Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

চমকে দিতে চায় জাপানও

ম্যাচ প্রিভিউ : জাপান-কলম্বিয়া

| প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০১৮, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : এশিয়ান পরাশক্তি জাপান বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই চমক দেখাতে চায়। এ ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া। যারা বর্তমানে রয়েছে বেশ দু:শ্চিন্তায়। কারণ তাদের তারকা মিডফিল্ডার হামেস রদ্রিগুয়েজ ইনজুরি রয়েছেন। তাই কলম্বিয়ার দু:শ্চিন্তার শেষ নেই। আর এ সুযোগটাই কাজে লাগাতে চায় জাপান। আজ ‘এইচ’ গ্রæপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে কলম্বিয়া ও জাপান। রাশিয়ার সারানস্ক স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হবে ম্যাচটি।
রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরুর প্রায় আড়াই মাস আগে কোচ ভাহিদ হালিহোজিকেরকে বরখাস্ত করে জাপান। তা সত্বেও বিশ্বকাপে তারা জ্বলে ওঠার অপেক্ষায় রয়েছে। সমলোচকদের সন্দেহকে উড়িয়ে দিয়ে জাপান প্রথম ম্যাচে কলম্বিয়ার কাছ থেকে পূর্ণ তিন পয়েন্ট আদায় করে নিতে বদ্ধ পরিকর।
চলতি বছরের ফেব্রæয়ারিতে বাম পায়ের কাফ ইনজুরিতে আক্রান্ত হন কলম্বিয়ার তারকা মিডফিল্ডার হামেস রদ্রিগুয়েজ। যিনি ২০১৪ বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতা ছিলেন। তার ইনজুরি এখনো পুরোপুরি কাটেনি। আর তাই তিনি শতভাগ সুস্থ হয়ে না ওঠায় আজ জাপানের বিপক্ষে রদ্রিগুয়েজের খেলা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। সর্বশেষ ব্রাজিল বিশ্বকাপে বায়ার্ন মিউনিখের এই অ্যাটাকিং মিডফিল্ডারের হাত ধরেই কলম্বিয়া আসরের শেষ আট নিশ্চিত করেছিল। ২৬ বছর বয়সী রদ্রিগুয়েজ রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ৬টি গোল করেন এবং চারটি করান। এদিকে দলের আরেক মিডফিল্ডার উইলমার বারিয়সও ইনজুরির সাথে লড়াই করছেন। ২০০২ সালের বিশ্বকাপে কাজ করা জাপানের সাবেক কোচ ফিলিপ ট্রোসিয়ার মনে করেন বিশ্বসেরা কোচ হোসে মরিনহোর অধীনে খেললেও জাপান রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রæপ পর্ব থেকে বিদায় এড়াতে পারবে না। বার্তা সংস্থা এএফপি’কে দেয়া এক সাক্ষাতকারে ট্রোসিয়ার বলেন, ‘এপ্রিলে কোচ ভাহিদ হালিহোজিকের বরখাস্তের পরে আমি মনে করি এবার জাপানের নক আউট পর্বে যাবার কোন সম্ভাবনাই নেই। এমনকি তারা যদি মরিনহো কিংবা আর্সেন ওয়েঙ্গারের অধীনেও খেলতে নামে তাহলেও তাদের সামনে এগিয়ে যাওয়া কঠিন হবে।’
ভাহিদ হালিহোজিকের বরখাস্তের পরে জাপানিজ এফএ তার পদে দলটির টেকনিক্যাল পরিচালক আকিরা নিশিনোকে রাশিয়া বিশ্বকাপ দলের দায়িত্ব দেয়। ৬৩ বছর বয়সী নিশিনোর জে-লিগের সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতা রয়েছে। কিন্তু জাতীয় পর্যায়ে তিনি অনুর্ধ্ব-২০ ও অনুর্ধ্ব-২৩ দলকে নিয়ে কাজ করলেও মুল জাতীয় দল নিয়ে কাজ করেননি। রাশিয়া বিশ্বকাপে ‘এইচ’ গ্রæপের অপর দু’টি দল হলো পোল্যান্ড ও সেনেগাল। যে কারণে নক আউট পর্বে যেতে হলে জাপানের শুরুটা অবশ্যই ভাল হতে হবে।
ট্রোসিয়ার আরো বলেন, ‘জাপানের প্রথম ম্যাচের প্রতিপক্ষ পোল্যান্ড হলে তা বেশ কঠিন হতো। কিন্তু প্রথম ম্যাচে কলম্বিয়া ও দ্বিতীয় ম্যাচে সেনেগাল। তাই আমার কাছে মনে হয় কলম্বিয়া না হলেও অন্তত সেনেগালের বিপক্ষে আমাদের ভাল খেলা উচিত।’
২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপের গ্রæপ পর্বে কলম্বিয়ার কাছে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছিল জাপান। ম্যাচটিতে কলম্বিয়ান ফরোয়ার্ড জ্যাকসন মার্টিনেজ একাই দু’গাল করেছিলেন। এই ম্যাচ জিতে শেষ ষোল নিশ্চিত করেছিল কলম্বিয়া। অন্যদিকে একটি ম্যাচেও জয় না পাওয়া জাপানের বিদায় নিশ্চিত হয়েছিল কলম্বিয়া হারে। সেই তিক্ত অভিজ্ঞতাকে পেছনে ফেলে এবার অন্তত ভাল কিছু করার প্রত্যয়ে মাঠে নামবে জাপান। জাপানীজ অধিনায়ক মাকোতো হাসেবে বলেন, ওই ম্যাচের স্মৃতি আমরা মনে করতে চাইনা। এরপর দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হয়েছে। এবার আমাদের গ্রæপে তিনটি প্রতিপক্ষই কঠিন। কিন্তু তারা কেউই বর্তমান চ্যাম্পিয়ন নয়। সে কারণেই আমাদেরও সুযোগ রয়েছে। আমরা প্রথম ম্যাচেই চমক দেখাতে চাই।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন