Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫, ৫ যিলক্বদ ১৪৩৯ হিজরী

ইসরাইলের ওপর গাজার পাল্টা নিষেধাজ্ঞারোপ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০১৮, ৩:০৭ পিএম

অবরুদ্ধ গাজায় উৎপাদিত ফল ও সবজি আমদানির ওপর তেলআবিব যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে তার জবাবে ইসরাইলি ফল আমাদানির ওপর পাল্টা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। বুধবার গাজার কৃষি মন্ত্রণালয় এ পাল্টা নিষেধাজ্ঞা দেয় বলে জানিয়েছে তুর্কি গণমাধ্যম আনাদলু।



কৃষি মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তাহসিন আল-সাক্কা বলেছেন, ‘আমাদের ফল আমদানিতে ইসরাইলের নিষেধাজ্ঞার জবাবে আমরাও তাদের ফল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করব।’

তিনি জানান, এই পাল্টাপাল্টি নিষেধাজ্ঞার আগে গাজা প্রতিদিন ইসরাইল থেকে ২০ টন ফল আমদানি করতো। অন্যদিকে, ইসরাইলও কারেম শ্যালম সীমান্ত দিয়ে গাজা থেকে ২০ টন ফল ও সবজি আমদানি করতো।

আল-সাক্কা বলেন, ইসরাইলি ফল আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় গাজায় ফলের বাজারে কোনো প্রভাব পড়বে না। কারণ ওইসব ফল গাজাতেও উৎপাদন হয়।

তবে ইসরাইলি নিষেধাজ্ঞার প্রভাব গাজার কৃষি খাতে পড়বে বলেও জানান তিনি। কারণ এই নিষেধাজ্ঞার ফলে উৎপাদিত পণ্য উদ্বৃত্ত থেকে যাবে এবং গাজার কৃষকরা ‘উল্লেখযোগ্য ক্ষতি’র সম্মুখীন হবেন।

প্রসঙ্গত, সোমবার ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ নতুন করে গাজার ওপর ওই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। তেলআবিব বলছে, ফিলিস্তিনিরা গাজা সীমান্তে ‘আগুন ঘুরি’ দিয়ে যে হামলা করছে তার জবাবে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৩০ মার্চ থেকে গাজা সীমান্তে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে আসছেন ফিলিস্তিনিরা। ১৯৪৮ সালে ইসরাইলের দখল করা ভূমিতে উদ্বাস্তু ফিলিস্তিনিদের ফেরত যাবার অনুমতি দেওয়া এবং বিগত ১১ বছর ধরে গাজার ওপর আরোপিত ইসরাইলি অবরোধ প্রত্যাহারের দাবিতে এই কর্মসূচি পালন করছেন তারা।

আনাদলুর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলমান এই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে ইসরাইলি সেনাদের গুলিতে ইতোমধ্যে ১৩৭ জন ফিলিস্তিনি নিহত এবং বেশ কয়েক হাজার আহত হয়েছেন। আর ইসরাইলি সেনাদের গুলির জবাবে সম্প্রতি গাজা সীমান্তে ‘আগুন ঘুরি’ দিয়ে হামলা চালিয়েছে ফিলিস্তিনিরা।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ