Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১২ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

শেরপুরে র‌্যাবের সাথে বন্ধুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত

শেরপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ জুন, ২০১৮, ৪:৪৭ পিএম

শেরপুর সদর উপজেলার চুনিয়ারচর গ্রামে র‌্যাবের সাথে বন্ধুক যুদ্ধে আল আমীন ওরফে ফকির নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। নিহত আল আমীন সদর উপজেলার চুনিয়ারচর গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে। আজ দুপুর দুইটার দিকে শেরপুর সদর থানার পুলিশ মরদেহটি ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে শেরপুর সদর থানায় নিয়ে এসেছে।

নিহতের পরিবার জানায়, গেল রাতে নিহতের মামাতো ভাই সোহাগ ওরফে সোহাগ ডাকাত বাড়ী থেকে সন্ধ্যা আনুমানিক ৭টার দিকে ডেকে নিয়ে মোটর সাইকেল যোগে একসাথে বের হয়ে যায়। পরে রাত সাড়ে ৯ টার দিকে পরিবারের লোকজন শুনতে পারে সোহাগ ডাকাতকে র‌্যাব গুলি করেছে এবং আল আমীন পালিয়ে গেছে। কিন্তু আজ সকাল ১০ টার দিকে তার বাড়ীর পাশেই একটি হলুদ ক্ষেতে আল আমীনের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে তার স্বজনরা। স্বজনদের দাবী আল আমীনকে র‌্যব গুলি করে মেরেছে।

তবে, র‌্যাব-১৪ জামালপুর কোম্পানী কমান্ডার রাজীব কুমার দে মোবাইল ফোনে জানান, মঙ্গলবার রাতে আমাদের একটি অভিযানিক দল মাদকবিরোধী অভিযানে শেরপুর সদরের চুনিয়ার চর এলাকায় গিয়েছিলো। সেসময় মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। অভিযানিক দলটি ২ রাউন্ড গুলি ছুঁড়েছিলো। তবে সেসময় কোন হতাহতের সংবাদ জানা যায়নি। বুধবার সকালে গুলিবিদ্ধ এক মাদকব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধারের সংবাদ জানা গেছে।
উল্লেখ্য, নিহত আলআমীনের বাবা মজিবর রহমানের বাড়ী সদর উপজেলার বলায়েরচর গ্রামে। বাবা দুই বিয়ে করায় আল আমীন তার মা ও দুই বোনকে নিয়ে নানার বাড়ী চুনিয়ারচর গ্রামে বসবাস করতো। এ ব্যাপারে শেরপুর সদর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বন্ধুকযুদ্ধ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ