Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৮ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৪ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

মসনবী শরীফ : মাওলানা জালাল উদ্দীন রূমী রহ.

কাব্যানুবাদ : রূহুল আমীন খান | প্রকাশের সময় : ৬ জুলাই, ২০১৮, ১২:০৭ এএম

৮৫০. শক্ত ভাবে আকড়ে ধরো রজ্জু আহাদ, আহমাদের
বাঁচাও তুমি নিজকে আবু জেহেল থেকে এই দেহের।

অগ্নিকুন্ডের ভিতর থেকে শিশুর আহŸান

৮৫১. জ্বলছে অনলকুন্ড ভীষণ প্রজ্জ্বলিত ওই শাহার
আনল হোথা বাচ্চাসহ এক নারীকে ঈমানদার।

৮৫২. বলল : তোমায় ফেলব অনলকুন্ডে যদি বাঁচতে চাও
এক্ষুণি এই বুতকে তবে মাবুদ মেনে সিজদা দাও।

৮৫৩. এ হুংকারে টল্লনা সে, অটল অচল ঈমান তার
সিজদা দিতে করল কঠোর কঠিন ভাবে অস্বীকার।

৮৫৪. শিশুটিকে ছিনে তখন ফেলল নারে সেই ভয়াল
দেখে মায়ের ব্যাকুল হৃদে ঈমান হল টালমাটাল।

৮৫৫. সিজদা দিতে এগিয়ে গেল নেক মহিলাÑ এই সময়
‘মাগো! আমি মরিনিকো’Ñ অগ্নি থেকে বাচ্চা কয়।

৮৫৬. তোমরা দ্যাখো অগ্নি বটে, কীযে মহান খোদার শান
খুব আরামে আছি হেথা, অগ্নি এ নয়Ñ ফুলবাগান

৮৫৭. অগ্নি কেবল চোখের ভ্রম, রহস্যময় পর্দা এই
কুদরতি খেল, শান্তি-নিলয় এ পর্দাটার পশ্চাতেই।

৮৫৮. এসো মাতো! দের কোরনা, শীঘ্র এসো ভেতর এর
দেখবে চির সুখের আলয় এই খানে খাস বান্দাদের।

৮৫৯. সলিল যেথা অনল সম এসো ছেড়ে সেই জগত
এসো মাতো এই জগতে, অগ্নি হেথা সলিলবৎ।

৮৬০. ইবরাহীমের সে অগ্নি, মাÑ এটাই, জানো ঠিক একীন
যেই আগুনের মধ্যে খলীল লভেন ছরু*, ইয়াসমীন*।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মসনবী শরীফ

১৮ জানুয়ারি, ২০১৯
৪ জানুয়ারি, ২০১৯
৯ নভেম্বর, ২০১৮
১৯ অক্টোবর, ২০১৮
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
১০ আগস্ট, ২০১৮
২২ জুন, ২০১৮
২০ এপ্রিল, ২০১৮
১৩ এপ্রিল, ২০১৮
৯ মার্চ, ২০১৮
৩ নভেম্বর, ২০১৭

আরও
আরও পড়ুন