Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

ইরানের এসিড টেস্ট মরক্কো

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ জুন, ২০১৮, ১২:০০ এএম

রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরুর দ্বিতীয় দিনই মাঠে নামছে ইরান। আজ ‘বি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ আফ্রিকান ফুটবল পরাশক্তি মরক্কো। বলা যায় বিশ্বকাপ মিশনের শুরুতে এসিড টেস্টের মুখোমুখি হচ্ছে ইরানীরা। তবে তার আগেই ইরানের জন্য দু:সংবাদ হচ্ছে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আরোপের কারণে দলটির পৃষ্ঠপোষকতা বাতিল করেছে ক্রীড়া পন্য সামগ্রী প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান নাইকি। যে কারণে ইরানের ফুটবলাররা বুট থেকে শুরু করে প্রয়োজনীয় কোন ক্রীড়া সামগ্রীই পাচ্ছেনা নাইকির কাছ থেকে। এ প্রসঙ্গে ইরান কোচ কার্লোস কুইরোজের কথা, ‘নাইকির কাছ থেকে বুট বা অন্য কোন ক্রীড়া সামগ্রী না পেলেও আমাদের কোন সমস্যা নেই। নিজেদের যা আছে তা নিয়েই প্রস্তুত আমার ছেলেরা। তারা মরক্কোর বিপক্ষে ম্যাচে একতাকেই সুসংহত রাখে নিজেদের সেরাটাই মাঠে ঢেলে দেবে বলে আমার বিশ্বাস।’ তিনি স্কাই স্পোর্টসকে বলেন, ‘এটিই আমাদের বাড়তি অনুপ্রেরনার উৎস হয়ে দাঁড়িয়েছে। ব্যক্তিগত ভাবে আমি মনে করি, নাইকির সর্বশেষ বিবৃতিটি অপ্রয়োজনীয়। কারণ এই নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে সবাই আগে থেকে অবগত।’ তবে নাইকির বিলম্বিত সিদ্ধান্ত কিছুটা হলেও বিপাকে ফেলেছে ইরানকে। তাদের প্রস্তুতিতে এর প্রভাব পড়েছে। কোন কোন খেলোয়াড় এখন নিজেদের ক্রীড়া সামগ্রী ক্রয়ের জন্য ছুঠছেন রাশিয়ার স্থানীয় শপিং মলের দিকে। এজন্য তারা ক্লাব সতীর্থ রাশিয়ানদের সহায়তাও চেয়েছেন। যাই হোক, বিষয়টি পরিস্কার যে একটি বাজে প্রস্তুতির মধ্য দিয়েই রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরু করতে যাচ্ছে ইরান। কারণ নাইকির ঘটনার আগে বাতিল হয়েছে তাদের গ্রীস ও কসভোর বিপক্ষে পুর্ব নির্ধারিত দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ। তারপরও আজকের ম্যাচটিকেই এবারের বিশ্বকাপে নিজেদের এগিয়ে যাবার পথে সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ন বলে মনে করছেন ইরানের কোচ। কারণ এ ম্যাচে হেরে গেলে আরো ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে ইরানকে। সেক্ষেত্রে শেষ ১৬’তে জায়গা পাওয়ার জন্য তাদের হারাতে হবে হয় স্পেন, নয়তো পর্তুগালের মত বড় দলকে। কুইরোজ আরো বলেন, ‘প্রথম ম্যাচে মরক্কোকে সম্ভাবনার উপহার হিসেবেই পেয়েছি আমরা। জানি তাদের দলটি খুবই ভাল। তবে মনে হয় আমাদের সম্পর্কে জানার ঘাটতি আছে তাদের।’
গেল বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে অসাধারণ পারফরমেন্স করেছিলো। যদিও লিওনেল মেসির বিলম্বিত গোলে হেরে গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়ে তারা। তবে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ইরানের ওই পারফমেন্স কুইরোজের চাকুরিকে পাকাপোক্ত করে দিয়েছিল। দলে স্থায়ী হয়ে রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক এই কোচ ইরানকে এগিয়ে দিয়েছেন র‌্যাংকিংয়ের সাত ধাপ উপরে। ২০১৪ বিশ্বকাপের পর প্রতিদ্ব›িদ্বতামুলক কোন ম্যাচেই হারেনি তারা। তখন থেকে রাশিয়া বিশ্বকাপে মাঠে নামার আগ পর্যন্ত ২২টি ম্যাচ খেলেছে ইরান। শুধু তাই নয়, বাছাইপর্বে একটি গোলও হজম না করে সবার আগে রাশিয়া বিশ্বকাপ নিশ্চিত করেছে তারাই। এখন স্পেন বা পর্তুগালের বিপক্ষে বড় কোন অঘটন ঘটাতে না চাইলে মরক্কোর বিপক্ষে জিততে হবে ইরানকে।
অন্যদিকে নিজ দলের মধ্যে একটি সুসজ্জিত রক্ষণ কৌশল প্রতিষ্ঠা করেছেন মরক্কোর ফরাসি কোচ হার্ভে রেনার্ড। তার ধারণা মরক্কো কঠিন গ্রুপে পড়েছে। যেখান থেকে উতরাতে নিজেদের সেরাটা ঢেলে দিতে হবে। রেনার্ড বলেন, ‘আমরা একটি কঠিন গ্রুপে পড়েছি। যে কারণে সম্ভাব্য সুযোগের সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে হবে আমাদেরকে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর