Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী

দৈনন্দিন জীবনে ইসলাম

| প্রকাশের সময় : ১৩ জুলাই, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

প্রশ্ন: খোতবাহ কতটুকু দীর্ঘ করা সুন্নত?
উ: কোরআন শরীফের মধ্যম সাইজ সূরার সমপরিমাণ।
প্রশ্ন: খোতবার মধ্যে কি কি কাজ সুন্নত?
উ: ১. খোতবার শুরুতে মনে মনে আউযুবিল্লাহ-বিসমিল্লাহ পড়া। ২. দাঁড়িয়ে খোতবাহ প্রদান করা। ৩. পর পর দু’টি খোতবাহ প্রদান করা। ৪. দুই খোতবার মাঝখানে অন্তত: ৩ (তিন) তাসবীহ পরিমাণ সময় বসা। ৫. ওযু-গোসলের প্রয়োজন মুক্ত হওয়া। ৬.সমবেত মুসল্লীদের দিকে মুখ করে খোতবাহ প্রদান করা। ৭. উপস্থিত লোকেরা যাতে খোতবার আওয়াজ শুনতে পায় তার জন্যে যথাসাধ্য জোরে খোতবাহ দেওয়া। ৮. খোতবার মধ্যে আল্লাহর প্রশংসা ও শোকর, নবী করীম সা. এর গুণাবলী ও তাওহীদ-রিসালাতের সাক্ষ্য, দরূদ, নসীহত, কোরআনের আয়াত, হাদীস, সাহাবায়ে কেরামের মর্যাদা, মুসলমানদের করণীয়, উম্মতে মুহাম্মাদীর উন্নতি এবং কাফের মুশরিকদের ধ্বংস কামনা করে দোয়া ইত্যাদি আলোচিত হওয়া সুন্নত।
প্রশ্ন: দুই খোতবার মাঝখানে হাত উঠিয়ে মুনাজাত করা কি ঠিক?
উ: না ঠিক নয়। মাকরূহে তাহরীমী। তবে হাত না উঠিয়ে মনে মনে দোয়া পড়া যাবে।
প্রশ্ন: ইমাম খোতবাহ মুরু করার আগে কী করবে?
উ: প্রথম মিম্বরের ওপর বসবে। এরপর দ্বিতীয় আযান শেষ হলে দাঁড়িয়ে মনে মনে তাআউয পড়বে এবং খোতবাহ শুরু করবে। খোতবাহ শেষ হলে মিম্বর থেকে নেমে নামাযে ইমামতি করবে।
প্রশ্ন: খতীব ছাড়া অন্য কেউ নামায পড়ালে হবে কি?
উ: হবে, তবে না পড়ানোই উত্তম।
প্রশ্ন: খোতবার আগে মিহরাবে দাঁড়িয়ে নামায পড়া কি ঠিক?
উ: না মাকরূহ। -মুফতী ওয়ালীয়ুর রহমান খান



 

Show all comments
  • শাকিল খান ২৩ জুলাই, ২০১৮, ৩:২৬ এএম says : 0
    রোজার সময় অনেকে রোজা রাখে না - বলে কষ্ট লাগে ; ইনশাহআল্লাহ মাফ করে দিবেন ! এই রকম কথার কারনে আমি একজনকে বলেছিলাম , আপনি আর মুনাফেকের মাজে কোন তফাৎ নাই ! আমি কি ভূল বলেছি ? ধর্মে কি বলে ?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর