Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আর মাঠে নামার শক্তিই পাচ্ছেন না নেইমার!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ জুলাই, ২০১৮, ১০:০৯ পিএম

চার বছর আগে পারেননি, এবার অনেক আশা নিয়ে রাশিয়ায় পা রেখেছিলেন তিনি। সবকিছু এগোচ্ছিলও পরিকল্পনা মতোই, কিন্তু কোয়ার্টার ফাইনালেই স্বপ্নভঙ্গের বেদনা। অনেক স্বপ্ন নিয়ে কানে হেডফোন, স্বর্ণে মোড়ানো ব্যাগ, স্বর্ণলতার চুল নিয়ে রাশিয়া এসেছিলেন নেইমার। রাশিয়া ছেড়েছেন একই ভঙ্গিতে। তবে দুদিনের চিত্রেই ফারাক স্পষ্ট। ফেরার সময় তার চোখে মুখে ছিল হতাশার ছাপ, মস্তক নত। কারণ, খালি হাতেই দেশে ফিরতে হয়েছে নেইমারকে।
লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো বিদায় নেওয়ার পর পাদ-প্রদীপের আলোয় ছিলেন নেইমার। স্বাভাবিকভাবেই প্রত্যাশার চাপ ছিলো তুঙ্গে। সেই প্রতাশা পূরণ করতে ব্যর্থ হওয়ায় ভীষণ হতাশ হয়ে পড়েছেন নেইমার। এতটাই যে, ফুটবল খেলার জন্য আবার মাঠে ফেরার শক্তি পেতেই কষ্ট হচ্ছে তার।
এবারের আসরে ব্রাজিলের অন্যতম ভরসা ছিলেন ২৬ বছর বয়সী তারকা নেইমার। নিজে গোল করেছেন দুটি, অ্যাসিস্টও করেছেন। বেলজিয়ামের বিপক্ষে নিজের সবশেষ ম্যাচে ছিলেন আগুন ফর্মে। তবে ঐ ম্যাচের পরাজয়কে নিজের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে দুঃখভারাক্রান্ত মুহূর্ত বলেছেন এই ব্রাজিল তারকা। এতটাই দুঃখ পেয়েছেন তিনি, আবার ফুটবল মাঠে নামার মতো যথেষ্ট শক্তিও নাকি তিনি পাচ্ছেন না। কোয়ার্টার ফাইনালে হারার পর তিনি কোনো কথাই বলেননি সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে। মিক্সড জোনেও এড়িয়ে গেছেন সাংবাদিকদের। অবশেষে নেইমার নিজের দুঃখ প্রকাশ করার মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকে। ইনস্টাগ্রামে নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে লিখেছেন, ‘আমি শুধু এটুকুই বলতে পারি, এটা আমার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে কষ্টের মুহূর্ত। এই পরাজয় খুবই যন্ত্রণাদায়ক, কারণ আমরা জানতাম আমাদের সেমিফাইনালে ওঠার সামর্থ্য আছে। আমরা জানতাম আমাদের আরও সামনে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ ছিল, ইতিহাস রচনা করার সুযোগ ছিল।’
হেরে গেলেও ঈশ্বরের কাছে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছেন নেইমার, ‘কিন্তু এবার সময় আমাদের ছিল না। আরেকবার ফুটবল খেলতে নামার মতো শক্তি জোগাড় করতে কষ্ট হচ্ছে আমার, কিন্তু আমি নিশ্চিত সবধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলা করার মতো যথেষ্ট পরিমাণ শক্তি ঈশ্বর আমাকে দেবেন। সুতরাং হেরে গেলেও আমি ঈশ্বরের কাছে কৃতজ্ঞ, তাঁকে ধন্যবাদ জানাতে কখনোই ভুল করব না আমি। কারণ আমি জানি, তিনি আমার জন্য যা ঠিক করে রেখেছেন তা অবশ্যই আমার ঠিক করে রাখা পরিকল্পনার চেয়ে অনেকগুণ ভালো। এই দলের সদস্য হতে পেরে আমি খুব খুশি। দলের সবার জন্য আমি ভীষণ গর্বিত। আমাদের স্বপ্নে বাধা পড়েছে ঠিকই, কিন্তু সেই স্বপ্ন আমরা কেউই ভুলে যাইনি।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ