Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

কঠিন পরীক্ষা ব্রাজিলের

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ জুন, ২০১৮, ১২:০১ এএম

১৯৬৬ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে ডিফেন্ডারদের হিংস্র থাবার শিকার হয়েছিলেন ফুটবল কিংবদন্তি পেলে। ব্রাজিলও সেবার বিদায় নেয় গ্রুপ পর্ব থেকেই। অর্ধ শতাব্দী পর একই শঙ্কা পেয়ে বসে ফুটবলের সবচেয়ে ঐতিহ্যবাহী দলকে। কোস্টারিকার বিপক্ষে শেষ মুহূর্তের জয় আসরে টিকে থাকার সম্ভবনা তৈরী হলেও এখনো শঙ্কামুক্ত নয় নেইমারের দল। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে আজ তাদের পরীক্ষা নেবে সার্বিয়া।
‘ই’ গ্রুপের হিসাবটা এখনো তিন দলের জন্য উন্মুক্ত। টানা দুই পরাজয়ে গ্রæপ থেকে বিদায় নিশ্চিত হয়েছে কোস্টারিকার। ব্রাজিল ও সুইজারল্যান্ডের পয়েন্ট সমান চার করে, তবে গোল ব্যবধানে এগিয়ে শীর্ষে ব্রাজিলই, তিন পয়েন্ট নিয়ে সম্ভবনা বাঁচিয়ে রেখেছে সার্বিয়া। আসরে টিকে থাকতে জয়ের কোন বিকল্প নেই সার্বিয়ার। পক্ষান্তরে শেষ ষোলর হিসাব মেলাতে ড্র করলেই চলবে ব্রাজিলের। শীর্ষ দুই দল হারলে চলে আসবে নানা সমীকরণ। এমনকি গ্রুপ চ্যাম্পিয়নও হতে পারে যে কোন দল।
হারলেও সুযোগ থাকবে ব্রাজিলের যদি সুইজারল্যান্ডও কোস্টারিকার কাছে হারে। তখন দেখা হবে দু’দলের মধ্যকার গোল পার্থক্য। গোল পার্থক্যও সমান হলে দেখা হবে ফেয়ার প্লে রেকর্ড। সেখানেও ভাগ্যক্রমে সবকিছুতে সমতা দেখা দিলে চলে আসবে লটারি ভাগ্য। আর ব্রাজিল ও সুইজারল্যান্ড দুই দলই যদি জেতে তাহলে গোল ব্যবধান, মোট গোল অথবা ফেয়ার প্লে’র হিসাবে নির্ধারিত হবে গ্রæপ চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ। দুই ম্যাচে ব্রাজিল দেখেছে তিনটি হলুদ কার্ড, সুইজারল্যান্ড দেখেছে চারটি।
ব্রাজিলের জন্য হিসাবটা সহজ হলেও কাজটা সহজ নাও হতে পারে। গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে কোস্টারিকাকে ১-০ গোলে হারায় সার্বিয়া। সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে এগিয়ে গিয়েও শেষ সময়ে গোল খেয়ে ২-১ গোলে হেরে বসে তারা। আজও যে তারা ব্রাজিলকে সহজে ছেড়ে দেবে না একথা বলা যেতেই পারে। ড্র করলেও সার্বিয়ার সামনে সুযোগ থাকবে যদি সুইসরা হেরে যায়। তখন দেখা হবে গোল ব্যবধানের হিসাব। সেখানেও সমতা হলে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে থাকায় পরের পর্বের টিকিট পবে সুইসরা।
এই ম্যাচে আরো একটা বিষয় নিয়ে ভাবতে হচ্ছে সার্বিয়া কোচ ¤øাদেন রাস্তাজিককে। তার দলের ছয়জনের পাশে লেখা হয়ে গেছে হলুদ কার্ড। এদিনও তারা হলুদের সামনে পড়লে শেষ ষোলর ম্যাচে খেলতে পারবেন না। তবে এতকিছু না ভেবে সম্ভব্য সেরা একাদশই নির্বাচন করবেন বলে জানান রাস্তাজিক। সার্বিয়ান ফুটবল অবশ্য বর্তমান বেশ টালমাটাল অবস্থার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। সুইজারল্যান্ড ম্যাচ শেষে রেফারিকে নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করায় দলের ম্যানচেস্টার সিটি ডিফেন্ডার আলেসান্দার কলোরভের সঙ্গে রাস্তাজিককেও ৫ হাজার সুইস ফ্রাঁ জরিমানা গুনতে হয়। দর্শকদের বাজে আচরণের কারণে সার্বিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনকেও জরিমানা করা হয় ৫৪ হাজার সুইস ফ্রাঁ।
এতকিছুর পরও সার্বিয়ান কোচের কন্ঠে প্রত্যয়ের সুর, ‘আমরা এমন অবস্থানে এসে দাঁড়িয়েছি যেখানে ব্রাজিলের বিপক্ষে জয় প্রয়োজন। আমরাও জয়ের দিকেই নজর দিচ্ছি, জীবনে কোন কিছুই অসম্ভব নয়।’ আসল সত্যটা মেনে রাস্তাজিক বলেন, ‘আমরা তাদের ঐতিহ্যকে শ্রদ্ধা করি। কিন্তু তাদেরও কিছু দুর্বলতা আছে এবং সেটাকেই আমরা কাজে লাগাতে চেষ্টা করব।’
প্রথম ম্যাচে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ব্রাজিলের পারফম্যান্সে হতাশ হয়েছিল ভক্ত-সমর্থকরা। পরের ম্যাচেও যে সেলেসাওরা মন ভরাতে পেরেছেন তা বলা যাবে না। তবে সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে কোস্টারিকা ম্যাচে ছন্দে ফেরে হলুদ জার্সিধারীরা। আক্রমণের ঢেউ তুলে শেষ মুহূর্তে ঠিকই দুটি গোল আদায় করে নেন ফিলিপ কুতিনহো ও নেইমার। আজও সার্বিয়ার বিপক্ষে এই ব্রাজিলকেই চাইবেন সেলেসাও সমর্থকরা।
দুটি দিক নিয়ে ভাবতে হচ্ছে কোচ তিতেকে। প্রথমত, দলের মধ্যে অন্তঃকলহ। কোস্টারিকা ম্যাচ শেষে যা গণমাধ্যমে প্রকাশ করেন ঐ ম্যাচে অধিনায়কের দায়ীত্ব পালন করা থিয়াগো সিলভা। মাঠের মধ্যে নাকি ঐদিন তার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেন নেইমার। দ্বিতীয়টি উনজুরি সংক্রান্ত। ডগøাস কস্তা ও দানিলোকে সোচিতে রেখেই মস্কোয় পা রেখেছে তিতের দল। থাইয়ের মাংশপেশীতে আঘাত পেয়েছেন দানিলো, কোস্টারিকা ম্যাচে হ্যামস্ট্রিং চোটে পড়েন কস্তা।
জয়ের জন্য মরিয়া আক্রমণাত্মক সার্বিয়ার বিপক্ষেই লড়তে হবে ব্রাজিলকে। এজন্য প্রস্তুতও আছেন তারা। এমনটিই জানান দলের রক্ষণভাগের খেলোয়াড় ফাগনার, ‘আমাদের ভোগাতে প্রতিপক্ষ ভালোমত প্রস্তুতি নিয়েছে। তবে ম্যাচ শুরু হলে প্রফেসরের (তিতে) পছন্দের খেলোয়াড়দের নিয়ে নিজেদের সবটুকু দিয়ে আমরাও সুযোগ তৈরী করার জন্য লড়ব।’
স্বাধীন সার্বিয়ার বিপক্ষে এর আগে একবারই মুখোমুখি হয়েছে ব্রাজিল। ২০১৪ সালের সেই প্রীতি ম্যাচে ১-০ গোলে জেতে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। এর আগে সাবেক যুগো¯েøাভিয়ার বিপক্ষে চার ম্যাচে দুই দলের জয় একটি করে, বাকি দুটি ড্র।



 

Show all comments
  • গোলাম ফারুক ২৭ জুন, ২০১৮, ৩:৫৬ এএম says : 0
    আশা করি ব্রাজিল এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবে।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর