Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬, ১৮ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

থামলো রাশিয়ান রূপকথা

বিশেষ সংবাদদাতা, রাশিয়া থেকে | প্রকাশের সময় : ৮ জুলাই, ২০১৮, ৩:৪২ এএম

স্বাগতিক হিসেবে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেয়নি কোন দলই (ইতালি ১৯৯০, ফ্রান্স ১৯৯৮, দক্ষিণ কোরিয়া ২০০২, জার্মানি ২০০৬, ব্রাজিল ২০১৪)। এখন থেকে এই পরিসংখ্যান মিথ্যে। শেষ আটের নাটকীয় ম্যাচে রাশিয়ান রুপকথা থামিয়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ক্রোয়েশিয়া।
সোচির ফিস্ট স্টেডিয়ামে গতকাল অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো ম্যাচ ২-২ গোলে অমিমাংশিত ছিল। পেনাল্টি শুট আউটে ৪-৩ গোলে স্তানি¯øাভ চেরচেশভের দলকে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মত বিশ্বকাপের শেষ চারে জায়গা করে নেয় রাকিটিচ-মড্রিচের দল। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ দিনের প্রথম ম্যাচে সুইডেনকে ২-০ গোলে হারানো ইংল্যান্ড।
নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ে রাশিয়ার মনোযোগ ছিল ম্যাচ টাইব্রেকারে নেয়ার দিকে। কিন্তু ম্যাচের ৩১তম মিনিটে দেনিস চেরিশেভের ২৫ গজ দুর থেকে নেয়া আচমকা শট এগিয়ে নেয় স্বাগতিকদের। গোলটিকে আসরের অন্যতম সেরা বললেও অত্তুক্তি হবে না। আসরে এটি ছিল ভিয়ারিয়াল মিডফিল্ডারের চতুর্থ গোল।
গোল পেয়ে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে খেলতে থাকলেও আট মিনিট পরেই জবাব দেয় ক্রোয়েশিয়া। বামপ্রান্ত থেকে দারুণ আক্রমণে মারিও মানজুকিচের ক্রসে সফল হেড নেন আন্দ্রেই ক্রামারিচ। প্রথমার্ধের শেষ তৃতীয় ভাগ থেকেই কোয়ার্টার ফাইনালময় ম্যাচের আবহ মেলে।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই গোছালো ফুটবল খেলতে থাকে ক্রোয়েশিয়া। ৫৯তম মিনিটে কাছ থেকে পোস্টে শট নেন ইন্টার মিলান মিডফিল্ডার ইভান পার্সিস। গোলরক্ষককে ফাঁকি দিলেও বাম পোস্টের ভেতরে লেগে বল ডান পোস্টের গা ঘেঁসে বেরিয়ে আসে। রাশিয়ান দর্শকদের হাত তখন মাথায়। ম্যাচ কোন ভাবেই অতিরিক্ত সময়ের নেয়ার ইচ্ছা ছিল না ক্রোয়েশিয়ার। গোলের জন্যে তাদের হন্যে হয়ে রাশিয়ার ডি বক্সে ঘুরে বেড়ানো সেই কথাই বলছিল। পরিষ্করভাবে দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণে সেরা ছিল ক্রোয়েশিয়া, আর রক্ষণে রাশিয়া। মড্রিচ ছিলেন অসাধারণ। কিন্তু জয়সূচক গোলের দেখা পেতে ১০১ মিনিট পর্যন্ত অপক্ষো করতে হয় জ্লাতকো ডালিচের দরকে। অতিরিক্ত সময়ে জটলার মধ্য থেকে গোলটি করেন দমাগোজ ভিদা।
পিচিয়ে পড়ার পর যেন চেতন ফিরে পায় স্তানিস্লাভ চেরচেশভের দল। পাল্টা আক্রমণের মুখে বেশ কবার কঠিন পরীক্ষাও দিতে হয় সুবাসিচকে। শেষ পর্যন্ত আর পেরে ওঠেননি। ডি বক্সের ডান প্রান্তের ঠিক বাইরে থেকে ফ্রি-কিক শটে হেড নিয়ে রাশিয়ানদের নতুনভাবে স্বপ্ন দেখান মারিও ফিগুয়েইরা ফার্নান্দেস। ম্যাচ শেষ হতে তখন পাঁচ মিনিট বাকি।

সেমিফাইনালে মুখোমুখি
ফ্রান্স-বেলজিয়াম
১০ জুলাই রাত ১২টা, সেন্ট পিটার্সবার্গ
...-ইংল্যান্ড
১১ জুলাই রাত ১২টা, মস্কো



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ

১১ এপ্রিল, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ