Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ০৫ ভাদ্র ১৪২৬, ১৮ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

এবার জিরো টলারেন্স নীতি শিথিল করেছে যুক্তরাষ্ট্র

অভিবাসী ইস্যুতে কঠোর অবস্থানের কথা পুনর্ব্যক্ত অ্যাটর্নির

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ জুন, ২০১৮, ১২:০৬ এএম

মার্কিন সীমান্তরক্ষী বাহিনীর প্রধান যুক্তরাষ্ট্রে অবৈধভাবে প্রবেশকারী অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি শিথিল করার কথা জানিয়েছেন। দেশটির কাস্টমস ও সীমান্ত সুরক্ষা (সিবিপি) কমিশনার কেভিন ম্যাকআলেনান টেক্সাসে সাংবাদিকদের জানান, গত সপ্তাহে অবৈধ অভিবাসীদের অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত করে বিচার প্রক্রিয়া বাতিল করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এখবর জানিয়েছে। এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাটর্নি জেনারেল জেফ সেশন্স অভিবাসী ইস্যুতে কঠোর অবস্থানের কথা পুনর্ব্যক্ত করেছেন। নেভাদেতে পুলিশ সম্মেলনে সোমবার তিনি বলেছেন, প্রাপ্ত বয়স্ক অবৈধ অভিবাসীদের বিচার করতে অস্বীকৃতি জানানো হবে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের জন্য ক্ষতিকর। তবে তিনি বলেছেন, অভিবাসী পরিবারের কাছ থেকে শিশুদের বিচ্ছিন্ন না করতে প্রয়োজনীয় সবকিছু করবে ট্রাম্প প্রশাসন। সিবিপি কমিশনার জানান, অভিবাসীদের পরিবার থেকে শিশুদের বিচ্ছিন্ন করা বন্ধ করতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশনার পর এই পদক্ষেপ নিয়েছেন তারা। যদিও ট্রাম্প পরামর্শ দিয়েছিলেন, অবৈধভাবে প্রবেশকারী পরিবারগুলোকে একত্রে আটক রাখতে। বুধবার ব্যাপক চাপের মুখে অভিবাসী আটক কেন্দ্রে পরিবারগুলোকে একত্রে রাখার নির্দেশ স্বাক্ষর করেন। সিবিপি কমিশনার জানান, ট্রাম্প প্রশাসনের জিরো টলারেন্স নীতি এখনও বহাল রয়েছে। যদিও সীমান্ত কর্মকর্তাদের প্রতি তার নির্দেশনা জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়ন অনিশ্চিত করে তুলেছে। এই কর্মকর্তা জানান, পরিবারের কাছ থেকে শিশুদের বিচ্ছিন্ন না করলে অবৈধ অভিবাসীদের বিচার করা সম্ভব হচ্ছে না। কারণ প্রাপ্ত বয়স্কদের আটক কেন্দ্র বা কারাগারে শিশুদের রাখার আইনি অনুমতি নেই। সিবিপি ও বিচার বিভাগকে ঠিক করতে কিভাবে শিশুদের বিচ্ছিন্ন না করে এসব পরিবারের বিচার করা সম্ভব। সিবিপি কমিশনার যে নির্দেশনা দিয়েছেন সীমান্ত কর্মকর্তাদের তা অনুসারে, এখন শিশুসহ সীমান্তে অনুপ্রবেশকারী অভিবাসী পরিবারকে আটক করার পর কোর্টের একটি নির্দেশ তুলে দেওয়া হবে। তাদের আটক করা হবে না। সোমবার হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি সারাহ স্যান্ডার্স দাবি করেন, মেক্সিকো সীমান্ত যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশকালী অবৈধ অভিবাসী পরিবারগুলোকে রাখার মতো জায়গা নেই। যুক্তরাষ্ট্র কোনও নীতি পরিবর্তন করছে না। যুক্তরাষ্ট্রের সামর্থ্য নেই। একই দিন মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগন জানিয়েছে, টেক্সাসের দুটি সামরিক ঘাঁটি অভিবাসীদের অস্থায়ী শিবির হিসেবে ব্যবহার করা হবে। তবে প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাথিস কোন দুটি ঘাঁটিকে ব্যবহার করা হবে তা নির্দিষ্ট করে জানাননি। বিবিস, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অভিবাসী


আরও
আরও পড়ুন