Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

ধা রা বা হি ক: মসনবী শরীফ

| প্রকাশের সময় : ৮ জুন, ২০১৮, ১২:০০ এএম

মাওলানা জালাল উদ্দীন রূমী রহ.
কাব্যানুবাদ : রূহুল আমীন খান

৭৪৬. আসল কুদে ক্রোধে অধীর অন্য সকল আমীরগণ
কণ্ঠে সবার একই দাবী, একই কথার উচ্চারণ।

৭৪৭. সসন্যে সব পড়ল ঝেঁপে উদ্ধত শির বক্ষটান
হস্তে সবার নাঙ্গা অসি এবং পীরের সংবিধান।

৭৪৮. মত্ত মাতাল হস্তিসম মাতল সবাই চন্ড ধূম
হাজার হাজার খ্রিস্ট সেনার গড়াল শির লড়াই ভ‚ম।

৭৪৯. বয়ে গেল রক্তনদী রণভ‚মির ডান ও বার
পাহাড় উঁচু ধূলায় হলো দিগদিগন্ত অন্ধকার।

৭৫০. বিছিয়ে ছিল ভন্ডটা যে গভীর ষড়যন্ত্র জাল
অবশেষে তাহাই হলো ঈসায়ীদের জন্য কাল।

৭৫১. ভেঙে গেল আখরোটেরা- মজ্জা ছিল মধ্যে যার
অধিকারী হলেন তাঁরা শুদ্ধশুচি পাক আত্মার।

৭৫২. তেমনি মরণ- আনার আপেল ভাঙলে বুঝা যায় যেমন
কী রয়েছে ভেতরদেশে- মন্দ ভাল কার কেমন।

৭৫৩. একটি ভাঙায় শব্দ কেবল, ভেতরে সারবস্তু নাই
অন্যটিতে ওজন এবং ভেতরটাতে রস বোঝাই।

৭৫৪. প্রকাশ করে দেয় গো মরণ কোনটা সু, তাৎপর্যময়
কোনটা পচা মন্দ অসার, তাও সে বলে সুনিশ্চয়।

৭৫৫. যাও হে বাছা সন্নিধানে তত্ত জ্ঞানী মহৎদের
তত্ত জ্ঞানই ওড়ার পালক, জ্যোতির সোপান দূর নভের।

৭৫৬. যাও সমীপে তত্তজ্ঞানীর, সাহচর্যে রও তাদের
ধন্য হবে অশেষ দানে, শক্তি পাবে যৌবনের।

৭৫৭. তত্তজ্ঞান শূন্য পরান এই দেহটার মধ্যে যার
খাপের ভেতর আবদ্ধ তার যেন কাঠের তলোয়ার।

৭৫৮. কাষ্ঠ-অসির কদর থাকে বদ্ধ কোষে যতক্ষণ
বের করিলে খাপ থেকে তা হয় জ্বালানী কাঠ যেমন।

৭৫৯. লড়াই-মাঠে নামার আগে যাচাই করো তলোয়ার
কাঠের না কি? কাঠের হলে নেমো না কো খবরদার।

৭৬০. ওই অসিটা দাও ফেলে দাও অন্য অসি লও আবার
সামনে আগাও ফুল্লমনে হয় তা যদি তীক্ষè ধার।

৭৬১. তীক্ষ্ম অসি পাবে কেবল আউলিয়াদের কারখানায়
পাও যদি তা পরশপাথর স্বরূপ করো গণ্য তায়।

৭৬২. সর্বকালের মনীষীদের একই বাণী একই বাত
জ্ঞানী গুণীগণ জগতে খাস খোদায়ী রহমাত।

৭৬৩. দেখবে আনার কিনার কালে দীর্ণ কি না মুখটি তার
সেই ফাটলই খবর দেবে স্বরূপ কী তার মধ্যকার।

৭৬৪. হোক মোবারক হাস্য উজাল সেই নূরানী চাঁদ-বদন
যাহার হৃদয়-মন থেকে হয় রত্ন-জ্যোতি বিচ্ছুরণ।

৭৬৫. সূরত মুরত রূপ চেহারা হোক যতই লাস্যময়
মন্দ তবু, ভেতরটা যার আঁধার এবং মন্দ হয়।

৭৬৬. চোখ-জুড়ানো আনার বানায় বাগানকেও মন-মোহন
‘মর্দে খোদা*র’ সোহ্বতে হয় হীন অভাজন শ্রেষ্ঠজন।

৭৬৭. যদ্দপি হও কঠিন শিলা, হও যদি সঙ্গেমরমর
যাও গো ওলীর সন্নিধানে হবে রতন ও জওহর।

৭৬৮. পবিত্রদের ভালোবাসা হৃদয় মাঝে দাও স্থান
দিওনা দিল তাদের কভু নয় কো যারা পুন্যবান।

৭৬৯. আশার আলো অনেক আছে না হও অধীর নৈরাশে
এগিয়োনা আঁধার পথে অনেক রবি ওই হাসে।

৭৭০. দিল্ তোমাকে পৌঁছে দেবে দরবারে পাক আউলিয়ার
দেহ তোমায় পৌঁছাবে ওই কারাগারে খাক-কাদার।

৭৭১. তাত্থেকে লও দিলের খোরাক আল্লা’তে যার মগ্ন মন
খোশ্নসীবী তার থেকে লও যার রয়েছে সেই রতন।

৭৭২. হৃদয় ধনে ধনী যেজন তাত্থেকে লও সে মূলধন
লাভ করিবে তাত্থেকেই সুমর্যাদার উচ্চাসন।

৭৭৩. নেক মানুষের সঙ্গ তোমায় বানিয়ে দিবে নেক-সুজন
বদ মানুষের সঙ্গ তোমায় বানিয়ে দিবে কু-দুর্জন।

ইঞ্জিলে বর্ণিত রাসূলুল্লাহ (সা.)-এর প্রতি সম্মান প্রদর্শনের সুফল

৭৭৪. ইন্যিলেতে লেখাছিল নাম মুহাম্মদ মোস্তফার
নবীক‚লের শিরোমনি সাগর যিনি স্বচ্ছতার।

৭৭৫. লেখা ছিল আকৃতি ও হুস্ন জামাল তাঁর দেহের
ছিল বয়ান নামায রোযা আহার বিহার ও জঙ্গের।

৭৭৬. তাযিম তাহার করত সদা নাসারাদের একটি দল
ভক্তি রসে মজে তারা পাঠ করিত ওই সকল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর