Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯, ০৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

প্লাস্টিক পরিবেশ দূষণের পাশাপাশি জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করে -পরিবেশমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ জুন, ২০১৮, ৫:১৯ পিএম

পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেছেন, প্লাস্টিক পরিবেশ দূষণের পাশাপাশি জলাবদ্ধতা সৃষ্টি করে। তবে আইন প্রয়োগ করে প্লাস্টিক উৎপাদন বন্ধ করা সম্ভব না। কারণ আমাদের জনবল নেই। একসঙ্গে কয়েক জায়গায় অভিযান পরিচালনা করতে যে ধরনের লোকবল প্রয়োজন তা আমাদের নেই। তবে আমি মন্ত্রী তাই দায়িত্ব আমাকেই নিতে হবে। আমাদের একটি কমিটমেন্টের মধ্য দিয়ে এগুতে হবে। টেকসই প্রচারণা চালাতে পারলে আমরা ভালো কাজ করতে পারব।
বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আইইউসিএন আয়াজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এসব কথা বলেন।
পরিবেশ রক্ষায় অধিক হারে জনসচেতনতার প্রয়োজন রয়েছে বলে মন্তব্য করে পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ আরো বলেন, বর্তমান সরকার পরিবেশ ও উন্নয়ন ভাবনা একসাথে করছে। তিনি বলেন, আমাদের উন্নয়ন কার্যক্রম যেমন চলমান রয়েছে তেমনি পরিবেশ সম্মতভাবে উন্নয়ন করাও আমাদের লক্ষ্য।
মন্ত্রী বলেন, প্লাস্টিক সামগ্রীর ব্যবহার শুধু যে পরিবেশের ক্ষতি করছে তা নয়। এটি মানব দেহের জন্যও ব্যাপক ক্ষতিকারক হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। পেটের পীড়া, হরমোনের সমস্যা, লিভারের সমস্যা, এমন কী অনেক ক্ষেত্রে ক্যান্সারের মতো ভয়ঙ্কর রোগের জন্য দায়ী এই প্লাস্টিক সামগ্রী। আইসক্রিম কাপ, সিরাপের বোতল, পানির বোতল, খাবারের কন্টেনার এসব প্লাস্টিকের তৈরি নিত্য ব্যবহার্য জিনিসগুলো কতটুকু স্বাস্থ্যসম্মত তা আমরা বলতে পারি না।
অনুষ্ঠানের এক ফাঁকে সংহতি জনাতে এসে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেন, পরিবেশ রক্ষা নিয়ে রাজনীতি হতে পারে না। তিনি বলেন, বিএনপি কখনো ক্ষমতায় গেলে পরিবেশ রক্ষায় অগের সরকারের আমলে নেয়া পদক্ষেপগুলির ধারাবাহকিতা রক্ষা করে যাবে। কারণ ভবিষ্যত প্রজন্মেও রক্ষায় দলমত নির্বিশেষে সকলকে পরিবেশ রক্ষায় কাজ করতে হবে।
বেলার প্রধান নির্বাহী সৈয়দা রেজোয়ানা হাসান বলেন, নদী খাল বিল দখল দুষণ রক্ষায় অনেক আইন আছে। তবে তারপরে দুষণ দখল থেমে নেই। তিনি বলেন, নদী দখল দুষণ রক্ষায় প্রয়োজন রাজনৈতিক সদিচ্ছা।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. আবদুর রব মোল্লা বলেন, ঢকার চারপাশে নদী দখল দুষণে বিপর্যস্থ। এগুলি রক্ষায় পদক্ষেপ না নেয়া হলে ঢাকা বাসের অযোগ্য হয়ে যাবে।
এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আইইউসিএন-এর চেয়ারপার্সন হাসনা জসীম উদ্দীন মওদুদ, কান্ট্রি রিপ্রেজেনটেটিভ রাকিবুল আমিন, অন্বেষার প্রধান নির্বাহী রাশেদ আল মাহমুদ তীতুমীর প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ