Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১০ আগস্ট ২০২০, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৯ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

‘এখনো অনেক গল্প লেখা বাকি’

স্পোর্টস ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১৬ জুলাই, ২০১৮, ১০:৩৭ পিএম

 

 গত এক দশক ধরে বিশ্ব ফুটবল রাজত্ব করে আসছেন লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। দুজনের কেউই এবারের বিশ্বকাপে আলো ছড়াতে পারেননি। রাশিয়ায় যে কজন খেলোয়াড় নিজেদের আলাদাভাবে চিনিয়েছেন তাদের মধ্যে একজন Ñ কিলিয়ান এমবাপে। দুই মহাতারকার রাজত্ব ফরাসি এই তরুণ স্ট্রাইকারের কাছেই হারাতে হবে বলে মনে করছেন ফুটবল বিশ্লেষকরা।
বয়স মাত্র ১৯ বছর। এই বয়সেই নিজেকে অনন্য উচ্চতায় তুলেছেন এমবাপে। রাশিয়া বিশ্বকাপে তার পারফর্ম্যান্স বার বার মনে করিয়েছে ১৯৫৮ বিশ্বকাপের বালক পেলেকে। পেলের পর প্রথম টিনএজ হিসেবে নক আউট পর্বে জোড়া গোলের কীর্তি গড়েন এমবাপে। মস্কোর ফাইনালেও ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ফ্রান্সের ৪-২ গোলের জয়ী ম্যাচে গোল করেন পিএসজি তারকা। আসরে যা ছিল তার চতুর্থ গোল। এর আগে টিনএজার হিসেবে ১৯৫৮ বিশ্বকাপের ফাইনালে গোল করার কৃতিত্ব দেখিয়েছিলেন ফুটবল কিংবদন্তি পেলে। বিশ্বকাপের বিরল রেকর্ডের পাশে একজন সঙ্গী পেয়ে খুশি পেলেও। এক টুইট বার্তায় এমবাপেকে অভিনন্দন জানিয়ে পেলে বলেন, ‘মাত্র দ্বিতীয় টিনেজার হিসেবে বিশ্বকাপের ফাইনালে গোল! এই ক্লাবে তোমাকে স্বাগতম এমবাপে। এজন সঙ্গী পাওয়া সব সময়ই আনন্দের।’ বার্তার ভেতরের বার্তাটিও পরিষ্কার করেছেন রসিক পেলে, ‘যদি এভাবেই একের পর এক আমার রেকর্ডে ভাগ বসাতে থাকে এমবাপে, তাহলে নিশ্চিত আমার ধুলো পড়া বুটগুলো পরিস্কার করে আবারও মাঠে নামতে হবে।’
শেষ আটে আর্জেন্টিনার মত দল লÐভÐ হয়ে যায় এমবাপের টর্নেডোতেই। গতির ঝড় তুলে ৪-৩ গোলে জয়ী ম্যাচে সেদিন জোড়া গোল করেন এমবাপে। আসর জুড়েই প্রতিপক্ষের রক্ষণের আতঙ্কের মূর্ত প্রতীক হয়ে ছিলেন তিনি। তারই স্বীকৃতি স্বরুপ ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ তাকে সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ে ভূষিত করে।
বিশ্বমঞ্চের এই আসরে বাঘা বাঘা খেলোয়াড়রা যেখানে নিজেদের আলাদাভাবে চেনাতে পারেননি সেখানে এমবাপের নৈপূণ্যে মুগ্ধ ফুটবল বোদ্ধারা। তাদেরই একজন সাবেক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিংবদন্তি রিও ফার্ডিনান্ড, ‘সেই সম্ভব্য ব্যক্তি যে ব্যালন ডি’অরের জন্য সামনের বছরগুলোতে রাজত্ব করবে।’ অ্যালেক্স ফার্গুসন যুগের পর ব্যর্থতার আবর্তে ঘুরতে থাকা নিজ ক্লাব ম্যান ইউকে তাতে দলে ভেড়ানোর পরামর্শও দিয়েছেন ফার্ডিনান্ড, ‘আমি চাইব আমার পুরোনো ক্লাব তাকে টেনে নিক। পল পগবার সঙ্গে তার যোগাযোগও আছে।’
গত এক দশকে সমান ৫ বার করে ব্যালন ডি’আর উঠেছে মেসি ও রোনালদোর হাতে। ক্লাব ফুটবলে দুজনই আলো ছড়ালেও বিশ্বকাপে কেউই সেভাবে নিজেকে চেনাতে পারেননি। এজন্য অবশ্য দলের দায়টাই বেশি। তবুও বিশ্বকাপের বছরের বিবেচনায় এবারের ব্যালন ডি’আর অথবা ফিফা বর্ষসেরা হওয়ার দৌড়ে এককভাবে এগিয়ে রাখা যাচ্ছে না সময়ের দুই সেরা তারকার। বরং তাদের চেয়ে ঢের এগিয়ে ক্রোয়েশিয়াকে বিশ্বকাপের ফাইনালে নেয়া লুকা মড্রিচ। বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় হিসেবে গোল্ডেন বলও জিতেছেন রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী এই তারকা মিডফিল্ডার।
চলতি বছরের সেরা খেলোয়াড় হবেন কিনা তা এখনো নিশ্চিত নয়। তবে ফ্রান্সের হয়ে আগামী ১০ বছর এমবাপেই রাজত্ব করবেন বলে মনে করেন সাবেক জার্মানি স্ট্রাইকার ও ম্যানেজার ইয়ুর্গুন ক্লিন্সম্যান। বিশ্বকাপের এই আলোচ্ছটা ক্লাব ফুটবলে পড়বে বলেও মনে করেন ক্লিন্সম্যান, ‘সে (এমবাপে) বাজারকে চাঙ্গা করে তুললো। রোনালদো জুভেন্টাসে চলে গেছে, নেইমার অন্য ক্লাবের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছে। কোথায় গিয়ে ভিড়বেন এই বাচ্চা ছেলেটা?’
২০১৬-১৭ মৌসুম শেষে মোনাকো থেকে পিএসজিতে ধারে যোগ দেন এমবাপে। ১৮০ মিলিয়ন ইউরোর তাকে কিনে নেয়ার রাস্তাও খুলে রাখা হয়েছে চুক্তিতে। এরই মাঝে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর জায়গা পূরণ করতে রিয়াল মাদ্রিদ তার ব্যাপারে আগ্রহী বলে বিভিন্ন সময়ে খবর বের হয়েছে। তবে এমবাপে পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছেন, ‘আমি পিএসজির সঙ্গেই থাকব, তাদের সাথে থেকেই আমি সামনের পথে এগুতে চাই। এটা আমার ক্যারিয়ারের শুরু মাত্র।’
২০২২ কাতার বিশ্বকাপে এমবাপের বয়স হবে ২৩, যে বয়স থেকে বিশ্ব ফুটবলে পুরোপুরি রাজত্ব শুরু করেন মেসি-রোনালদো। ২০২৬ ইউএস-কানাডা-মেক্সিকো বিশ্বকাপে ২৭ বছরের আদর্শ তরুণ এমবাপেকে দেখা যাবে। তার মানে ফুটবলাঙ্গনে নিজেকে প্রতিষ্ঠার জন্যে অনেক সুযোগ এমবাপের সামনে। লক্ষ্যটাও যে তিনি সেভাবেই ঠিক করেছেন তা তার কথাতেই বোঝা যায়, ‘আমার লক্ষ্য সামনের দিকে। সম্ভাব্যতার সীমার মধ্যে থেকে সামনের দিকে এগুতে চাই। এমন যুবা বয়েসে বিশ্বকাপ জেতায় সামনে অনেকগুলো দরজা খুলে গেছে। এখন আমাকে পরিশ্রম অব্যহত রাখতে হবে। লম্বা রাস্তায় সবে যাত্রা শুরু করেছি। এখনো অনেক গল্প লেখা বাকি, এটা সবে শুরু।’



 

Show all comments
  • Teste ১৭ জুলাই, ২০১৮, ৬:০৬ পিএম says : 0
    ssdfsafd
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিশ্বকাপ

৩ জুলাই, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ