Inqilab Logo

শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

কুমিল্লায় জালিয়াতির মামলায় উপজেলা চেয়ারম্যান গ্রেফতার

মুন্সী কামাল আতাতুর্ক মিসেল চান্দিনা থেকে | প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০১৮, ৯:০৫ পিএম


কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদের বিএনপি দলীয় চেয়ারম্যান রুহুল আমিনকে জালিয়াতির মামলায় গতকাল বুধবার ঢাকার গ্রেফতার করেছে সিআইডি। ঢাকার আশুলিয়া থানায় দায়েরকৃত প্রতারণা ও জাল-জালিয়াতির একটি মামলায় তাকে রাজধানীর শান্তিনগর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।
জানা গেছে, প্রতারণা ও জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে প্রায় ১১ কোটি টাকা মূল্যের সম্পত্তি আত্মসাতের অভিযোগে গত ২৫ মে ঢাকার আশুলিয়া থানায় দেবীদ্বার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে আবদুল হাকিম নামের এক ব্যক্তি বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।
বুধবার দুপুরে সিআইডির পক্ষ থেকে এক প্রেসব্রিফিংয়ে জানানো হয়, মো. আবদুল হাকিম আশুলিয়া থানাধীন মৌজার পূর্ব নরসিংহপুর এর সিএস ও এসএ ৯২ দাগ আরএস ২৭২ দাগ সিটি জরীপে ৯১৫ ও ৯১৯ দাগে ১৩৭.৫০ শতাংশ জমির প্রকৃত মালিক এবং ওই জমির মূল্য প্রায় ১১ কোটি টাকা।
গত ২৮ এপ্রিল আশুলিয়া এসিল্যান্ড অফিস থেকে প্রেরিত একটি নোটিশ হাতে পান আবদুল হাকিম। ওই নোটিশের মাধ্যমে তিনি জানতে পারেন, ওই জমির নামজারি ও জমা খারিজের জন্য এক ব্যক্তি এসিল্যান্ড অফিসে আবেদন করেছেন। পরে তিনি এসিল্যান্ড অফিসে যোগাযোগ করলে তাকে জানানো হয় রুহুল আমিন নামের এক ব্যক্তি ৪ টি দলিল দাখিল করে উক্ত জমির মালিকানা দাবি করেছেন। বিষয়টি জানার পর আবদুল হাকিম গত ২৫ মে রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
তবে দেবীদ্বার উপজেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, বিএনপির মনোনয়নে গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি নির্বাচিত হলেও নির্বাচনের পর তিনি ইউটার্ন করায় বর্তমানে দলের সঙ্গে তার কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এছাড়া দলে তার কোনো পদ-পদবীও নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কুমিল্লায় জালিয়াতির মামলায় উপজেলা চেয়ারম্যান গ্রেফতার
আরও পড়ুন