Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
শিরোনাম

দ্রুত রিপোর্ট দিতে আহ্বান ১৪ দলের

কোটা সংস্কার কমিটি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০১৮, ১২:০১ এএম

কোটা পদ্ধতি সংস্কারের বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে গঠিত কমিটিকে দ্রুত প্রতিবেদন দেওয়ার আহবান জানিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন চৌদ্দ দলীয় জোটের নেতারা। একই সঙ্গে কোটা সংস্কারের ব্যাপারে আন্দোলনকারীদেরও একটু ধৈর্য্য ধরতে বলেছেন তারা।
গতকাল দুপুরে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে চৌদ্দ দলের এক বৈঠক শেষে জোটের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আমরা কেবিনেট সচিবকে নেতৃত্বে গঠিত কমিটিকে অনুরোধ করবো, চৌদ্দ দলের পক্ষ থেকে অনুরোধ করতে চাই। দ্রুত আপনাদের কাজটি শেষ করে, দ্রুততার সঙ্গে প্রতিবেদন দেন। কেউ যেন সুযোগ না নিতে পারে, কেউ যেন ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে না পারে।
তিনি বলেন, একটি স্পর্শকাতর বিষয় নিয়ে একটি মহল একের পর এক চক্রান্ত করছে। কোন ইস্যু না পেয়ে কোটা সংস্কার ইস্যু নিয়ে তারা মাঠে নেমেছে। সেই ব্যপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তারুণ্যকে উৎসাহিত করার জন্য কোটার ব্যাপারটি নিয়ে তিনি কথা বলেছিলেন, এটা আপনারা জানেন। প্রধানমন্ত্রী যেহেতু একটি পর্যায়ে সংসদে বলেছিলেন কোটা রাখবেন না। তার পরেও তিনি একটি কমিটি করে দিয়েছেন কেবিনেট সচিবের নেতৃত্বে। সেই কমিটি কাজ করছে।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, কোটা সিস্টেম আমাদের সংবিধানে আছে। চৌদ্দ দলের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর উপর আস্থা রাখার আহ্বান জানাচ্ছি। তিনি অনগ্রসর মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, কেবিনেট সেক্রেটারিরর নেতৃত্বে কমিটি কাজ করছে আপনারা ধৈর্য্য ধরুন। দীর্ঘ দিনের একটা সিস্টেমকে বদল করে আনতে একটু সময় লাগে।
সংবাদ সম্মেলন শেষে জাতীয় পার্টি-জেপির সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম ধন্যবাদ বক্তব্যে বলেন, আমরা কোটা সংস্কারে বিষয়টির যৌক্তিক সমাধান চাই। আমরা আশা করি সমাধান পেয়ে যাবো। এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে।
বিএনপি নির্বাচন ভন্ডুলে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত বলে দাবি করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, নির্বাচন সামনে আসছে সেই ক্ষেত্রে সংবিধান অনুযায়ী আগামী ডিসেম্বর মাসে নির্বাচন কমিশনের নির্ধারিত তারিখে বাংলাদেশে নির্বাচন হবে। আমরা আশা করি দেশের সব রাজনৈতিক দল নির্বাচনে অংশগ্রহন করুক। এমনকি বিএনপি নির্বাচনে আসুক সেটা আমরা চাই। কাউকে নির্বাচন থেকে সড়ানোর কোন চিন্তা আমাদের নেই। আমরা চাই প্রতিদ্ব›িদ্বতা করে নির্বচনে জয় আসুক।
তিনি বলেন, এখন তারাই চক্রান্ত করছে নির্বাচনকে ভন্ডুল করার জন্য। সংবিধানেই আছে কিভাবে নির্বাচন হবে। সমস্ত গনতান্ত্রিক দেশে নির্বাচিত সরকারের অধিনেই নির্বাচন হয়, একই ভাবে আমাদের দেশেও শেখ হাসিনার অধিনেই নির্বাচন হবে। তাই আমরা বলবো কোন ধরণের চক্রান্ত না করে নির্বাচনে আসুন জনগনের রায় গ্রহণ করুন।
নির্বাচনে বিএনপির অংশ্রগ্রহণ নিয়ে তাদের সঙ্গে কোন আলোচনা হ্ওয়ার সম্ভাবনা আছে কিনা জানতে চাইলে নাসিম বলেন, কোন রাজনৈতিক দল কিভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহন করবে এটা তাদের বিষয়। এটা নিয়ে আমাদের সঙ্গে কারও কোনি আলোচনা হয় নি। বিএনপি নির্বাচনে আসবে বলে আমরা আশা করছি। বিএনপির সঙ্গে নির্বাচন নিয়ে ভবিষ্যতে আলোচনার কোন প্রশ্নই উঠে না।
বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, জাসদের একাংশের সভাপতি শরিফ নুরুল আম্বিয়া, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর