Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌
শিরোনাম

দুই মামলায় জনশূন্য গ্রাম

আড়াইহাজারে জোড়া খুন

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ জুলাই, ২০১৮, ১২:০২ এএম

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে দূর্গম চরাঞ্চলে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের একজন করে দুজন নিহত হওয়ার ঘটনায় পাল্টাপাল্টি ২টি মামলায় ৬০ জনকে আসামী করা হয়েছে।
জানা গেছে, গত ৭ জুলাই সন্ধ্যায় মধ্যারচর গ্রামে মেঘনা নদীতে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ইউপি সদস্য লিটন মেম্বার ও বাবুলের লোকজনের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে দুপক্ষের কমপক্ষে ১৫ জন গুরুতর আহত হয়। এদের মধ্যে সুজন (২৫) নামে লিটন মেম্বারের পক্ষের একজন ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই মারা যায়। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হযরত আলীর পক্ষের বাবুলের স্ত্রী রোজিনা (২৫) ৮ জুলাই দুপুরে মারা যায়।
পুলিশ জানায়, রোজিনা হত্যার ঘটনায় তার স্বামী বাবুল বাদী হয়ে ৯ জুলাই রাতে লিটন মেম্বার, সাইফুল ইসলাম সুরুজ, কমল, সিরাজ, শফিকুল, মোস্তফা, নবী হোসেন, মোকারম, ওমর আলী, বেনু, মালেক, হাানসহ ৩০ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তবে উক্ত মামলায় ছেলে কমল ও বাবা বেনু চাকরিজীবী হওয়ায় ঘটনার সময় উপস্থিত না থাকলেও তাদের বিরুদ্ধে মামলা করার বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী।
অপর দিকে সুজন হত্যার ঘটনায় তার বড় ভাই রবি মিয়া বাদী হয়ে ৮ জুলাই রাতে বাবুল, কবির, আনার হোসেন, জজ মিয়া, হযরত আলী, হৃদয়, আলমগীর, আছমা, রোজিনা, হনুফা, জনি, শহিদুল্লাহসহ ৩০ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এর মধ্যে ১০ নং আসামী রোজিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।
দুপক্ষের পাল্টাপাল্টি মামলায় গ্রেফতার এড়াতে গ্রামটি এখন জনশূণ্য হয়ে পড়েছে। নিহত রোজিনা ও সুজনের লাশ দাফন করার মত কোন লোকও গ্রামে খুঁজে পায়া যায়নি। পরে পুলিশ রোজিনা ও সুজনের লাশ দাফন করে।
আড়াইহাজার থানার ওসি এম এ হক জানান, পুরো এলাকায় এখন জনশুণ্য। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত আসামী গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।