Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ০৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

নিজস্ব গতিতে চলবে আইন

সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের মামলা সম্পর্কে মাহাথির

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০১৮, ১২:০২ এএম

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ বলেছেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের বিরুদ্ধে চলা মামলায় আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, নির্বাচনে দেওয়া নির্বাহী বিভাগ ও বিচার বিভাগের মধ্যে ক্ষমতা বণ্টনের প্রতিশ্রæতি অনুযায়ী এই মামলায় কোনও হস্তক্ষেপ করবেন না। নাজিবের বিরুদ্ধে চলা ওয়ানএমবিডি কেলেঙ্কারি মামলায় এখন পর্যন্ত সউদী আরবের কোনও সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়নি বলেও আল-জাজিরাকে জানিয়েছেন মাহাথির। তিনি বলেন, ‘আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। আর অ্যাটর্নি জেনারেল যদি অপরাধমূলক কার্যক্রমের যথেষ্ট প্রমাণ খুঁজে পায় তাহলে তিনিই সিদ্ধান্ত নেবেন।’ ৯২ বছর বয়সী মাহাথির বলেন, ‘আমাদের একটি (নির্বাচনি) প্রতিশ্রæতি ছিল আমরা নির্বাহী বিভাগ ও বিচার বিভাগের মধ্যে ক্ষমতা বণ্টনকে সম্মান জানাবো, সে কারণে অ্যাটর্নি জেনারেল যা করতে চান তাতে আমি হস্তক্ষেপ করতে পারি না।’ রাষ্ট্রীয় তহবিল ওয়ানএমডিবি দুর্নীতিতে নিজের সংশ্লিষ্টতা অস্বীকার করে আসছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক। এই তহবিল থেকে লাখ লাখ ডলার হারিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে নাজিবের ভূমিকা রয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়ে থাকে। বুধবার তার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে চারটি অভিযোগ গঠন করেছে মালয়েশিয়ার আদালত। এর মধ্যে তিনটি বিশ্বাসভঙ্গজনিত অপরাধ ও অপরটি ক্ষমতার অপব্যবহার করে ৪২ মিলিয়ন রিঙ্গিত আত্মসাৎ। অপরাধ প্রমাণিত হলে প্রতিটির জন্য ২০ বছর করে কারাদÐ হতে পারে তার। ২০১৫ সালে দেখা যায় ওয়ানএমডিবি তহবিল থেকে চারশ’ কোটি ডলার হারিয়ে গেছে। অভিযোগ রয়েছে, এর প্রায় ৭০ কোটি ডলার নাজিবের ব্যক্তিগত ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হয়েছে। ভুল কিছু করার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন নাজিব। তিনি বলছেন, সউদী রাজপরিবার থেকে এই অর্থ অনুদান পাওয়া গিয়েছিল, পরে তা ফেরত দেওয়া হয়েছিল। ২০১৬ সালে সউদী সূত্রের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছিল, মালয়েশিয়ায় মুসলিম ব্রাদারহুড মনোভাবাপন্নদের প্রভাব ঠেকাতে নাজিব রাজাককে ৬৮ কোটি ১০ লাখ ডলার দিয়েছিল সউদী আরব। আল-জাজিরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর