Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

নজরুল : রুবাইয়াৎ-ই-এর শ্রেষ্ঠ অনুবাদক

| প্রকাশের সময় : ২২ জুন, ২০১৮, ২:০২ এএম

মী ম মি জা ন
ষ পূর্বে প্রকাশিতের পর
চুমুকখানি লাল মদিরা আর গজলের একটি কিতাব,
জান বাঁচাতে দরকার মতো একটু খানি রুটি কাবাব,
তোমায় আমায় দুজনেতে বসে প্রিয়ে নির্জনেতে
এ সুখ ছেড়ে রাজ্য পেলেও কিছুতেই বলব না লাভ।
( মুহম্মদ শহিদুল্লাহ)
এক সোরাহি সুরা দিও, একটু রুটির ছিলকে আর,
প্রিয় সাকি, তাহার সাথে এক খানা বই কবিতার,
জীর্ণ আমার জীবন জুড়ে রইবে প্রিয়া আমার সাথে,
এই যদি পাই চাইব না তাখত আমি শাহানশার।
(কাজী নজরুল ইসলাম)
উপর্যুক্ত তিনটি অনুবাদ পড়লে নজরুলের অনুবাদটিকে এককথায় অসাধারণ বলতে হয়। যেখানে ভাষাবিদ ড. মুহাম্মদ শহীদুল­াহর অনুবাদটি নজরুলের অনুবাদের কাছে মৌলিকতায় খাটো।
নরেন্দ্র দেব এর একটি অনুবাদ:
ঐ আকাশের গ্রহ তারার ভীড়ের মধ্যে যেদিন যাবো
এমন স্নিগ্ধ শস্য শ্যমল জগৎ কি আর সেথায় পাবো!
হায় ধরণী- হৃদয় রানী তোমায় ফেলে যেতেই হবে
মনটা আমার কাঁদছে গো আজ সেই বিরহের অনুভবে।
নরেন্দ্র দেবের অনুবাদে বিচিত্র ছন্দের প্রভাবে শ্রুতিজনিত সমস্যা কিছুটা উপলব্ধি হয় আর রুবাইয়াৎ এর অস্বাভাবিক আকার বৃদ্ধি অনেককেই তুষ্ট করতে পারে নি ৷
খৈয়ামের ফারসি রুবাইয়াতের অনুবাদগুলো বাংলায় অবিকল বিষয়বস্তুতে আসেনি ৷ সবচেয়ে উলে­খযোগ্য বক্তব্য হল ফারসি থেকে অনুবাদ আর ইংরেজি থেকে অনুবাদ; এই দুই শ্রেণি সম্পর্ণ আলাদা ৷
যেমন অনিন্দ এর ঞযব য়ঁধৎঃধরহং ড়ভ ঙসধৎ কযধুুধস -
নু ঊ.ঐ.ডযরহবভরবষফ থেকে করা ।
ওমর খৈয়াম এর রুবাইয়াৎ:
ভালোবাসাকেই চাইছো যখন খোঁজ সবার অন্তরে,
খুঁজে পেলে তাকে সযতেœ রেখো হৃদয় অভ্যন্তরে ;
শত ক্বাবাতেও সমান হবে না এক হৃদয়ের প্রাপ্তি,
ক্বাবা নয় ,খুঁজো ভালোবাসাকেই আপণ হৃদয় মন্দিরে ।
সত্যেন্দ্র নাথ দত্তের অনূদিত একটি রুবাইয়াৎ পড়লে আমরা নজরুলের অনুবাদ কেমন তা উপলব্ধি করব।
সত্যেন্দ্র নাথ দত্তের অনুবাদ:
প্রথম মাটিতে গড়া হয়ে গেছে শেষ মানুষের কায়
শেষ নবান্ন হবে যে ধান্যে তারো বীজ আছে তায়
সৃষ্টির সেই আদিম প্রভাতে লিখে রেখে গেছে তায়
বিচার কর্ত্রী প্রলয় রাত্রি পাঠ যা করিবে ভাই।
কান্তি ঘোষের একটি অনুবাদ পড়ে নিতে পারি।
সেই নিরালা পাতায় ঘেরা বনের ধারে শীতল ছায়
খাদ্য কিছু পেয়ালা হাতে ছন্দ গেঁথে দিনটা যায়
মৌন ভাঙ্গি মোর পাশেতে গুঞ্জে তব মঞ্জু সুর (অসমাপ্ত)



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ