Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ৩ কার্তিক ১৪২৫, ০৭ সফর ১৪৪০ হিজরী

দরপত্র জমা পড়েনি

ডিএসসিসি’র প্রথম দফা হাট ইজারা প্রক্রিয়া

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ জুলাই, ২০১৮, ১:৫৮ এএম

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের অস্থায়ী কোরবানির হাট ইজারার প্রথম দফার টেন্ডারবাক্স খোলা হয়েছে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে। এ বছর ১৩টি হাটের দরপত্র আহ্বান করা হলেও মাত্র ছয়টি হাটের জন্য ১৯টি দরপত্র জমা পড়েছে। বাকি সাতটি হাটের বিপরীতে কোন দরপত্রই জমা পড়েনি। দরপত্র জমা পড়া হাটগুলোর মধ্যে দুটি হাটের বিপরিতে মাত্র একটি করে আর চারটি হাটের বিপরিতে তিন থেকে পাঁচটি করে দরপত্র জমা পড়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত দরপত্র দাখিলের শেষ সময় ছিল। এরপর বেলা আড়াইটায় নগর ভবনের ব্যাংক ফ্লোর সেমিনার কক্ষে দরপত্র খোলা হয়। এ সময় ডিএসসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুল মালেক, নির্বাহী ম্যাজেস্ট্রেট, পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও দরপত্রে অংশ নেয়া ইজারাদারেরা উপস্থিত ছিলেন।
এ বছরও ক্ষমতাশীল দলের সিন্ডিকেটের কবলে পড়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ১৩টি কোরবানির পশুরহাট। আর এ সিন্ডিকেটের সঙ্গে জড়িত সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও কর্মচারীরাও। গত বছর ১৩টি হাটের দরপত্র আহ্বান করে মাত্র ৯টি হাটের ইজারা দেয়া সম্ভব হয়েছে। পরে মেয়র, কাউন্সিলর ও সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা, কর্মচারিদের পছন্দমত আরও ৭টি হাটের খাস আদায়ের ইজারা দেয়া হয় দলীয় নেতা কর্মীদেরকে। পরে হাইকোর্টের আদেশে একটি হাটের ইজারা বাতিল হয়ে যায়।
অভিযোগ উঠেছে, সিন্ডিকেটের বাইরে কারও পক্ষে সিডিউল সংগ্রহ ও জমা দেয়া সম্ভব হয়নি। ডিএসসিসি’র অস্থায়ী গরুর হাটগুলোর ইজারা ক্ষমতাসীনদের আয়ত্বে রাখতে নেয়া হয়েছে নানা কৌশল। এর মধ্যে একই ব্যক্তি কিংবা প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন নামে-বেনামে নাম মাত্র মূল্য দিয়ে দরপত্র জমা দেয়। যে কারণে নিজেদের কাঙ্খিত দামে ইজারা পেতে সহজ হয়ে যায়। এতে সিটি কর্পোরেশন কোটি কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে।
গতকাল প্রথম দফা দরপত্র মূল্যায়ন করে দেখা যায়, ১৩টি হাটের মধ্যে মাত্র ছয়টি হাটের বিপরীতে দরপত্র জমা পড়েছে ১৯টি।
যে, সাতটি হাটের বিপরীতে কোন দরপত্র জমা পড়েনি। দরপত্র জমা না পড়া হাটগুলো হল, মেরাদিয়া বাজার সংলগ্ন খালি জায়গা, ব্রাদার্স ইউনিয়নের বালুর মাঠ, কমলাপুর স্টেডিয়ামের আশেপাশের খালি জায়গা, আরমানিটোলা খেলার মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, ধুপখোলা ইস্ট অ্যান্ড ক্লাব মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা, দনিয়া কলেজ মাঠ সংলগ্ন খালি জায়গা এবং সাদেক হোসেন খোকা মাঠের আশেপাশের খালি জায়গা।
ডিএসসিসি’র প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবদুল মালেক ইনকিলাবকে বলেন, এ বছর ১৩টি অস্থায়ী কোরবানির পশুরহাটের দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। এর মধ্যে মাত্র ছয়টি হাটের বিপরীতে দরপত্র জমা পড়েছে। এগুলো আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সিদ্ধান্ত নিব কোন কোন হাটের টেন্ডার দেয়া যায় আর কোন কোন হাটের টেন্ডার দেয়া যাবে না। পর্যাপ্ত দর পাওয়া না গেলে আমরা তা পুনরায় দরপত্র আহ্বান করবো। ###



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ