Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫, ৯ যিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী

খালেদা জিয়ার সাথে নেতাদের দেখা হলো না

| প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০১৮, ১২:০০ এএম


স্টাফ রিপোর্টার : ঈদের দিন কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সাথে দেখা করতে পারেননি দলের নেতারা। গত শনিবার দুপুর ১২টায় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ নেতারা ঈদের নামাজ আদায় করার পর খালেদা জিয়ার সাথে সাক্ষাত করতে পুরনো ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারের সামনে যেতে পারেননি। তারা দেখা করার অনুমতি চাওয়ার পরই কারাগারের মূল ফটকের সামনে পৌঁছার আগেই পুলিশের বাঁধার মুখে পড়েন।
দলের নেতারা জানান, তারা কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপার্সনের সাথে ঈদের দিন দেখা করার কথা আগেই কারা কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছিল। আর সে অনুযায়ী ঈদের দিন দুপুর ১২টার দিকে মহাসচিব ফখরুলসহ স্থায়ী কমিটির সদস্যরা কারাগারের সামনে উপস্থিত হন। তবে কারাগারের মূল ফটক থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে পুলিশের ব্যারিকেডে তারা আটকা পড়েন।
নেতাদের সাথে প্রায় দুইশ কর্মীও উপস্থিত ছিলেন। পুলিশের বাধার মুখে তারা ব্যারিকেডের সামনে অবস্থান নিয়ে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে শ্লোাগান দিয়ে কিছুক্ষণ পর ফিরে যান। এর আগে বিএনপি মহাসচিব সাক্ষাতের আবেদনের অনুলিপি সাংবাদিকদের দেখিয়ে বলেন, ‘তিন দিন আগে আমরা সাক্ষাতের জন্য আবেদন করেছিলাম। নিয়ম আছে, ঈদের দিন বন্দির সাথে দেখা করার। কিন্তু পুলিশ ব্যারিকেড বসিয়ে আমাদের আটকে রাখে। কারাগারের গেইটের কাছেও যেতে দেয়নি। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক।’
দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘পুলিশ আমাদের যেতে দিল না। এটা তাদের কাজ নয়। পুলিশের দায়িত্ব ছিল আমাদেরকে জেল কর্তৃপক্ষের কাছে নিয়ে যাওয়া।’ স্থায়ী কমিটির অপর সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আমরা অনেকবার জেল খেটেছি, অনেক বছর জেলে থেকেছি। দেখেছি ঈদের দিন আত্মীয়-স্বজন, কাছের মানুষদের দেখা-সাক্ষাৎ করার সুযোগ থাকে। এবার যে অমানবিক আচরণ করা হয়েছে, এরকম অতীতে আর কখনও দেখিনি।’
পুলিশের ব্যারিকেডের সামনে বিএনপি নেতাদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, বরকতউল্লাহ বুলু, আবদুল আউয়াল মিন্টু, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, আইনজীবী আহমেদ আজম খান, কেন্দ্রীয় নেতা জয়নুল আবদিন ফারুক, শিরীন সুলতানা, আফরোজা আব্বাস, সুলতানা আহমেদ, শায়রুল কবির খান প্রমুখ।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ