Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫, ১৬ রজব ১৪৪০ হিজরী।

সাভারে ডাকাতি ও শ্লীলতাহানির চেষ্টা

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার থেকে | প্রকাশের সময় : ৯ জুলাই, ২০১৮, ১২:০৫ এএম

ঢাকার সাভারে একটি ভাড়া দেয়া বাড়ির কয়েকটি কক্ষে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে নগদ টাকা, মালামাল ও অটোরিকসা নিয়ে যায়। এছাড়া এক নারীকে ধর্ষণ ও আরেকজনকে ধর্ষণের চেষ্টা করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
রোববার ভোররাত চার টার দিকে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের রাজফুলবাড়িয়ার রাজাঘাট এলাকায় মাহিনুর ইসলামের ভাড়া বাড়িতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।
বাড়ির ভাড়াটিয়া সোহাগ সরদার, ভোলা মিয়া, নাজমুল বেপারী ও শহিদুল্লাহ জানান, ভোর রাতে ১০/১২ সদস্যের একদল ডাকাত বাড়িতে প্রবেশ করে। এরমধ্যে কয়েক জন ঘরে ঢুকে আর ৩/৪জন বাইরে অপেক্ষা করে। আমাদের চারটি পরিবারের সবাইকে প্রথমে একটি ঘরে হাত-পা-মুখ বেঁধে আটকে রাখে। পরে প্রত্যেক ঘর তছনছ করে নগদ টাকা, গহনা, তিনটি অটোরিকসা, টেলিভিশন, বেশ কয়েকটি মোবাইল ফোন লুট করে নেয়। পরে ডাকাতরা পুরুষদের একটি কক্ষে ও মহিলাদের আরেকটি কক্ষে আটকে রাখে। পুরুষদের মারধর করেছে বলেও জানান।
রাশেদা নামের এক নারী অভিযোগ করেছেন, এক ডাকাত তার ছোট মেয়েকে গলায় ছুড়ি ধরে জবাই করার ভয় দেখিয়ে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে।
মনজিলা নামের (২৭) আরেক পোশাক শ্রমিক অভিযোগ করেন, তাকেও জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করা হয়। তখন তিনি নিজের ইজ্জত রক্ষার্থে ওই ডাকাতের পায়ে ধরে বলেন, আপনার ঘরেও তো মা বোন আছে। আমিতো আপনার মায়ের বয়সী। একথা শুনেও মন গলেনি ডাকাতের জামাকাপড় ছিড়ে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে তাকে। ডাকাতরা যাওয়ার সময় একটি পিকআপ ভ্যানে করে পালিয়ে গেছে বলেও তারা জানায়।
এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ওই বাড়ি থেকে ৪টি অটো রিকসা চুরি হয়েছে। ধর্ষণের বিষয়টি এখনও কেউ কিছু বলেনি। ঘটনাস্থলে পুলিশের দুটি টিম রয়েছে তারা বিষয়টি তদন্ত করছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ডাকাতি

৪ অক্টোবর, ২০১৬

আরও
আরও পড়ুন