Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২১ এপ্রিল ২০১৯, ৮ বৈশাখ ১৪২৬, ১৪ শাবান ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

যেখানে হেরে গেল ব্রাজিল

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০১৮, ১০:২৬ পিএম | আপডেট : ৩:১১ এএম, ৮ জুলাই, ২০১৮

পুরো ম্যাচে বেশির ভাগ সময় বল ছিল তাদের পায়ে। ব্রাজিল সুযোগও পেয়েছে সবচেয়ে বেশি, শটও করেছে বেশি। কিন্তু ফুটবল যে দিন শেষে গোলের খেলা। একের পর এক সুযোগ পেয়েও শেষ পর্যন্ত একটা গোলের বেশি পায়নি ব্রাজিল। তারপরও প্রশ্ন উঠে যায়, তিতের ব্রাজিল কি মার্তিনেজের বেলজিয়ামের কাছে কৌশলে মার খেল?
প্রশ্নটা উঠছে কয়েকটা কারণে। এই ম্যাচের আগে ব্রাজিলের রক্ষণ ছিল দুর্ভেদ্য, গ্রুপ পর্ব ও দ্বিতীয় রাউন্ড মিলে মাত্র একটি গোল খেয়েছিল। তার চেয়েও বড় কথা, দুই বছর আগে তিতে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে এই প্রথম ব্রাজিল কোনো ম্যাচে খেল দুই গোল। প্রশ্ন উঠে যাচ্ছে, ফেলিপে লুইসকে বাদ দিয়ে আজ কি মার্সেলোকে নামানো উচিত ছিল কি না। বেলজিয়ামের দ্বিতীয় গোলটা এদিকে হয়েছে, ডি ব্রুইনকে পাশে থেকেও ঠিকঠাক তাকে মার্ক করতে পারেননি মার্সেলো।
কাসেমিরোর অনুপস্থিতি ব্রাজিল টের পেয়েছে আরও একবার। হলুদ কার্ডের জন্য এদিন খেলতে পারেননি এই মিডফিল্ডার, ডি ব্রুইনদের খেলা নষ্ট করে দেওয়ার কাজটা তারই করার কথা। কিন্তু ফার্নান্দিনহো সেই কাজটা করতে পারেননি ঠিকমতো। তার চেয়েও বড় কথা, শুরুতে একটা আত্মঘাতী গোল করে বড় ধাক্কা দিয়েছেন ফার্নান্দিনহো। শেষ পর্যন্ত সেটাই ব্রাজিলকে পিছিয়ে দিয়েছে কিছুটা। পাসিং কাসেমিরোর চেয়ে ভালো হলেও এমন ম্যাচে হয়তো ফার্নান্দিনহোর চেয়ে তাকেই বেশি করে চাইতেন তিতে।
প্রশ্ন উঠেছে, হেসুসকে কি তিতের আরও আগে তুলে নেওয়া উচিত ছিল? গ্রুপ পর্বের তিনটি সহ দ্বিতীয় রাউন্ডের একটি ম্যাচেও গোল পাননি হেসুস। তবু আজ তার ওপরেই ভরসা রেখেছিলেন তিতে। কিন্তু আজও গোল পাননি, সুযোগ নষ্ট করেছেন প্রথমার্ধে। দ্বিতীয়ার্ধে তাঁর জায়গায় ফিরমিনো নামার পর ধারও বেড়েছে। ডগলাস কস্তা দারুণ খেলেছেন, কিন্তু শেষ পর্যন্ত ব্যবধান কমিয়ে দেওয়ার সুযোগ পাননি। পাওলিনহোও মধ্যমাঠে নিজেকে সেভাবে প্রমাণ করতে পারেননি, মিস করেছেন গোলও।
অবশ্য তিতের দুর্ভাগ্যও বটে, চোটের জন্য দানিলোকে হারিয়ে ফেলেছিলেন ম্যাচের আগে। তৃতীয় পছন্দের রাইটব্যাক ফ্যাগনারকে নিয়ে খেলা হয়েছে। তারপরও শেষ পর্যন্ত বোধ হয় নিজেদেরকেই দায়ী করতে হবে। এমন ম্যাচে এত সুযোগ হাতছাড়া করার মাশুলটা দিতে হয়েছে ভালোমতোই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ

১১ এপ্রিল, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ