Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

গ্রামীণ জনপদে ইউপি নির্বাচনের হাওয়া - আ.লীগ-বিএনপির ২২ বিদ্রোহীর দাপটে বেকায়দায় দলীয় প্রার্থীরা

প্রকাশের সময় : ১৬ এপ্রিল, ২০১৬, ১২:০০ এএম

চাঁদপুর জেলা সংবাদদাতা
ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৪ ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির ২২ জন বিদ্রোহী প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে ১৪ জন আ’লীগের এবং ৮ জন বিএনপির। ইতোমধ্যে তারা প্রতীক নিয়ে প্রচারণায়ও নেমে গেছেন। উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদে আগামী ২৩ এপ্রিল ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। তবে ১৪টি ইউনিয়নের সবকটিতে নয়। ১১টি ইউনিয়নে আ’লীগের ১৪ জন এবং ৭টিতে বিএনপির ৮ জন বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছেন। দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে তারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। দলীয় সিদ্ধান্তের তোয়াক্কা না করে তারা প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে তারা জয়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তবে মজার বিষয় হচ্ছে, বিদ্রোহীদের অধিকাংশের প্রতীক আনারস ও চশমা। শুধুমাত্র দু’জনের প্রতীক মোটরসাইকেল ও অটোরিক্সা। এদের মধ্যে অধিকাংশ আওয়ামী বিদ্রোহী আনারস প্রতীকধারী এবং অধিকাংশ বিএনপি বিদ্রোহী চশমা প্রতীকধারী। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা হচ্ছেন- বালিথুবা পূর্ব ইউপিতে ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হারুন-আর রশিদ (আনারস), সুবিদপুর পশ্চিম ইউপিতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আনোয়ার হোসেন মামুন মুন্সী (আনারস), গুপ্টি পশ্চিম ইউপিতে বুলবুল আহাম্মদ (আনারস), পাইকপাড়া উত্তর ইউপিতে কাজী মো. জহিরুল ইসলাম (চশমা), পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউপিতে সাবেক চেয়ারম্যান রমজান আলী খান (চশমা), গোবিন্দপুর উত্তর ইউপিতে আবু তাহের সরকার (আনারস), গোবিন্দপুর দক্ষিণ ইউপিতে সাবেক চেয়ারম্যান খাঁজা আহম্মেদ ভূঁইয়া (আনারস), চর-দুঃখিয়া পূর্ব ইউপিতে সাবেক চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল পাটওয়ারী (মোটরসাইকেল), চর-দুঃখিয়া পশ্চিম ইউপিতে মিজানুর রহমান পাটওয়ারী (চশমা), রূপসা উত্তর ইউপিতে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম-আহ্বায়ক মোহাম্মদ নূরের রহমান সুমন পাটওয়ারী (আনারস), উপজেলা আ’লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল কাদের মিলন চৌধুরী (চশমা) ও মাওঃ মো. ইউনুছ (মোটর সাইকেল) এবং রূপসা দক্ষিণ ইউপিতে উপজেলা আ’লীগের সাবেক সহ-সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান (চশমা) ও শাহ আলম (অটোরিক্সা)। বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থীরা হচ্ছেন- বালিথুবা পূর্ব ইউপিতে মো. শাহাদাত হোসেন নয়ন (চশমা), সুবিদপুর পশ্চিম ইউপিতে সাবেক চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বাবুল চৌধুরী (চশমা), গুপ্টি পশ্চিম ইউপিতে ইকবাল হোসেন (চশমা), পাইকপাড়া উত্তর ইউপিতে মহসিন পাটওয়ারী (মোটরসাইকেল), পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউপিতে উপজেলা বিএনপির সহ-তাঁতী বিষয়ক সম্পাদক মো. মোস্তাফিজুর রহমান পাটওয়ারী (আনারস), চর-দুঃখিয়া পূর্ব ইউপিতে উপজেলা বিএনপির সদস্য শাহাদাত হোসেন টেলু (চশমা) ও সাবেক চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ পাটওয়ারী (আনারস) এবং চর-দুঃখিয়া পশ্চিম ইউপিতে ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতি মো. শাহজাহান ( আনারস)। ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৪ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৬৫, মেম্বার পদে ৪৮০ এবং সংরক্ষিত নারী মেম্বার পদে ১০৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে আ’লীগের ১৪ জন, বিএনপির ১৪ জন, ইসলামী আন্দোলনের ১১ জন, জাকের পার্টির ১ জনসহ বাদবাকিরা মনোনয়ন বঞ্চিত বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী । উল্লেখ্য, ১৫ মার্চ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে হাজীগঞ্জ ও ফরিদগঞ্জ উপজেলার ২৫টি ইউনিয়নের তফসিল ঘোষণা করে নির্র্বাচন কমিশন। এর মধ্যে হাজীগঞ্জের ১১টি এবং ফরিদগঞ্জের ১৪টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে ফরিদগঞ্জ দক্ষিণ ও হাজীগঞ্জের দ্বাদশগ্রাম ইউনিয়নের তফসিল ঘোষণা করা হয়নি। ফলে ঐ দু’টি ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।