Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

৪ সপ্তাহের মজুরি প্রদানের ঘোষণায় খুলনার পাটকলে ধর্মঘট প্রত্যাহার

শ্রমিক নেতাদের সাথে সমঝোতা

প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা, খুলনা ব্যুরো : টানা নয় দিন রাজপথে আন্দোলনের পর খুলনা-যশোর অঞ্চলে লাগাতার ধর্মঘট ও রাজপথ-রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করেছে আন্দোলনরত পাটকল শ্রমিকরা। পাট মন্ত্রণালয়ে মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রীর সাথে রাষ্ট্রায়ত্ত জুট মিল সিবিএ-নন সিবিএ ঐক্য পরিষদের এক বৈঠকে চার সপ্তাহের মজুরী প্রদানের আশ্বাসে এ কর্মসূচি প্রত্যাহার করা হয়। গতকাল বুধবার দুই সপ্তাহ ও আগামী রোববার দুই সপ্তাহের মজুরী প্রদানসহ ২৫ এপ্রিলের মধ্যে সকল পাওনা পরিশোধের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে কর্মসূচি প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন শ্রমিক নেতারা। তবে আন্দোলনের নয় দিনের হাজিরার ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত দেননি পাটমন্ত্রী।
সকল পাওনা পরিষদসহ পাঁচ দফা দাবিতে প্রতিদিনের ন্যায় খালিশপুর, আটরা ও নওয়াপাড়া শিল্প এলাকার শ্রমিকরা মঙ্গলবার মিল ধর্মঘটের পাশাপাশি ভোর ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত রাজপথ-রেলপথ অবরোধ কর্মসূচি পালন করে। এই কর্মসূচিতে খালিশপুর, আটরা ও নওয়াপড়া শিল্প এলাকার মহাসড়কে বসেই লঙ্গর খানায় শ্রমিকরা দুপুরে খাবার সারেন। ঠিক সেই মুহূর্তে আন্দোলনরত শ্রমিক নেতাদের সাথে ঢাকায় বৈঠক চলে পাট মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর। বুধবার দুপুর ৩টায় সচিবালয়ে পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। যথা সময়ই আলোচনার কার্যক্রম শুরু করেন পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী ইমাজ উদ্দীন প্রামাণিক। এই বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, পাট সচিব আঃ কাদের, বিজেএমসিরর চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) হুমায়ুন খালেদ, সচিব মুহাম্মদ সালেহ উদ্দীন, রাষ্ট্রায়ত্ত জুট মিল সিবিএ-নন সিবিএ ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক সোহরাব হোসেন, সদস্য সচিব সৈয়দ জাকির হোসেনসহ খুলনা যশোর পাটকলের সিবিএ নেতারা।
বৈঠকে শ্রমিক নেতারা সকল বকেয়া মজুরীসহ পাঁচ দফা বাস্তবায়নের দাবি জানান। এছাড়া আন্দোলনরত নয় দিনের মজুরী শ্রমিক-কর্মচারীদের প্রদানের জন্য পাটমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন।
পরে পাটমন্ত্রী বলেন, বুধবার শ্রমিকদের দুই সপ্তাহ আগামী রোববার দুই সপ্তাহর মজুরী দেয়া হবে। এ ছাড়া অর্থ মন্ত্রনালয় থেকে টাকা আসলে আগামী ২৫ এপ্রিলের মধ্যে সকল বকেয়া পরিশোধ করা হবে বলে জানান পাটমন্ত্রী ইমাজ উদ্দনি পরামানিক। তবে আন্দোলনের নয় দিনের হাজিরার ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত দেয়নি পাটমন্ত্রী।
বিজেএসির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অবঃ) হুমায়ুন খালেদকে এ বিষয়টি দেখার জন্য দায়িত্ব দিয়েছেন পাটমন্ত্রী। এই সিদ্ধান্ত শ্রমিক নেতার মেনে নেয়ায় আন্দোলন কর্মসূচি প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। পরে বিকেল সোয়া ৫টায় খালিশপুর নতুন রাস্তা মোড়ে এক সমাবেশে আনুষ্ঠানিকভাবে আন্দোলন প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন সংগ্রাম পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক হাফিজুর রহমান ভুইয়া। আজ বৃহস্পতিবার ভোরে খুলনা-যশোর অঞ্চলের ৭ রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলের স্ব স্ব মিল গেটে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এই সমাবেশের পর পরই শ্রমিকরা নিজ নিজ কর্মস্থলে যোগ দিয়ে উৎপাদন শুরু করবে।
 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ৪ সপ্তাহের মজুরি প্রদানের ঘোষণায় খুলনার পাটকলে ধর্মঘট প্রত্যাহার
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ