Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

ব্রাজিলের দুঃস্বপ্নের নাম ইউরোপ

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০১৮, ১০:২৬ পিএম

২০০২ সালে জার্মানিকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল ব্রাজিল। পেন্টা জয়ের পর থেকে এরপর টানা চার আসরে বিদায় নিতে হয়েছে ইউরোপিয়ানদের কাছে হেরে। রাশিয়া বিশ্বকাপেও হয়নি ভাগ্যবদল। হেক্সা জয়ের মিশনে নেইমারদের আরও একবার বিদায় নিতে হলো সেই ইউরোপের দলের কাছে হেরেই। ফ্রান্স, নেদারল্যান্ডস, জার্মানির পর এবার সেই বিদায়টা লেখা হলো বেলজিয়ামের হাতে।
২০০৬ সালে রোনালদিনহোদের দলটাকে মনে করা হচ্ছিল শিরোপাজয়ের অন্যতম ফেবারিট। কিন্তু শেষ আটে গিয়ে জিনেদিন জিদানের ফ্রান্সের কাছে। সেই ম্যাচে জিদানের আলোয় ¤øান হয়ে গিয়েছিলেন রোনালদিনহোরা, যদিও শেষ পর্যন্ত ফাইনালে ইতালির কাছে হেরে শিরোপাটা নিতে পারেনি ফ্রান্স।
২০১০ বিশ্বকাপেও দাপটের সঙ্গে খেলে ব্রাজিল চলে যায় কোয়ার্টার ফাইনালে। দক্ষিণ আফ্রিকায় এবার শেষ ষোলোতে তাদের প্রতিপক্ষ নেদারল্যান্ডস। শুরুতে রবিনহোর গোলে এগিয়ে গিয়েছিল ব্রাজিলই। কিন্তু ওয়েসলি স্নাইডারের জোড়া গোলে শেষ পর্যন্ত হেরে গিয়েছিল ব্রাজিল। সেই নেদারল্যান্ডস এরপর গিয়েছিল ফাইনালে, শেষ পর্যন্ত অতিরিক্ত সময়ে ইনিয়েস্তার গোলে হেরে যায় স্পেনের কাছে।
পরের বছরের সেমিফাইনালটা ব্রাজিল কখনোই মনে করতে চাইবে না। নিজেদের মাঠে বিশ্বকাপে হেক্সা জয়ের পথে ছিল ভালোমতোই। গ্রæপ পর্ব উৎরানোর পর চিলিকে হারিয়েছিল দ্বিতীয় রাউন্ডে। কোয়ার্টার ফাইনালে কলম্বিয়াকে হারানোর পর সেমিফাইনালে প্রতিপক্ষ জার্মানি। কিন্তু মিনেইরোতে ৭-১ গোলের দুঃস্বপ্নে শেষ হয়ে যায় সবকিছু।
লক্ষণীয় ব্যাপার, ২০০৬ বিশ্বকাপের নকআউটে ব্রাজিল হারিয়েছিল ঘানাকে। পরের বারও দ্বিতীয় রাউন্ডে হারিয়েছিল চিলিকে। গত তিন বিশ্বকাপে একবারও নকআউট পর্বে কোনো ইউরোপিয়ান দলকে হারাতে পারেনি। এবারও দ্বিতীয় রাউন্ডে প্রতিপক্ষ ছিল মেক্সিকো। শেষ আটে প্রথম ইউরোপিয়ান দলকে পেল, আর সেই বেলজিয়ামের কাছেই হেরে গেল শেষ পর্যন্ত। তবে আগের তিন বারই জার্মানি ছিল শেষ চারে। কিন্তু এবার জার্মানি নেই। নেই স্পেন, আর্জেন্টিনাও। আর ২০০৬ সালের পর এই প্রথম শেষ চারে নেই কোনো লাতিন দল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ