Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

বিমানের ১৪ হাজার হজ টিকিট এখনো বিক্রি হয়নি

১১ জুলাই হজ কার্যক্রম উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

শামসুল ইসলাম : | প্রকাশের সময় : ৯ জুলাই, ২০১৮, ১২:০৪ এএম

হজযাত্রীদের অভ্যর্থনা জানাতে আশকোনা হাজী ক্যাম্প প্রস্তুত। হজযাত্রীর অভাবে গত বছরের ন্যায় এবার বিমানের কোনো হজ ফ্লাইট বাতিল হবার আশঙ্কা নেই। গতকাল পর্যন্ত বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স প্রায় ৫২ হাজার হজযাত্রীর টিকিট বিক্রি নিশ্চিত করেছে। বিমানের হজ ফ্লাইটের দ্বিতীয় পর্বে ২৪ জুলাই থেকে ১০ আগষ্ট পর্যন্ত ১৪ হাজার হজ টিকিট এখনো বিক্রি হয়নি। এতে বিমানের হজযাত্রী পরিবহনে বিপর্যয় দেখা দিতে পারে। বিমানের একটি সূত্র এতথ্য জানিয়েছে। ঢাকাস্থ সউদী দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত আব্দুল্লাহ এইচ এম আল-মুতাইরী’র তত্বাবধানে এবার আগে ভাগেই দ্রæত হজ ভিসা ইস্যু করা হচ্ছে। গতকাল রোববার সউদী দূতাবাস প্রায় চার হাজার হজযাত্রীর হজ ভিসা ইস্যু করেছে। এ নিয়ে সরকারী ও বেসরকারী প্রায় দশ হাজার হজযাত্রী’র ভিসা পাওয়া গেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ১১ জুলাই সকাল ১০ টায় হাজী ক্যাম্পে আনুষ্ঠানিকভাবে হজ কার্যক্রম-২০১৮ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন। আগামী ১৪ জুলাই বিমানের প্রথম হজ ফ্লাইট (বিজি-১০১১) সকাল ৭ টা ৫৫ মিনিটে ৪শ’ ১৯ জন সরকারী হজযাত্রী নিয়ে জেদ্দার উদ্দেশ্যে ঢাকাত্যাগ করবে। দ্বিতীয় হজ ফ্লাইট ( বিজি-৩০১১) ১১ টা ৫৫ মিনিটে ৪শ’ ১৩ জন হজযাত্রী নিয়ে জেদ্দার উদ্দেশ্যে ঢাকাত্যাগ করবে। একই দিনে সাউদিয়া এরাবিয়ান এয়ারলাইন্সে’র প্রথম হজ ফ্লাইটও জেদ্দার উদ্দেশ্যে ঢাকাত্যাগ করবে। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২১ আগষ্ট পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবার কথা রয়েছে। বিমানের জনসংযোগ বিভাগের মহাপরিচালক শাকিল মেরাজ ইনকিলাবকে বলেন, বিমানের দ্বিতীয় পর্বের ১৪ হাজার হজ টিকিট বিক্রি নিশ্চিত না হওয়ায় বিমান কর্তৃপক্ষ উৎকন্ঠায় রয়েছে। তিনি বলেন, হজ এজেন্সি’র স্বত্বাধিকারীদের মক্কা-মদিনার বাড়ী ভাড়া করে দ্রুত বিমানের হজ টিকিট ক্রয়ের জন্য বার বার তাগিদ দেয়া হচ্ছে। উল্লেখিত টিকিট বিক্রি না হলে বিমানের প্লট বাতিল হলে পুনরায় ¯øট পাওয়া যাবে না।
হাবের মহাসচিব এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম বলেন, এবার হজ নিয়ে কোনো সংকটের আশঙ্কা নেই। বিমানের ৫২ হাজার হজ টিকিট বিক্রি হয়েছে। বাকি টিকিট শিগগিরই বিক্রি হবে ইনশাআল্লাহ। হাজী ক্যাম্প এর আশপাশের ওয়ালে চুনকাম-এর কাজ চলছে। হাজী ক্যাম্পের শৌচাগারগুলোতে গতকালও পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা হয়নি। আগত হজযাত্রীদের নাকে রুমান চেপে শৌচাগারে যাতায়াত করতে দেখা গেছে। ক্যাম্পে দায়িত্বরত পরিচ্ছন্নকর্মীদের খোঁজে পাওয়া যায়নি। হাজী ক্যাম্পের মেইন গেইটের পাশে বালু ও সুরকির স্তুুপ ।
আগামীকাল মঙ্গলবার বিমানের প্রথম দু’টি হজ ফ্লাইটের হজযাত্রীগণ হাজী ক্যাম্পে রিপোর্ট করতে আসবেন। হাজী ক্যাম্পে বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর বুথ স্থাপনের কাজ জোরেশোরে চলছে। ক্যাম্পের অস্থায়ী মেডিকেল সেন্টারে গতকাল সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত তিন শতাধিক হজযাত্রীকে হজের টিকা দেয়া হয়েছে। টিকা দিতে আগাত হজযাত্রীদের জন্য কোনো বসার জন্য চেয়ার ও ফ্যানের ব্যবস্থা করা হয়নি। বয়োবৃদ্ধি নারী-পুরুষ হজযাত্রীদের দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে হজের টিকা নিতে গিয়ে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। টিকা নিতে মেডিকেল সেন্টারে আসা হজযাত্রীদের জন্য চেয়ার এবং ফ্যানের ব্যবস্থা কেন করা হয়নি এমন প্রশ্নের জবাবে হজ অফিসের সহকারী হজ অফিসার আব্দুল মালেক বলেন, আজ-কালের মধ্যে মেডিকেল সেন্টারের সামনে চেয়ার ও ফ্যানের ব্যবস্থা করা হবে। হাজী ক্যাম্পের ডরমিটরীগুলোর মধ্যে মাত্র ২টিতে ফোম ও কম্বল বিছানো হয়েছে। ডরমিটরীগুলোতে এখনো কোনো বালিশ সরবরাহ করা হয়নি। হজ অফিসের সহকারী হজ অফিসার আব্দুল মালেক বলেন, হাজী ক্যাম্পের ধারণ ক্ষমতা ১৫শ’ জনের। কিন্ত আমরা ডরমিটরীর বারান্দাসহ তিন হাজার হজযাত্রীকে রাখার ব্যবস্থা করছি।
হাজী ক্যাম্পের জামে মসজিদে প্রচন্ড গরমের মধ্যে এবারও হজযাত্রীদের নামাজ আদায় করতে হবে। হাজী ক্যাম্পের জামে মসজিদটিকে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণের আওতায় আনার জন্য কয়েক বছর আগে অর্থ বরাদ্দের জন্য পিডবিøউডি সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাব পাঠায় । কিন্ত অর্থ বরাদ্দ প্রদানে চরম উদাসিনতার দরুন হাজী ক্যাম্পে এসি স্থাপনের ফাইলটি বছরের পর বছর চাপা পড়ে রয়েছে। গতকাল রোববার সরেজমিনে হাজী ক্যাম্পে গেলে পিডবিøউডি’র একজন কর্মকর্তা এতথ্য জানান। হজ অফিসের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আল্লাহর মেহমান হজযাত্রীদের যেকোনো বিষয়ে অত্যান্ত আন্তরিক। হাজী ক্যাম্প মসজিদে এসি স্থাপন করা হলে হাজার হাজার হজযাত্রী প্রচুন্ড গরমের মাঝে একটু আরামে এবাদত বন্দেগী করতে পারতেন। এ বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী’কে এখনো অবহিত করা হয়নি। হজ অফিসের পরিচালক হজ মো: সাইফুল ইসলাম তার দপ্তরে ইনকিলাবকে বলেন, হজযাত্রীদের অভ্যর্থনা জানাতে হাজী ক্যাম্প প্রস্তুত। বিমানের হজ টিকিট বিক্রয় ও হজ ভিসা ইস্যুতে এগিয়ে আছি আমরা। ১১ জুলাই প্রধানমন্ত্রী’র হজ কার্যক্রম উদ্বোধনের সকল কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে বলেও পরিচালক হজ উল্লেখ করেন। হজ নিয়ে কেউ প্রতারণার আশ্রয় নিলে তার বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান। পরিচালক হজ সাইফুল ইসলাম বলেন, এবার দেশের ৬৪টি জেলায় হজযাত্রীদের হজ সংক্রান্ত প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। এখন হজযাত্রীরা আগের চাইতে অনেক সচেতন। এক প্রশ্নের জবাবে পরিচালক হজ বলেন, হজযাত্রী রিপ্লেসমেন্ট ৪% দেয়া হয়েছে। নতুন করে রিপ্লেসমেন্ট দেয়ার কেউ আবেদন করেনি। হাজী ক্যাম্পে মেডিকেল টীমের ইনচার্জ ডা: এম সৈয়দ আহমেদ বলেন, হাজী ক্যাম্পে আগত হজযাত্রীদের টিকা দিতে পর্যাপ্ত ভ্যাকসিন মজুদ রয়েছে। ক্যাম্পে মেডিকেল টীমে পর্যাপ্ত জনবল নিয়োগ করা হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, হাজী ক্যাম্পে কর্মরত মেডিকেল টীমের ডাক্তার, নার্স , ফার্মাসিষ্ট, স্যানেটারী ইন্সপেক্টর, মেডিকেল এ্যাসিসট্যান্ট, মেডিকেল টেকন্যাশিয়ানরা রাত দিন কাজ করলেও কোনো প্রকার সম্মানী ভাতাদি পাচ্ছেন না। গত বছর মেডিকেল টীমের সদস্যদের ৪২ দিনের জন্য জনপ্রতি ১৫শ’ টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়া হলেও তা’ভাগ্যে যুটেনি। এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর নীরব ভূমিকা পালন করছে। এদিকে, গত ৬ জুলাই মক্কাস্থ বাংলাদেশ হজ মিশনের শীর্ষ পর্যায়ের একজন কর্মকর্তা মক্কার সাড়ে ছিত্তিন নামক স্থানের বেসরকারী একটি হজ এজেন্সি’র দু’টি বাড়ী পরিদর্শন করে ছাড়পত্র ইস্যু বন্ধ করে দিয়েছে। এতে এসব হজযাত্রীর মোফা ইস্যু নিয়ে অহেতুক জটিলতার সৃষ্টি হয়েছে। এতে এসব হজযাত্রীর হজ ফ্লাইট বাতিল হবার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। মক্কা থেকে নির্ভরযোগ্য সূত্র এতথ্য জানিয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হজ

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ