর থেকে কোচগুলো পাহাড়তলীতে নিয়ে যাওয়া হবে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য। রেল সূত্র জানায়, লাল সবুজের স্টিলের বিলাসবহুল কোচগুলে রেলওয়ের ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটের ট্রেনসহ বিভিন্ন আন্ত:নগর ট্রেনের সাথে যুক্ত হবে। নতুন এই কোচগুলো দিয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে আরও একটি নতুন বিরতিহীন ট্রেন চালু করা হবে।
সূত্র জানায়, গত ২৩ মার্চ এমজি কোচগুলো ইন্দোনেশিয়ার বিখ্যাত ইনকা রেল ফ্যাক্টরী থেকে তানজুং বোরাক বন্দরে নেয়া হয়। সেখান থেকে জাহাজে করে কোচগুলো চট্টগ্রাম বন্দরের উদ্দেশ্যে পাঠানো হয়। শুক্রবার রাতেই কোটবাহী জাহাজটি চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছে। গতকাল শনিবার দুপুরের দিকে জাহাজ থেকে কোচগুলো বিশেষ ক্রেনের মাধ্যমে নামানো হয়। চট্টগ্রাম বন্দরে অবস্থানরত রেলওয়ের একজন কর্মকর্তা জানান, কোচগুলো প্যাকট দিয়ে মোড়ানো। তাতে সহজেই বোঝা যায় এগুলো খুবই যতœসহকারে তৈরী করা হয়েছে। ভারতের তৈরীর কোচের চেয়ে এগুলো অনেক বেশি উন্নত তাতে কোনো সন্দেহ নেই। অন্যদিকে, ভারত থেকে আনা ব্রডগেজের ২০টি কোচ দেখতে গতকাল সৈয়দপুর রেলওয়ে ওয়ার্কশপ পরিদর্শন করেছেন রেলওয়ের মহাপরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
সূত্র জানায়, গতকাল প্রথম চালানে আসা ১৫টি কোচের মধ্যে রয়েছে ১১টি শোভন চেয়ার, ২টি চেয়ার কোচ, খাবারের গাড়ি ও গার্ডব্রেক, ১টি পাওয়ার কার এবং ১টি প্রথম শ্রেণির কোচ। এভাবে মিটার গেজের জন্য মোট একশটি কোচ আসবে ইন্দোনেশিয়া থেকে। এসব কোচের মধ্যে ১৩টি এসি স্লিপার, ২৪টি এসি চেয়ার, ৩৬টি শোভন চেয়ার, ১৩টি ডাইনিং, গার্ডব্রেক ও প্রেয়ার স্পেস কার, ৮টি পাওয়ার কার এবং ৬টি প্রথম শ্রেণী ননএসি স্লিপার কোচ রয়েছে। এছাড়াও একই দেশ থেকে ৫০টি ব্রডগেজের কোচ আসবে। রেল মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে ১৫০টি কোচ কেনার চুক্তি হয় ২০১৪ সালের ২৭ নভেম্বর। ৭২ দশমিক ৩৮ মিলিয়ন ইউএস ডলারে কেনা হয়েছে কোচগুলো। কোচগুলো এডিবির অর্থায়নে কেনা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চট্টগ্রাম বন্দরে ইন্দোনেশিয়ায় তৈরী লাল সবুজের কোচ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ