Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ৮ কার্তিক ১৪২৫, ১২ সফর ১৪৪০ হিজরী

টাকা না পেয়ে শিশুকে পানিতে চুবিয়ে হত্যা

চট্টগ্রামে ৩ ডাকাতের স্বীকারোক্তি

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৯ জুলাই, ২০১৮, ১২:০২ এএম

ঘরে তিন লাখ টাকা আছে এমন খবর পেয়ে ডাকাতি করতে যায় তারা। কিন্তু টাকা না পেয়ে মেজাজ বিগড়ে যায়। একপর্যায়ে মায়ের কোল থেকে নয় মাসের শিশুকে কেড়ে নিয়ে বাথরুমে বালতির পানিতে চুবিয়ে মারে তারা। নগরীর পতেঙ্গা থানার সতীশ মহাজন লেনে চাঞ্চল্যকর শিশু খুনের ঘটনায় এমন স্বীকারোক্তি দিয়েছে তিন আসামি।
গত ১৫ জুন ঈদের আগের দিন বিকেলে রিপন মিত্রের বাসায় হানা দিয়ে শিশুটির মার কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা ও স্বর্ণের আংটিও ছিনিয়ে নেয় ডাকাত দল। এক মাস পর পতেঙ্গার নারিকেল তলা এলাকা থেকে সাজ্জাদ হোসেন (২৫) ও সাইফুল ইসলাম (২২) ও মোঃ রুবেল ওরফে ভাগিনা রুবেল (২২) নামে তিন যুবককে গ্রেফতারের পর তারা এমন স্বীকারোক্তি দেয়।
নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (পতেঙ্গা জোন) জাহেদুল ইসলাম জানান, গতকাল সকালে ও রোববার রাতে ওই তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। সাজ্জাদ ও সাইফুল চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আবু সালেম মোঃ নোমানের আদালতে ঘটনার বর্ণনা দিয়ে জবানবন্দিও দিয়েছেন বলে জানান তিনি। এই ঘটনার সাথে মোট আটজন জড়িত ছিল। রিপনের প্রতিষ্ঠানের হাবিব নামে এক কর্মচারীর তথ্যের ভিত্তিতে তারা বাসায় টাকা লুট করতে যায়।
টাকা না পেয়ে নয় মাস বয়েসী শিশুটিকে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করে তারা। ডাকাতির সময় রিপনের স্ত্রী তাদের নয় মাস বয়েসী মেয়েটিকে নিয়ে ঘরে ছিলেন। বড় মেয়েকে নিয়ে সাতকানিয়ায় গ্রামের বাড়িতে গিয়েছিলেন রিপন। ডাকাতরা স্বীকার করে শিশুটিকে জিম্মি করার পর তার মা চম্পা তার কাছে থাকা ২০ হাজার টাকা ও আংটি দিয়ে দেয়। তবে তিন লাখ টাকা না পাওয়ায় তারা মেয়েটিকে হত্যা করে পালিয়ে যায়। বাকি আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে বলে জানায় পুলিশ।
গণতন্ত্র ও স্বৈরতন্ত্র একসাথে চলতে পারে না : হাসান সরকার
গাজীপুর জেলা সংবাদদাতা : বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক এমপি মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকার বলেছেন, গণতন্ত্র ও স্বৈরতন্ত্র একসাথে চলতে পারে না। তাই গণতন্ত্রী জিয়া পরিবারকে সহ্য করতে পারছে না বর্তমান স্বৈরশাসক। হাসান উদ্দিন সরকার গতকাল মঙ্গলবার টঙ্গীর আহসান উল্লাহ সরকার ইসলামিক ফাউন্ডেশন মিলনায়তনের গোলাপ মঞ্চে দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। ২০ দলীয় জোটের শরিক জাতীয় পার্টির মহাসচিব সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা জামাল হায়দার এর সহধর্মিনী অধ্যাপিকা রওশন আরা বেগম ও টঙ্গীর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী-সমাজকর্মী বদর উদ্দিনের দ্বিতীয় সন্তান মো. সারোয়ার আলমের রুহের মাগফিরাত কামনায় এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
হাসান সরকার আরো বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়ার রহমান বাংলাদেশে বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা। তাই তার পরিবার বাংলাদেশের ঐতিহাসিক গণতন্ত্রী পরিবার। এই পরিবারের ইতিহাস-ঐতিহ্যের সাথে গণতন্ত্রের সম্পর্ক ওতপ্রোতভাবে জড়িত। সম্পূর্ণ বিপরিতমুখী চরিত্রের অধিকারী বলেই বর্তমান সরকার গণতন্ত্রী জিয়া পরিবারকে সহ্য করতে পারছে না। অসুস্থ্য বেগম জিয়াকে নিকৃষ্ট ও নির্মম কারাপ্রকোষ্ঠে বন্ধী রেখে তাঁর মৃত্যু নিশ্চিত করে গণতন্ত্রের সমাধি দিতে চায় স্বৈরতান্ত্রিক ও বাকশালি সরকার।
নাজিম উদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর জেলা বিএনপির সহসভাপতি মীর হালিমুজ্জামান ননী, টঙ্গী সচেতন নাগরিক পরিষদের সভাপতি শাহাব উদ্দিন সিদ্দিকী, মির্জা আবুল হাসান, আবুল হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা নাজির আহমেদ, মাওলানা আব্দুস সামাদ চৌধুরী, আব্দুর রহিম খান কালা, আতাউর রহমান আতিক, বাবর আলী, নাসির উদ্দিন শাহ প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

এ সংক্রান্ত আরও খবর