Inqilab Logo

শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে তানোর পৌর ভবনে কর্মচারীদের তালা

তানোর (রাজশাহী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ জুন, ২০১৮, ৫:১৪ পিএম

রাজশাহীর তানোরে ৬ মাসের বকেয়া বেতন এবং ভবিষ্যৎ তহবিল আনুতোষিক তহবিল পরিশোধের দাবিতে পৌরসভার কর্মচারীরা তানোর পৌর ভবনে তালা দিয়ে পৌর ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে। গতকাল রবিবার সকাল ৯টা হতে দুপুর ২টা পর্যন্ত পৌর সভার সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়ে এ কর্মসূচি পালন করেন তারা। পরে দুপুর ১২টারদিকে পৌর সভার সকল কর্মচারী এক সংক্ষিপ্ত সভায় মিলিত হয়। এ সময় পৌর ভবনে মেয়র উপস্থিত ছিলেন না।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন তানোর পৌর কর্মকর্তা কর্মচারী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক সামসুজ্জামান, সদস্য সচিব বিমল চন্দ্র প্রামাণিক, অহেদুজ্জামান বাবু, ওমর আলী, তারিক আজিজসহ পৌর সভার সকল কর্মচারীবৃন্দ।
এসময় সংক্ষিপ্ত সভায় তানোর পৌর কল্যাণ কর্মকর্তা কর্মচারী সমিতির সাধারণ সম্পাদক বলেন তানোর পৌর সভার বাৎসরিক রাজস্ব আয় এক কোটি ৩৫ লাখ টাকা। আর কর্মকর্তা কর্মচারীদের বেতন বাবদ লাগে বছরে ৮৪ লাখ টাকা। কিন্তু সেই টাকা মেয়র বিভিন্ন ভাবে নিজের খেয়াল খুশি মতো খরচ করে আমাদেরকে বেতন ভাতা হতে বঞ্চিত করেন তিনি। ৬ মাস ধরে বেতন না পেয়ে প্রতিটি পরিবারই ভীষণ অর্থকষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। তাই বকেয়া পরিশোধে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।
এ নিয়ে তানোর পৌর সভার মেয়র মিজানুর রহমান মিজান জানান, আমি অফিসের কাজে ঢাকা অবস্থান করছি। তবে লোকমুখে শুনেছি। কর্মচারীরা বেতনে দাবিতে কর্মসূচি পালন করছেন। ঢাকা থেকে ফিরে ঈদের আগেই তাদের বেতন পরিশোধ করা হবে বলে জানান তিনি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বকেয়া বেতন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ