Inqilab Logo

সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৩ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

এটাই হলো শেখ হাসিনা মার্কা নির্বাচন বিএনপি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ জুন, ২০১৮, ১২:০৫ এএম

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে শেখ হাসিনা মার্কা নির্বাচন হিসেবে অবিহিত করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ভোটের আগের রাতেই নৌক প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে সিল মেরে বাক্স ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল দলের নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দ্বিতীয় দফায় সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন। গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন সম্পর্কে রুহুল কবির রিজভী বলেন, একটি অবৈধ সরকার আজীবন ক্ষমতায় থাকার জন্য একটি রক্তাক্ত নির্বাচন উপহার দিচ্ছে। কারণ তারা নিজেরা জাল ভোট, ভোট ডাকাতি করে নিজ দলের প্রার্থীর পক্ষে সিল মেরে বিজয়ী করছে। ভোটের আগের রাতেই তারা নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে সিল মেরে বাক্স ভর্তি করেছে। তিনি বলেন, দুপুর ২টায় পর্যন্ত প্রায় দুই শতাধিকের বেশি ভোটকেন্দ্র থেকে বিএনপি প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সরকারি দলের প্রার্থীর পক্ষে জাল ভোট, কেন্দ্র দখল করে সিল মারা হচ্ছে। এসব কাজে পুলিশ আওয়ামী লীগের ক্যাডারদের সহযোগিতা করছে।
রুহুল কবির রিজভী বলেন, শেখ হাসিনা মার্কা নির্বাচনের নমুনা হলো বিরোধী দলের প্রার্থীর এজেন্টদের পুলিশ গিয়ে ভোট কেন্দ্রে যেতে নিষেধ করবে। তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি দেবে। ভোটকেন্দ্রে গেলে এজেন্টদের গ্রেফতার করা হবে। এ হলো হাসিনা মার্কা নির্বাচনের নমুনা। ভোটারদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে এ সরকার দাবী করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের তো জনগণের ভোট দরকার নেই। তাদের দরকার একটি গণতন্ত্রের লেবাস লাগিয়ে আজীবন ক্ষমতায় থাকা। আর এ কাজে তাদের সহযোগিতা করছে আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশননির্বাচন কমিশনের তীব্র সমালোচনা করে রিজভী বলেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে খুলনার নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি মহাসমারোহ হলো। গাজীপুরে শুধু খুলনার নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি হয়নি তার চেয়ে নতুন মডেল গাজীপুরে প্রয়োগ করা হয়েছে। প্রতিটি নির্বাচনে সরকার ও নির্বাচন কমিশন নতুন নতুন মডেল আবিষ্কার করছে জনগণের সঙ্গে প্রতারণার মাধ্যমে। বিএনপির এই নেতা বলেন, আমরা প্রতিটি নির্বাচনে স্বচ্ছ ভোট জালিয়াতি, ভোট ডাকাতি দেখছি। একের পর এক নতুন পন্থা আবিষ্কার করে নতুন কায়দায় বাকশাল কায়েম করছে। যেখানে সংবাদপত্র, ভোট, কথা বলার সুযোগ সব থাকছে। তবে সব বলতে হবে আওয়ামী লীগের পক্ষে। তিনি বলেন, ধান নির্বাচন কমিশনার গাজীপুরের ভোটারদের সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। শিক্ষিত মানুষ চাকরি রক্ষার জন্য এমন করতে পারে তা আমরা ভাবতে পারি না। সিইসি সরকারি দলের নীলনকশা বাস্তবায়নের কাÐারি হিসেবে কাজ করাছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গাজীপুর সিটি


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ